1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ফিলিপাইন্সে মৃতের সংখ্যা বাড়ার আশংকা

ফিলিপাইন্সে ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় হাইয়ানের আঘাতে মৃতের সংখ্যা আরো বাড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে৷ দেশটিতে জাতীয় দুর্যোগ ঘোষণা করেছেন প্রেসিডেন্ট বেনিগনো অ্যাকুইনো৷

সুপারস্টর্ম হাইয়ানের আঘাতে লন্ডভন্ড টাকলোবানে এখনো নেই বিদ্যুৎ, নেই পানি৷ প্রবল বৃষ্টি অব্যাহত থাকায় উদ্ধার কাজ যেমন ব্যাহত হচ্ছে, তেমনি শরণার্থীদেরও ব্যাপক সমস্যা হচ্ছে৷ বেশিরভাগ শরণার্থী পুরো রাত বৃষ্টিতে ভিজে কাটিয়েছেন৷ ৮১ বছর বয়সী বৃদ্ধ অ্যারিস্টোন এপি-কে বলেছেন, তাদের সাহায্যের প্রয়োজন৷ প্রায় দুদিন না খেয়ে রয়েছেন তিনি৷

বাড়তে পারে মৃতের সংখ্যা

ঘূর্ণিঝড়ে যেসব এলাকা পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে, সেসব গ্রামে পৌঁছানোর চেষ্টা করছে উদ্ধারকর্মীরা৷ প্রত্যন্ত এলাকাগুলোতে পৌঁছালে এবং উদ্ধার তৎপরতা শুরু হলে ধ্বংসের আসল চেহারাটা বোঝা যাবে বলে মনে করছেন কর্তৃপক্ষ৷ জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী মৃতের সংখ্যা ১০ হাজার হলেও মৃতের সংখ্যা আরো বেশি বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে৷ এদিকে সরকারি হিসেব অনুযায়ী মৃতের সংখ্যা ১,৭৪৪ এবং আহতের সংখ্যা ২৪৮৭ বলে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে৷

জরুরি অবস্থা জারি

টাকলোবানে লুটপাট বন্ধ করতে এবং আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্থিতিশীল রাখতে স্থানীয় সময় রাত ১০টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত কারফিউ ঘোষণা করেছে স্থানীয় সরকার৷ লুটপাট বন্ধ করতে এর মধ্যে সাঁজোয়া যান এবং তল্লাশি চৌকি বসানো হয়েছে বলে জানিয়েছে ফিলিপাইন্স সরকার৷ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মানুয়েল রোক্সাস জানিয়েছেন, ঝড়ে অনেক কর্মকর্তা মারা গেছেন এবং অনেকেই নিখোঁজ৷ তাই ২৯৩ জন পুলিশের মধ্যে কর্মক্ষম মাত্র ২০ জন৷

মার্কিন ও ব্রিটিশ যুদ্ধ জাহাজ ফিলিপাইন্সে

ত্রাণকাজে সহায়তা করতে সোমবারই মার্কিন সেনাবাহিনীর একটা দল ফিলিপাইন্সে পৌঁছেছে৷ মঙ্গলবার মার্কিন ত্রাণবাহী বিমানবহর ফিলিপাইন্সের উদ্দেশে রওনা হয়েছে৷ ৮০টি বিমান এবং ৫ হাজার সেনা রয়েছে সেই বহরে৷ এছাড়া মার্কিন নৌবাহিনীর চারটি জাহাজ দুর্যোগপূর্ণ উপকূলের উদ্দেশে রওনা হয়েছে৷

ত্রাণ সামগ্রীসহ একটি যুদ্ধ জাহাজ ফিলিপাইন্সের উপকূলের উদ্দেশে পাঠিয়েছে ব্রিটেন৷ এতে আছে উদ্ধার কাজের সামগ্রী এবং লবণাক্ত পানি থেকে সুপেয় পানির বের করার যন্ত্র৷

জেল ভেঙে পালিয়েছে কয়েদিরা

ফিলিপাইন্সের সেনা প্রধান মঙ্গলবার জানিয়েছেন, টাকলোবানের একটি জেলখানা থেকে বেশ কিছু কয়েদি পালিয়ে গেছে৷ কারারক্ষী ফাঁকা গুলি ছুড়লে কয়েকজন ফিরে এলেও বাকিরা আর ফেরেনি বলে জানিয়েছেন তিনি৷ ঐ জেলখানায় অন্তত ৬০০ কয়েদি ছিল৷ তবে ঠিক কতজন পালিয়েছে সেই সংখ্যাটা তার জানা নেই৷

A resident walks past a wall with a graffiti calling for help after Typhoon Haiyan devastated Tacloban city, central Philippines November 12, 2013. Rescue workers tried to reach towns and villages in the central Philippines on Tuesday that were cut off by the powerful typhoon, fearing the estimated death toll of 10,000 could jump sharply, as relief efforts intensified with the help of U.S. military. REUTERS/Romeo Ranoco (PHILIPPINES - Tags: DISASTER ENVIRONMENT)

সাহায্যের প্রতীক্ষায় রয়েছেন ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তরা

ত্রাণের ঘোষণা

জার্মানি মঙ্গলবার জানিয়েছে, ফিলিপাইন্সে সাহায্যের পরিমাণ বাড়িয়ে ১০ লাখ ইউরো করা হবে৷ এর আগে ৫ লাখ ইউরো অর্থ সাহায্যের ঘোষণা দিয়েছিল জার্মানি৷ জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী গিডো ভেস্টারভেলে জানিয়েছেন, অতিরিক্ত অর্থ গৃহহীন ও আহতদের চিকিৎসায় ব্যয় হবে৷

জাতিসংঘ ত্রাণ কার্যক্রমের প্রধান ভ্যালেরি আমোস সোমবার ফিলিপাইন্সের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করে জাতিসংঘ কেন্দ্রীয় জরুরি তহবিল থেকে ২৫ মিলিয়ন ডলার আর্থিক সাহায্য দিয়েছেন৷

এপিবি/এসবি (এপি, এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন