1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

ফেসবুকে যে ছবি প্রকাশে মানা

ফেসবুকের পরিধি দিনে দিনে বাড়ছে৷ এইতো কিছুদিন আগেও এটি ছিল এক সীমাবদ্ধ সামাজিক নেটওয়ার্ক৷ এখন নিত্যনতুন নানা ফিচার আর বার্তা সেবার কারণে সেটি অনেকটাই উম্মুক্ত৷ তাই, ফেসবুকে আপনার অবস্থানটাও এখন আরো গোছালো হওয়া চাই৷

default

এমন ছবি ফেসবুকে না দেয়াই ভালো (ফাইল ফটো)

শিরোনাম দেখে ভেবে বসবেন না, ফেসবুকে নির্দিষ্ট কিছু ছবি দেওয়া থেকে বিরত রাখতে চাইছে আপনাকে৷ মোটেই না, বরং কিছু ছবি আছে যেগুলো আপনার প্রোফাইলকে হাস্যকর করে তুলতে পারে৷ আপনার নিজের ব্যক্তত্বকেও খানিকটা বিপাকে ফেলতে পারে৷ তাই বিশেষজ্ঞরা তৈরি করছেন পাঁচ ধরনের ছবির এক তালিকা৷ যেগুলো ফেসবুকে না দিলেই ভালো৷

‘মাইস্পেস শট'

শুরুতেই ধরুন ‘মাইস্পেস শট' এর কথা৷ বুঝলেন তো, ঐ যে আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে মুঠোফোনে নিজের ছবি তোলা৷ অনেকেই দিগম্বর হয়ে এমন ছবি তোলেন, তারপর জুড়ে দেন ফেসবুক প্রোফাইলে৷ বহু নারীও এভাবে নিজের আবেদনময়ী দিকগুলো তুলে ধরতে চান৷ বিশেষজ্ঞরা কিন্তু বলছে, এমন ছবি আপনার জন্য উপকারী নাও হতে পারে৷ প্রথমত, এই ছবি দেখে মনে হবে আপনি আসলে একাকী এক মানুষ৷ কোন সঙ্গী নেই আপনার৷ তাছাড়া আয়নায় আপনার প্রতিচ্ছবি ঠুনকো আকর্ষণ তৈরি করলেও মোটেই তা ব্যক্তিত্বপূর্ণ নয়৷

পোষা প্রাণীর ছবি

অনেকে আবার প্রোফাইলে জুড়ে দেন নিজের পোষা প্রাণীটির ছবি৷ কিংবা কোন প্রতীকী ছবি৷ এই নিয়েও ঘোর আপত্তি ইন্টারনেট বোদ্ধাদের৷ তাদের কথায়, পোষা প্রাণীর ছবিটি দেখতে সুন্দর হলেও সেটি আপনি নন৷ তাই, আপনার প্রোফাইলে আপনার ছবিটাই থাকুক৷

Facebook Nutzer User Computer Datenschutz Internet Web 2.0 Flash-Galerie

ফেসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা সাড়ে পাঁচ কোটি ছাড়িয়েছে

মদিরা

কেউ কেউ ওয়াইন গ্লাস কিংবা বিয়ারের বোতল হাতে ছবি তুলতে ভালোবাসেন৷ তুলতেই পারেন, একটা দুটো ফেসবুকে দিলেও আপত্তি নেই৷ কিন্তু এরকম সিরিজ ছবি প্রকাশ করলে, মনে হবে আপনি বুঝি এসবের বিজ্ঞাপনে নাম লিখিয়েছেন৷ তাছাড়া, আজকাল ফেসবুকে কত ধরনের মানুষইতো বন্ধু হয়৷ নিজের ছোট ভাইটি কিংবা বান্ধবীর বাবা-মা এমন ছবি দেখে খানিকটা কি চটবেন না!

তন্বীর প্রথম নজর ফেসবুকে

একথা সত্য যে, ফেসবুক কোন ডেটিং সাইট নয়৷ তারপরও ১৭ থেকে ২১ বছর বয়সিদের ৭৯ শতাংশই কিন্তু নতুন পরিচিতকে প্রথম সপ্তাহেই ফেসবুকে যোগ করে৷ এমনটাই বলছে সেভেন্টিন ম্যাগাজিন৷ তারচেয়েও বড় কথা, ৪৩ শতাংশ তন্বী পুরুষের ফেসবুক প্রোফাইল দেখার পর অন্তরঙ্গ দেখাসাক্ষাতের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়৷ তাই, সেখানকার প্রোফাইলে যদি আপনি গ্রুপ ছবি লাগিয়ে বসে থাকেন, তাহলে তরুণীর কাছ থেকে মূল্যায়ণটা কেমন আশা করছেন?

নিয়মিত বদলান

যাক সে কথা, বিয়ে করেছেন নাকি? অনেকে কিন্তু জানুয়ারীতে বিয়ে করে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সে ছবি প্রোফাইলে ঝুলিয়ে রাখেন৷ বন্ধুরা কিন্তু দিনের দিন একই ছবি দেখে ক্লান্ত হতে পারে৷ তাই, নিয়মিত প্রোফাইলের ছবিতে পরিবর্তন আনাটা

খুবই সমীচিন৷

প্রতিবেদন: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দোপাধ্যায়

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়