1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

ফুটবলারদের উৎকর্ষ বাড়াতে প্রযুক্তির ব্যবহার

খেলাধুলার জগতে শুধু ভালো খেলার আশার ভরসায় করলে চলে না৷ অনুশীলনের পাশাপাশি উন্নত প্রযুক্তির দৌলতে খেলোয়াড়দের শরীরচর্চার উপরও যথেষ্ট জোর দেওয়া হয়৷ জার্মানির এক ফুটবল টিম এক্ষেত্রে বিশেষ উৎকর্ষ দেখাচ্ছে৷

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা ফুটবল৷ টিমে নিয়মিত স্থান পেতে হলে পেশাদার ফুটবলারদের সর্বোচ্চ মানের খেলা খেলতে হয়৷ সিমন রল্ফেস সেই কাজেই ব্যস্ত৷ তিনি জার্মান ফুটবল লিগের ‘বায়ার লেভারজুজেন' দলের প্রাক্তন ক্যাপ্টেন৷ তাঁর শারীরিক ফিটনেসের উপর হারজিত নির্ভর করতে পারে৷ তবে সব সময়ে চোট পাবার আশঙ্কা থেকেই যায়৷ আজকাল ফুটবল ক্লাবগুলির মেডিকাল বিভাগগুলিও টিমের সাফল্যে অবদান রাখে৷ রল্ফেস বলেন, ‘‘অনেক কাল ধরে আমি পুরো ক্ষমতা কাজে লাগাতে পারছি না বলে কয়েক সপ্তাহ ধরে এক কর্মসূচির মাধ্যমে ফিট থাকার চেষ্টা করে চলেছি৷''

বায়ার লেভারকুজেন ট্রেনিং সেন্টার বিশ্বের আধুনিকতম কেন্দ্রগুলির একটি৷ সেখানে নানা প্রচলিত গণ্ডির বাইরেও নানা ভাবে শারীরিক চাপের পরিস্থিতি ‘সিমুলেট' বা নকল করা হয়৷ সিমন রল্ফেস মাধ্যাকর্ষণ-বিরোধী ট্রেডমিলে ব্যয়াম শুরু করেন৷ তিনি কোমর পর্যন্ত যে এয়ারব্যাগ টেনে তুলছেন, তা মাত্রাতিরিক্ত ফোলানো হয়েছে৷ ওভারপ্রেশারের মাত্রা যত বেশি, মাধ্যাকর্ষণের টান তত কম৷ ফলে কোমর, হাঁটু ও গোড়ালির উপর চাপ পড়ে না৷ অনেকটা চাঁদের বুকে হাঁটার মতো অভিজ্ঞতা৷

সাড়ে তিন হাজার মিটার উচ্চতার অবস্থা নকল করতে ঘরে অক্সিজেনের পরিমাণ কমিয়ে দেওয়া যায়৷ তখন ফুটবলাররা সেই পরিবেশে অনুশীলন করতে পারেন৷ ক্রীড়াবিজ্ঞানী কারস্টেন রাডামাখার বলেন, ‘‘এখানে অনেক রকমের সুযোগ আছে৷ যে ঘরে আল্পস পর্বতের শিখরের পরিবেশে স্ট্যামিনা ট্রেনিং করা যায়, সেটা অবশ্যই একটা হাইলাইট৷''

মাধ্যাকর্ষণ শক্তির টান কম থাকলে শরীরের জয়েন্টের উপর চাপ কম পড়ে৷ পাতলা বাতাসের ফলে দৌড়ানো কঠিন হয়ে পড়ে এবং অ্যাথলিটের নিঃশ্বাস-প্রশ্বাসের হার বেড়ে যায়৷ ফুসফুসে এখন যে বাতাস ঢুকছে, তাতে অক্সিজেনের পরিমাণ কম৷ ফলে শরীরে অক্সিজেন গ্রহণের প্রক্রিয়ার উন্নতি হয় এবং রেড ব্লাড সেল উৎপাদন বেড়ে যায়৷ ফলে এনডিউরেন্স বা সহ্যশক্তি আরও উন্নতি হয়৷ সিমন রল্ফেস বলেন, ‘‘উচ্চতা আমার কার্ডিও-ভাস্কুলার সিস্টেমের উপর প্রভাব ফেলে৷ এই উচ্চতায় দৌড়ালে বাড়তি চাপ পড়ে৷ অল্টার-জি নামের এই ট্রেডমিলের সুবিধা হলো, উন্নত প্রযুক্তির দৌলতে আমি ভোরেই জগিং করতে পারি৷ তারপর সাধারণ ট্রেডমিলে চলে আসতে পারি৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক