1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

ফেসবুকের ইতিহাসে সবচেয়ে আলোচিত ‘বিশ্বকাপ’

ফেসবুক আজ ঘরে ঘরে, মানুষের হাতের মুঠোয়৷ তাই বিশ্বকাপের দ্বিতীয় পর্ব না পার হতেই রেকর্ড এক বিলিয়ন পোস্ট, লাইক ও কমেন্ট পেয়েছে সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইট ফেসবুক৷

গত দশ বছরে ফেসবুকে কোনো নির্দিষ্ট বিষয়ে এত বিপুল সংখ্যক পোস্ট, লাইক বা কমেন্ট আর কখনো আসেনি৷ বিশ্বকাপই এখন ফেসবুকের সবচেয় আলোচিত বিষয়৷

১২ই জুন ব্রাজিল বিশ্বকাপের উদ্বোধন থেকে শুরু করে ২৯শে জুন পর্যন্ত ২২ কোটি ব্যবহারকারী অন্তত এক বিলিয়ন, অর্থাৎ ১০০ কোটি বার ফেসবুকে সক্রিয় হয়েছেন৷ এই সংখ্যা এত দ্রুত বাড়ছে যে বাকি দিনগুলোতে বিশ্বকাপ হয়ত স্যোশাল মিডিয়ার ইতিহাসেই সবচেয়ে বড় আলোচিত ঘটনা হয়ে দাঁড়াবে৷

ফেসবুকের পরিচালক (পার্টনারশিপ) নিক গ্রুডিন বলেন, ‘‘বিশ্বকাপ নিয়ে ফেসবুকে যে মাত্রায় মাতামাতি চলছে, তা অভূতপূর্ব৷ সবাই রীতিমত মূলধারার মিডিয়ার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বিশ্বকাপ দেখার অভিজ্ঞতা বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করে চলেছেন৷''

টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা হয় – এমন বড় ঘটনায় ব্যবহারকারীদের মনোযোগ কেন্দ্রীভূত করে বিজ্ঞাপন থেকে আয় বাড়ানোর কৌশলে গত বছর প্রথম চমক দেখিয়েছিল মাইক্রোব্লগের ওয়েবসাইট টুইটার৷ তারই ধারাবাহিকতায় বিশ্বকাপের মাসে ফেসবুকের এমন সাফল্য এলো৷

এই সাফল্য সম্ভব হয়েছে বিশ্বজুড়ে মোবাইল ফোনে ফেসবুক ব্যবহার সহজ হয়ে ওঠার কারণে৷ প্রতি দশজন মোবাইল ব্যবহারকারীর সাতজনই সব সময় ফোনের মাধ্যমে ইন্টারনেটে যুক্ত থাকছেন এবং ফেসবুক ব্যবহার করছেন৷ বিজ্ঞাপন বাবদে ফেসবুকের যে আয়, তার ৬০ শতাংশ মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীদের কাছ থেকেই আসছে৷

এছাড়া ফুটবলের নিজস্ব আবেদন তো রয়েছেই৷ বিশ্বকাপ শুরুর পর প্রথম সপ্তাহেই এ বিষয়ে শেয়ার, লাইক, কমেন্টের সংখ্যা সুপার বোল, উইন্টার অলিম্পিক ও অস্কার পুরস্কার বিতরণীর মিলিত রেকর্ডকে ছাড়িয়ে যায়৷ ওই সাত দিনেই ফেসবুকে বিশ্বকাপ আলোচনায় সম্পৃক্ত হন ৪৫ কোটি ৯০ লাখ ব্যবহারকারী৷

বিশ্বকাপ নকআউট পর্বে গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে ফেসবুকেও উন্মাদনা বাড়তে থাকে৷ প্রথম দিন ব্রাজিল-চিলি শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচ নিয়েই সাড়ে সাত কোটি পোস্ট, লাইক ও কমেন্ট করেন ৩ কোটি ১০ লাখ ব্যবহারকারী৷

নিক গ্রুডিন বলেন, ‘‘বিশ্বকাপ সারা বিশ্বের সব সংস্কৃতির মিলনের একটি বড় অনুঘটক৷ ফেসবুকে আমরা তারই প্রতিফলন দেখছি৷''

জেকে/ডিজি (রয়টার্স, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়