1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি ইউরোপ

ফিরে আসছে ইউরো সংকট?

গ্রিসের জন্য আরো এক পর্যায় আর্থিক ত্রাণ নিয়ে বিতর্ক চলেছে৷ ইউরো এলাকার অর্থমন্ত্রীরা তাদের সাম্প্রতিক বৈঠকে আরেক পর্যায় সমস্যার কথা বলেছেন৷ তাহলে কি ইউরো সংকট আবার ফেরত আসতে চলেছে?

মনে হচ্ছিল, ধীরে ধীরে ইউরোপে শান্তি ফিরে আসতে চলেছে৷ ইউরো এলাকার অর্থনীতি আবার হালে পানি পাচ্ছে৷ গ্রিস তার হোমওয়ার্ক, মানে যা করণীয় তা করছে৷ কিন্তু জার্মানির কম্যারৎসব্যাংক-এর মুখ্য অর্থনীতিবিদ ইয়র্গ ক্রেমার অত সহজে ভবি ভুলতে রাজি নন:

‘‘স্পেন, পর্তুগাল, আয়ারল্যান্ডের ক্ষেত্রে আমরা কিছু কিছু প্রগতি দেখছি৷ এই সব দেশ সংস্কারের মাধ্যমে তাদের প্রতিযোগিতার ক্ষমতা ফিরে পেয়েছে, যেটা ইতিবাচক৷ কিন্তু আমি পূর্বাপর বলছি, যে আমরা সংস্কারের ক্ষেত্রে সর্বত্র ব্রেকথ্রু দেখছি না – বিশেষ করে বৃহত্তম সংকটপীড়িত দেশ ইটালির ক্ষেত্রে নয়৷''

রাষ্ট্রের ঋণ সংকট সত্ত্বেও ইটালিতে ইউনিট লেবার কস্ট বা মজুরি বেড়েই চলেছে – ইউরো এলাকার গড়ের চেয়ে বেশি হারেই৷ যার অর্থ, বাজারে ইটালির প্রতিযোগিতার ক্ষমতাও ক্রমাগত কমছে৷ আর শুধু ইটালিই তো নয়, লিথুয়ানিয়ার ভিলনিয়ুসে ইইউ অর্থমন্ত্রীদের শেষ বৈঠকে ইউরোপের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ ফ্রান্সকেও কথা শুনতে হয়েছে৷ ওদিকে স্লোভেনিয়ার ব্যাংকগুলোর ব্যালান্সে নাকি কয়েক বিলিয়ন ইউরোর ফাঁক দেখা দিয়েছে৷ এই হেমন্তেই আয়ারল্যান্ড, স্পেন এবং পর্তুগালের জন্য ত্রাণ কর্মসূচি সমাপ্ত হতে চলেছে৷ আর গ্রিসের যে আরো বেশি অর্থের প্রয়োজন পড়বে, সেটা জার্মানিতে সংসদীয় নির্বাচনের আগেই স্পষ্ট হয়ে গেছে৷ জার্মানির বায়ার্ন এলবি ব্যাংকের ইউরো বিশেষজ্ঞ ইয়োহানেস মায়ার মনে করেন, গ্রিসের আগামী দু'বছরে ১ বিলিয়ন ইউরো লাগবে, তারপর আরো দশ বিলিয়ন, যাতে গ্রিস খোলাবাজারে ঋণ পেতে পারে৷

ইউরোপীয় কেন্দ্রীয় ব্যাংক সংকটপীড়িত দেশগুলোর কাছ থেকে সরকারি বন্ড কেনার আশা দেখিয়ে ঋণ সংকটের ওপর অন্তত খানিকটা চুনকাম করেছেন – এবং এমনভাবে চুনকাম করেছেন যে, শিল্পসংস্থাগুলি সাহস ফিরে পেয়েছে৷ সে হিসেবে বলা চলে, ইউরো এলাকায় মন্দা শেষ হয়েছে৷ কিন্তু সংকটের মূল অক্ষতই রয়ে গেছে: প্রতিযোগিতার ক্ষমতার অভাব, মাত্রাধিক বাজেট ডেফিসিট এবং ব্যাংকগুলির উপর নিয়ন্ত্রণের অভাব৷

বিগত ঋণ ও আর্থিক সংকটগুলিতে ইসিবি দু'হাতে টাকা বিলিয়ে সামাল দিয়েছে৷ কিন্তু এই হেমন্তে যদি আবার সংকট দেখা দেয়, তবে সে আগুন নেভানোর মতো যন্ত্রপাতি, সাজসরঞ্জাম ইসিবি-র থাকবে কি?

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়