1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

ফুটবল মাঠে আগুন নিয়ে খেলা নয়

ফুটবল মাঠে আতশবাজি ও মশালের ব্যবহারের বিরুদ্ধে গর্জে উঠেছেন ফিফা প্রধান সেপ ব্লাটার৷ তাঁর মতে, এমন দুষ্কৃতিদের মাঠে কোনো জায়গা থাকতে পারে না৷ তাই এদের থামাতে ক্লাবগুলিরও আরও কড়া মনোভাব নিতে হবে৷

ফুটবল মানেই আবেগ এবং সেই আবেগের বাঁধভাঙা বহিঃপ্রকাশ৷ স্টেডিয়ামে বসে ফুটবল ম্যাচ দেখার অভিজ্ঞতা থাকলেই তা টের পাওয়া যায়৷ উচ্ছ্বাস, চিৎকার, নাচ-গান – এ সব ছাড়া স্টেডিয়ামের পরিবেশ কি আর জমে! কিন্তু প্রশ্নটা হলো মাত্রার৷ ফ্যানদের কার্যকলাপের ফলে যদি শান্তি বিঘ্নিত হয়, পরিস্থিতি বিপজ্জনক হয়ে পড়ে, তখনই সমস্যা৷ হাজার-হাজার দর্শক উন্মত্ত হয়ে উঠলে পুলিশ বা কর্তৃপক্ষের পক্ষে তা সামলানো কঠিন কাজ৷

ফুটবল স্টেডিয়ামে অন্যতম বিপজ্জনক বস্তু হলো আতশবাজি বা মশাল৷ আগুন মানেই বিপদ৷ এমনকি যাদের হাতে এই সব বস্তু থাকে, তাদের পক্ষেও আগুন নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব নয়৷

Sepp Blatter

‘‘ফুটবল ম্যাচ এক সামাজিক অনুষ্ঠান৷ উন্মাদ ও বিকারগ্রস্ত মানুষের সেখানে কোনো জায়গা নেই’’

আসন্ন বিশ্বকাপের প্রাক্কালে ফিফার প্রধান সেপ ব্লাটার আবার গর্জে উঠেছেন ফুটবল মাঠে মশাল ও আতশবাজির বিরুদ্ধে৷ ফিফার সাপ্তাহিক ম্যাগাজিনে তিনি লিখেছেন, গ্যালারিতে আগুন ও আগুনের শিখার কোনো স্থান থাকতে পারে না৷ ছোটবেলায় প্রতিটি শিশুকে আগুনের বিপদ সম্পর্কে সচেতন করে তোলা হয়৷ অথচ প্রাপ্তবয়স্ক তথাকথিত ফুটবল ফ্যানরা এখনো স্টেডিয়ামে মশাল জালায়, অ্যাসিড স্মোক বোমা ফাটায় যার ফলে ১,০০০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি তাপমাত্রা সৃষ্টি হয়৷

ব্লাটার প্রশ্ন তুলেছেন, চারিদিকে ধোঁয়া ছড়িয়ে সবাইকে চরম বিপদের মুখে ঠেলে দেওয়ার অর্থ কী? তাঁর মতে, যারা আগুন নিয়ে খেলা করে, তাদের হাতে ফুটবলের অপব্যবহার ও অবমাননা একেবারেই মেনে নেওয়া যায় না৷ কারণ ফুটবল ম্যাচ এক সামাজিক অনুষ্ঠান৷ উন্মাদ ও বিকারগ্রস্ত মানুষের সেখানে কোনো জায়গা নেই৷ তাছাড়া হাতে-গোনা এই সব দুষ্কৃতিদের কারণে বাবা-মা সন্তানদের নিয়ে স্টেডিয়ামে আসতে ভয় পান৷

এ প্রসঙ্গে ফুটবল ক্লাবগুলির বিরুদ্ধেও মারাত্মক অভিযোগ তুলেছেন ব্লাটার৷ তাঁর মতে, ক্লাবগুলি দোষীদের চেনা সত্ত্বেও তাদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে ভয় পায়৷ তারা টিকিট কেটে স্টেডিয়ামে ঢোকে বলেই ‘কাস্টমার' হারাতে চায় না ক্লাবগুলি৷ ব্লাটার মনে করেন, ক্লাবগুলির উচিত আসল ফ্যানদের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তোলা, যারা গোলমাল করে তাদের সঙ্গে নয়৷

এসবি/ডিজি (রয়টার্স, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন