1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ফিলিস্তিনি ছাড় সংক্রান্ত গোপন নথি নিয়ে বিতর্ক ও ক্ষোভ

উইকিলিক্সের পর গোপন দলিল ফাঁস করার পথে নেমেছে আল জাজিরা টেলিভিশন এবং ব্রিটিশ পত্রিকা গার্ডিয়ান৷ ফিলিস্তিনি ও ইসরায়েলিদের মধ্যে বেশ কিছু গোপন সমঝোতার বিষয় প্রকাশ করে জানিয়েছে, এখানেই শেষ নয়৷ আরো নথি বাজারে আসছে৷

Palestinian, negotiator, Saeb, Erekat, east, Jerusalem, Old, City, Dome, Rock, mosque, ফিলিস্তিনি, ছাড়, গোপন, নথি, বিতর্ক, ক্ষোভ

প্রতীকী ছবি: পূর্ব জেরুসালেম ও সায়েব এরেকাত

ফিলিস্তিনি ও ইসরায়েলিদের মধ্যে পারস্পরিক স্বার্থ ও অধিকার সংক্রান্ত আলোচনায় বেশ কিছু বিতর্কিত ছাড়ের কথা রয়েছে এসব গোপন দলিলে৷ গত দশ বছরের সমঝোতা আলোচনার গোপন তথ্য আল জাজিরার হাতে রয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে৷ আর এসব দলিল ক্রমান্বয়ে জনসম্মুখে প্রকাশ করা হবে৷

এসব দলিল থেকে জানা গেছে, ২০০৮ সালে মধ্যপ্রাচ্য শান্তি আলোচনার বেশ কিছু স্পর্শকাতর তথ্য৷ ঐ সমঝোতা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন তৎকালীন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী কন্ডোলিসা রাইস, ইসরায়েলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী সিপি লিভনি, ফিলিস্তিনি প্রধানমন্ত্রী আহমেদ কোরেই এবং ফিলিস্তিনি মধ্যস্থতাকারী সায়েব এরেকাত৷ সেই বৈঠকে কোরেই বলেছেন, ‘‘জাবাল আবু ঘায়েম ছাড়া জেরুসালেমের বাকি সকল অংশে ইহুদি বসতি সম্প্রসারণে প্রস্তাব করছি আমরা৷'' তবে ইসরায়েল এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে৷ আরেক প্রস্তাবে এরেকাত বলেছেন, ১৯৪৮ সালে ইসরায়েল প্রতিষ্ঠার সময় যেসব শরণার্থী পালিয়ে গিয়েছিল কিংবা বাস্তুহারা হয়েছিল তাদের মধ্যে মাত্র এক লাখ শরণার্থীকে ফেরত নিতে সম্মত তারা৷ অথচ পরবর্তী প্রজন্মসহ এসব শরণার্থীর সংখ্যা এখন প্রায় ৫০ লাখ৷

এসব স্পর্শকাতর গোপন নথি প্রকাশের প্রতিক্রিয়া

প্রথম দিনে প্রকাশিত নথিপত্রের দিকে তাকিয়েই হতচকিত বিশ্ব৷ অন্যদিকে তীব্র ক্ষোভ ফিলিস্তিনিদের মাঝে৷ কারণ এতোদিন পর্যন্ত যেসব দেনদরবারের কথা বলে আসছেন ফিলিস্তিনি নেতারা তার সাথে এই দলিলের রয়েছে বিস্তর তফাৎ৷ অবশ্য ফিলিস্তিনি প্রধান মধ্যস্থতাকারী সায়েব এরেকাত তাৎক্ষণিকভাবেই জানিয়ে দিলেন, এ সব কিছুই মিথ্যা৷ আর ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের মন্তব্য, মূল বিষয়কে বিকৃত করা হয়েছে৷ অবশ্য ২০০৭ সাল থেকে মধ্যপ্রাচ্য শান্তি প্রক্রিয়ার সাথে জড়িত জাতিসংঘের বিশেষ প্রতিনিধি রবার্ট সেরি বলছেন, ‘‘এসব দলিলের বেশ কিছু অংশের ভুল অর্থ করা হয়েছে৷''

ফিলিস্তিনিদের পক্ষ থেকে আরো বেশি ছাড় দেওয়া সংক্রান্ত এসব গোপন দলিল প্রকাশের ঘটনা মধ্যপ্রাচ্য শান্তি প্রক্রিয়াকে সাময়িকভাবে আরো জটিল করে তুলবে৷ তবে তা এই প্রক্রিয়াকে পুরোপুরি বাধাগ্রস্ত করবে না বলে মনে করছে ওয়াশিংটন৷ সোমবার মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র পি জে ক্রাউলি বলেন, ‘‘আমরা এটা অস্বীকার করছি না যে, এই নথি প্রকাশের ঘটনা অন্তত কিছু সময়ের জন্য হলেও শান্তি প্রক্রিয়াকে আগের চেয়ে আরো কঠিন করে তুলবে৷ তবে আমরা এব্যাপারে সুস্পষ্ট করে বলতে চাই যে, আমরা এটাকে বেশ কঠিন কাজ হিসেবেই বিবেচনা করি৷ তবুও সার্বিক দৃষ্টিভঙ্গিতে কোন পরিবর্তন আসবে না৷''

প্রতিবেদন: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন