1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ফেসবুক থেকে শুরু মিশরের সরকার-বিরোধী আন্দোলন

টিউনিশিয়ার ঘটনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে মিশরে শুরু হয়েছে সরকার-বিরোধী আন্দোলন৷ এই ঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার তিনজন নিহত হয়েছে৷ এদিকে বিক্ষোভ চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে আন্দোলনকারীরা৷

default

ফরাসী ভাষায় লেখা- মুবারক, চলে যাও

কেন বিক্ষোভ?

কয়েকটি দাবি রয়েছে বিক্ষোভকারীদের৷ যেমন প্রেসিডেন্ট হোসনি মুবারকের পদত্যাগ যিনি তিন দশক ধরে ক্ষমতায় রয়েছেন৷ এছাড়া দেশটিতে গত কয়েক বছর ধরে বলবৎ থাকা জরুরি অবস্থা তুলে নেয়া ও সর্বনিম্ন বেতনের পরিমাণ বাড়ানোর দাবি করেছে বিক্ষোভকারীরা৷ এসব দাবি নিয়ে বিক্ষোভ করার আহ্বান জানানো হয়েছিল ফেসবুকের মাধ্যমে৷ সেখানে তরুণদের একটি গ্রুপ রয়েছে, যার নাম ‘এপ্রিল ৬ মুভমেন্ট'৷ ২০০৮ সালে এটি প্রতিষ্ঠা করা হয়৷ ঐ গ্রুপের পেজে জানানো আহ্বানে সাড়া দিয়ে গতকাল মঙ্গলবার হাজার হাজার বিক্ষোভকারী রাস্তায় নেমে আসে৷ রাজধানী কায়রো ছাড়াও পুরো মিশর জুড়েই বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ হয়েছে৷ এর মধ্যে সুয়েজ শহরে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে দুজন বিক্ষোভকারী নিহতের ঘটনা ঘটেছে৷ আর রাজধানীতে নিহত হয়েছেন এক পুলিশ সদস্য৷

বেশ বড় বিক্ষোভ

NO FLASH Ägypten Kairo Proteste

১৯৭৭ সালের পর মিশরে এর চেয়ে বড় বিক্ষোভ আর হয়নি বলে মনে করছেন অনেকে৷ যেমন কায়রোর একটি গবেষণা সংস্থায় কর্মরত এক বিশ্লেষক বলছেন, শুধু আন্দোলনকারীর সংখ্যার হিসেবে বা সারা দেশ জুড়ে হচ্ছে বলেই নয়, আরও একটা কারণে এবারের বিক্ষোভ সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ৷ আর সেটা হলো, এবারই প্রথমবারের মত একেবারে সাধারণ জনগণ রাস্তায় নেমে এসেছে৷

টিউনিশিয়া যোগসূত্র

অনেকে এমনটাই মনে করছেন৷ কারণ কয়েকজন বিক্ষোভকারীর হাতে থাকা প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল ‘টিউনিশিয়াই সমাধান'৷ অর্থাৎ রাস্তার আন্দোলনের মাধ্যমে সম্প্রতি টিউনিশিয়ায় যে সরকার পতনের ঘটনা ঘটেছে, সেটা থেকে যে বিক্ষোভকারীরা উৎসাহ পেয়েছেন, তা প্ল্যাকার্ডের ঐ লেখা থেকে বোঝা যাচ্ছে৷ এছাড়া বিক্ষোভ মিছিল থেকে আরব বিশ্বের অন্যান্য স্বৈরশাসকদের বিরুদ্ধেও স্লোগান দেয়া হচ্ছিল৷ তবে মিশরীয় কর্তৃপক্ষ টিউনিশিয়ার মত ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা উড়িয়ে দিলেও, বিষয়টা নিয়ে তারা যে উদ্বিগ্ন, সেটা বোঝা গেছে তাদের নেয়া একটি সিদ্ধান্ত থেকে৷ আর সেটা হচ্ছে, ভবিষ্যতেও মৌলিক খাবারে ভর্তুকি দেয়া হবে বলে জনগণকে আশ্বস্ত করেছে সরকার৷

প্রতিক্রিয়া

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিন্টন সব পক্ষকে ধৈর্য্য ধরার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন ওয়াশিংটন মনে করে, মিশরে একটা স্থিতিশীল সরকার ক্ষমতায় রয়েছে৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

ইন্টারনেট লিংক

সংশ্লিষ্ট বিষয়