1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

ফুটবল মানেই নাটক, খেলোয়াড় মানেই অভিনেতা!

শুধু ড্রিবলিং, দৌড়ানো, স্ট্যামিনা সহ গুণাগুণ থাকলেই চলবে না, হতে হবে ভালো অভিনেতাও৷ তা না হলে ফুটবল মাঠে রেফারির চোখে ধুলো দিতে পারবেন না৷ অভিনয় তো আর ডোপিং-এর মতো অসৎ কাজ নয়!

Fußball Bundesliga Hamburger SV gegen VfB Stuttgar

প্রতীকী ছবি

শুধু ফুটবলকে দোষারোপ কেন! সব খেলাতেই তো অসৎ কাজ হয়৷ সাইক্লিস্ট আর অ্যাথলিটরা দিব্যি ডোপিং করে ক্ষমতা বাড়িয়ে নেন৷ কথায় বলে ‘চুরিবিদ্যা মহাবিদ্যা, যদি না পড়ে ধরা'৷ ডোপিং বড় ঝকমারির কাজ৷ তার থেকে অনেক সহজ উপায় রয়েছে৷ অন্তত ফুটবল মাঠে সেই কায়দা রপ্ত করেছেন অনেক খেলোয়াড়৷ তাদের অভিনয় ক্ষমতার একটা তালিকা তৈরি করেছে সংবাদ সংস্থা এপি৷

প্রথমেই ডাইভিং৷ দর্শক হিসেবে মনে হতেই পারে যে মাঠের পেনাল্টি এলাকা বোধহয় বেশ পিচ্ছিল৷ কারণ সেখানেই খেলোয়াড়রা ধপাধপ পড়ে যান৷ ডিফেন্ডারের শরীরের সঙ্গে সামান্য ছোঁয়া লাগলে অথবা কাছাকাছি এলেও অনেকে দিব্যি পড়ে যান৷ আবার ডিফেন্ডার সত্যি ধাক্কা মেরেও দুই হাত তুলে রেফারির দিকে নিষ্পাপ দৃষ্টিতে তাকিয়ে বলার চেষ্টা করেন, ‘‘কই আমি তো কিছু করি নি!''

তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে আহত হবার ভান করা৷ অভিনয়ের এই রূপ মাঠে সবচেয়ে বেশি দেখা যায়৷ অন্যের সহানুভূতি আদায় করা এবং নিজের স্বাস্থ্য নিয়ে দুশ্চিন্তা ছড়িয়ে দিতে এটাই সবচেয়ে ভালো কায়দা৷ ম্যাচ থামিয়ে সময় নষ্ট করতে এবং প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়কে হলুদ অথবা লাল কার্ড দেখানোর বন্দোবস্ত করা যায় ভালো অভিনয়ের মাধ্যমে৷

এছাড়াও আছে অন্য কিছু পন্থা৷ যেমন ‘থ্রো ইন চিটিং'৷ বল সাইডলাইন পেরিয়ে গেলে থ্রো করতে গিয়েও খেলোয়াড়রা নানান কসরত করে সবার মনোযোগ অন্যদিকে টেনে নিয়ে যাবার চেষ্টা করেন৷ আছে ‘আওয়ার বল' দাবিও৷ বল যখন গোল লাইন বা সাইড লাইন পেরিয়ে যায়, তখন দুই দলের খেলোয়াড়রাই হাত তুলে বলের উপর নিজেদের দাবি জানায়৷ কে আসলে বল ছুঁয়েছিল, তা আর স্পষ্ট থাকে না৷ তারপর রয়েছে খেলার সময় নষ্ট করার ‘ডিলে' কৌশল৷ জয়ের কাছাকাছি চলে এলে এবং খেলা শেষ হতে কয়েক মিনিট বাকি থাকলে নানা অজুহাতে সেই দলের খেলোয়াড়রা সময় নষ্ট করেন৷

সবার শেষে রয়েছে ‘ডাবল স্ট্যান্ডার্ড' কৌশল৷ অর্থাৎ আমার ক্ষেত্রে যা সঠিক, প্রতিপক্ষের ক্ষেত্রে তা বিপরীত৷ কোনো খেলোয়াড় নিজে কোনো চালাকি করে ভালোমানুষ সাজার চেষ্টা করেন৷ কয়েক মিনিট পর প্রতিপক্ষের খেলোয়াড় সেই একই কাজ করলে তীব্র প্রতিবাদে মুখর হয়ে ওঠেন৷

অতএব ফুটবলকে আর শুধু ফুটবল হিসেবে দেখলে চলবে না৷ আসন্ন বিশ্বকাপ দেখার সময় খেয়াল রাখবেন, এ সব আপনারও চোখে পড়ছে কিনা৷

এসবি/ডিজি (এপি, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন