1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

ফেসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৫০ কোটি

বিশ্বের মোট জনসংখ্যার ১৪ ভাগের এক ভাগ এখন ফেসবুক ব্যবহার করেন৷ অঙ্কের হিসেবে এই সংখ্যা ৫০ কোটি৷ বুধবার সকালেই এই কোঠা পেরিয়েছে বয়সে নবীন সামাজিক নেটওয়ার্কিং সাইটটি৷

default

ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবের্গ

ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবের্গ এক ব্লগ পোস্টে জানিয়েছেন, আজকে (বুধবার) সকাল থেকে বিশ্বের নানা প্রান্তের ৫০০ মিলিয়ন মানুষ সক্রিয়ভাবে ফেসবুক ব্যবহার করছেন৷ বন্ধু এবং আশপাশের মানুষের সঙ্গে যুক্ত থাকতেই তাদের এই ফেসবুক চর্চা৷

তিনি জানান, ফেসবুককে ছড়িয়ে দিতে যারা সহায়তা করেছেন, তাদের সবার জন্য এটি একটি মাইলফলক৷

৫০ কোটির কোঠায় পৌঁছানোর দিনটিকে উদযাপন করতে ফেসবুক চালু করেছে একটি এপ্লিকেশন৷ ফেসবুক ব্যবহারের নানা কারণ সেখানে তুলে ধরা হচ্ছে৷ উদাহরণ হিসেবে জুকারবের্গই জানালেন, ডেনিশ প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে ন্যাটোর বর্তমান মহাসচিব আন্ডার্স ফগ রাসমুসেন নিজের ফেসবুক ফ্যানদের নিয়ে জগিংয়ে যেতেন৷ জুকারবের্গের আরেক উদাহরণ হচ্ছে, স্তন ক্যান্সার প্রতিরোধে এক মহিলার ফেসবুক ক্যাম্পেইন৷

ফেসবুক প্রতিষ্ঠাতার কথায়, আমাদের মিশন হচ্ছে পৃথিবীকে আরো উম্মুক্ত করা, সেইসঙ্গে একে অপরের মধ্যকার সম্পর্কটি ধরে রাখা৷

এদিকে, অ্যামেরিকানরা বর্তমানে ফেসবুক আসক্তই বলা যায়৷ সাম্প্রতিক এক জরিপ জানাচ্ছে, অনেক মহিলা নাকি সকালে স্নানাগারে যাবার আগেই একবার অন্তত ফেসবুকে চোখ বোলান৷

অবশ্য, অনেক মানুষ ফেসবুক আসক্ত হলেও গ্রাহক সন্তুষ্টির তালিকায় সাইটটির অবস্থা খুবই শোচনীয়৷ কিছুদিন পর পর ওয়েবসাইটে নানা পরিবর্তন আর মাত্রাতিরিক্ত বাণিজ্যিক প্রবণতার কারণেই এই দশা৷ ইন্টারনেট বিশেষজ্ঞ রব এন্ডার্লির কথায়, ফেসবুক খুব দ্রুত বাড়ছে কারণ এর কোন শক্তিশালী বিকল্প নেই৷ তাছাড়া ফেসবুক ছেড়ে যাওয়াটা একটু কঠিন৷ কেননা, এখানে জমা রাখা ছবি কিংবা অন্যান্য তথ্য অন্য সাইটে সরানো অনেক ঝক্কির কাজ৷

তিনি বলেন, মানুষ একের পর এক ফেসবুকে ঢুকছে, কারণ তাদের বন্ধুরা সেখানে রয়েছে৷

তবে, গুগল কিংবা মাইক্রোসফট চাইলে ফেসবুকের বিকল্প দাঁড় করাতে পারে বলে মত সিলিকন ভ্যালির এই বিশেষজ্ঞের৷ কেননা, এই দুই সংস্থার সেই কর্মক্ষমতা এবং দক্ষতা রয়েছে৷

তবে, আলোচনা সমালোচনা যাই থাক জনপ্রিয়তার শীর্ষে এখন ফেসবুক৷ সেটা অ্যামেরিকা হোক আর বাংলাদেশ - সব জায়গাতেই সবার আগে ফেসবুকের অবস্থান৷

প্রতিবেদন: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই