1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

ফরাসি নাইট উপাধি পেলেন বাংলাদেশের পার্থপ্রতিম মজুমদার

সাংস্কৃতিক পরিমণ্ডলে অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে ফরাসি সরকারের সর্বোচ্চ পদক লাভ করলেন বাংলাদেশের একুশে পদকপ্রাপ্ত মূকাভিনয়শিল্পী পার্থপ্রতিম মজুমদার৷

default

মাইমের জাদুকর নামে খ্যাত মার্সাল মার্সো

শিল্প ও সাহিত্যে বিশেষ অবদানের জন্য ১৯৬৩ সাল থেকে শেভালিয়ে (নাইট) উপাধি দিয়ে আসছে ফরাসি সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়৷ পার্থই হচ্ছেন প্রথম বাংলাদেশি, যিনি এ সম্মান পেলেন৷ অবশ্য এর আগে বলিউডের বিগ বি খ্যাত অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন এবং বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান এ পদক পেয়েছেন৷

প্রায় ত্রিশ বছর যাবত প্যারিসে বসবাস করছেন একুশে পদকপ্রাপ্ত এই মূকাভিনয়শিল্পী পার্থপ্রতিম মজুমদার৷ ফ্রান্সের সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী ফ্রেডেরিক মিতেরঁ আনুষ্ঠানিকভাবে পার্থকে শেভালিয়ে খেতাব প্রাপ্তির কথা জানান৷

মাইমের জাদুকর নামে খ্যাত এই শিল্পীর কাছে প্রশ্ন করা হয়েছিল মূকাভিনয় কী বদলাতে পারে সমাজ? এই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘মার্সাল মার্সো, তিনি যখন বেঁচে ছিলেন, তখন তাঁর কাছ থেকে আমি অনেক শিখেছি, আমার শিক্ষাগুরু, তিনি বলতেন, মাইম একটি শিল্পীকে দাঁড়াতে শেখায়৷ আমি মনে করি মানুষ যদি সুন্দরভাবে দাঁড়াতে পারে, তাহলে তার একটি নিজস্বতা জন্ম নেবে, সে তখন যেমন অভিনয় ও করতে পারে, সেই সঙ্গে তখন সে অনেক কিছুই করতে পারে৷'

তবে কোন পুরস্কার প্রাপ্তি দায়িত্ব আরও বাড়িয়ে দেয়- এমনটা মনে করেন না এই শিল্পী৷ তিনি বললেন, ‘এই পুরস্কার পাওয়ার আগে থেকেই আমি বাংলাদেশ যতোবার গিয়েছি, এমন কী ২০১০ সালে একুশে পদক প্রাপ্তি কিংবা ইউরোপের সর্বোচ্চ সন্মান নাটকের ‘মলিয়ে ২০০৯' পাবার পরও একই কথা বলেছি যে আমার স্বপ্ন এখন বাংলাদেশে একটি আন্তর্জাতিক মানের মাইম ইন্সটিটিউট তৈরি করা৷ আমি সেটাই করতে চাই৷'

১৯৫৪ সালে পাবনার কালাচাঁদপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন পার্থপ্রতিম মজুমদার৷ এ কথা আর বলার অপেক্ষা নেই যে, তাঁর হাত ধরেই বাংলাদেশে পরিচিত হয়ে ওঠে মূকাভিনয়৷ পাশাপাশি ফ্রান্স, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ক্যানাডার বিভিন্ন চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন পার্থপ্রতিম মজুমদার৷ পেয়েছেন অনেক আন্তর্জাতিক পুরস্কার৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক