1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

ফেসবুকে ব্যক্তিগত তথ্যের নিরাপত্তা আবারও প্রশ্নের মুখে

ফেসবুকে তথ্য দেয়া কতটা নিরাপদ? এ প্রশ্নটি এখন প্রায়ই উঠছে৷ তথ্যের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কিত হয়ে অনেকেই ইতিমধ্যে ফেসবুক ব্যবহার থেকে সরে এসেছেন৷ এরই মধ্যে আরও একটি ঘটনা ফেসবুকের নিরাপত্তাকে আবারও প্রশ্নের সম্মুখীন করে তুলেছে৷

default

একজন কম্পিউটার নিরাপত্তা গবেষক সম্প্রতি প্রায় ১০০ মিলিয়ন ফেসবুক ব্যবহারকারীর তথ্যের একটি তালিকা তৈরি করেছেন৷ বিটটরেন্ট নেটওয়ার্কে এই তথ্যগুলো পাওয়া যাচ্ছে৷ এখানে বলে রাখি, ফেসবুকের বর্তমান ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় ৫০০ মিলিয়ন৷

রন বাউজ নামের ঐ কম্পিউটার নিরাপত্তা গবেষক বলছেন ফেসবুকের ‘পাবলিক ডিরেক্টরি' থেকে তিনি তথ্যগুলো সংগ্রহ করেছেন৷ উল্লেখ্য, এই পাবলিক ডিরেক্টরিতে ব্যবহারকারীদের ঐসব তথ্যই থাকে, যা ব্যবহারকারীরা নিজের ইচ্ছেতেই অন্যদের দেখার জন্য উন্মুক্ত করে রেখেছেন৷

নিশ্চয় ভাবছেন, তাহলে আর সমস্যা কোথায়? তাই না? কারণ, ব্যবহারকারীরা যা দেখাতে চান তাইতো পাওয়া যাবে রন বাউজের তৈরি ঐ তালিকাতে৷ তাই সে অর্থ সমস্যা যে খুব প্রকট তা কিন্তু নয়৷ তবে এর থেকে একটা বিষয় পরিষ্কার৷ আর তা হলো, যে কেউ খুব সহজেই পাবলিক ডিরেক্টরি থেকে অন্যের ইমেল ও বসবাসের ঠিকানা সহ অন্যান্য তথ্য পেয়ে যেতে পারে৷ আর এই বিষয়টি নিয়েই শঙ্কিত রন বাউজ৷ নিজের ব্লগে তিনি লিখেছেন, ‘‘ফেসবুকের প্রাইভেসি সেটিংস যে কতটা জটিল এবং একজন ব্যবহারকারীর তথ্য যে কীভাবে তাঁর অজান্তেই অন্যের কাছে চলে যাচ্ছে, এই বিষয়টিই আমি দেখাতে চেয়েছি৷''

তবে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, এগুলো নতুন কোন তথ্য নয়৷ ব্যবহারকারীরা যা দেখাতে রাজি হয়েছে, কেবল সেগুলোই পাওয়া যাবে রন বাউজের তালিকাতে৷ এবং এই তথ্যগুলো গুগল বা বিং জাতীয় সার্চ ইঞ্জিনগুলোতেও পাওয়া যাচ্ছে৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়