1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

প্লাস্টিক বা টিনজাত খাবার থেকে সাবধান

নতুন এক গবেষণায় দেখা গেছে প্লাস্টিক বা টিনে যেসব খাবার থাকে, সেগুলোতে রাসায়নিক পদার্থ বিপিএ-র মাত্রা খুব বেশি৷ এর কারণে গর্ভপাত যেমন হতে পারে, তেমনি নারীরা বন্ধ্যাত্বের শিকারও হতে পারেন৷

ক্যালিফোর্নিয়ার বায়োকেমিস্ট এবং অ্যামেরিকান সোসাইটি ফর রিপ্রোডাকটিভ মেডিসিন এএসআরএম-এর প্রেসিডেন্ট ড. লিন্ডা গিউডিস জানান, টিনজাত খাদ্যে রাসায়নিক পদার্থ বা বিপিএ থাকার কারণে স্বাস্থ্যের যে সব সমস্যা হতে পারে, সেগুলি প্রমাণ করার জন্য যথেষ্ট কাজ এখনো হয়নি৷ তবে যেটুকু কাজ হয়েছে, তাতে বলা যায় যে, বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বিপিএ গর্ভধারণ এবং স্বাস্থ্যের ক্ষতি করে থাকে৷ গত মাসে এএসআরএম প্রাকৃতিক রাসায়নিক পদার্থ এবং গর্ভবতী নারীদের উপর এর প্রভাব নিয়ে কাজ করেন৷

Bildnummer: 59728111 Datum: 29.05.2013 Copyright: imago/CTK Photo Twenty-three years old mother Alexandra Kinova, who expects quintuplets on June, 2., poses in the maternal hospital in Prague Podoli, Czech Republic, on Wednesday, May 29, 2013. (CTKxPhoto/StanislavxZbynek) CTKPhotoP201305290607101 PUBLICATIONxINxGERxSUIxAUTxONLY Gesellschaft Schwangerschaft Fünflinge fünf schwanger Mutter Bauch kurios premiumd x0x xmb 2013 quer 59728111 Date 29 05 2013 Copyright Imago CTK Photo Twenty Three Years Old Mother Alexandra Who expects Quintuplets ON June 2 Poses in The Maternal Hospital in Prague Podoli Czech Republic ON Wednesday May 29 2013 CTKxPhoto StanislavxZbynek PUBLICATIONxINxGERxSUIxAUTxONLY Society Pregnancy Fünflinge five pregnant Mother Abdomen funny premiumd

ড. লিন্ডা গিউডিস জানান, টিনজাত খাদ্যে রাসায়নিক পদার্থ বা বিপিএ থাকার কারণে গর্ভধারণ এবং স্বাস্থ্যের ক্ষতি করে থাকে

বিসফেনল-এ এর সংক্ষিপ্ত রূপ বিপিএ৷ এটি এমন একটি প্রাকৃতিক রাসায়নিক পদার্থ যা হরমোনকে প্রভাবিত করে৷ পরীক্ষায় দেখা গেছে, প্রত্যেকের প্রস্রাবেই এই বিপিএ রয়েছে৷ গত কয়েক বছরে শিশুদের দুধের বোতল এবং পানীয়ের বোতল থেকে বিপিএ সরিয়ে ফেলা হয়েছে৷ তবে কেন্দ্রীয় খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন বলছে যে, অন্যান্য টিনজাত খাদ্যে এখনও এটি রয়ে গেছে৷

অধিকাংশ ক্ষেত্রে গর্ভপাত হয় ডিম্বানু এবং ক্রমোজোমের কারণে৷ স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের রিপ্রোডাক্টিভ এন্ডোক্রিনোলজিস্ট ড. রুথ লাথি জানিয়েছেন, ইদুঁরের উপর করা এক পরীক্ষায় দেখা গেছে যে বিপিএ-র প্রভাবে গর্ভপাতের সম্ভাবনা বেড়ে যায়৷

লাথি এবং আরো কয়েকজন গবেষক ১১৫ জন গর্ভবতী নারীর উপর পরীক্ষা চালিয়েছেন, যাঁরা অল্প কয়েকদিনের গর্ভবতী৷ এসব নারীদের জীবনে দীর্ঘদিন বন্ধ্যাত্ব ও গর্ভপাতের ঘটনা ছিল৷ পরে এঁদের মধ্যে ৬৮ জনের গর্ভপাত হয়ে যায় এবং ৪৭ জন সুস্থ শিশুর জন্ম দেন৷

কিন্তু গবেষণাটি স্বল্প সংখ্যক মানুষের উপর করায় গবেষকরা এখনই এর সত্যতা সম্পর্কে শতভাগ নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না৷

লাথি জানান, এমনও হতে পারে, যে নারীটির রক্তে বিপিএর মাত্রা বেশি ছিল, তাঁর অন্য কোনো ধরনের সমস্যা থেকে থাকতে পারে, যার কারণে গর্ভপাত হয়েছে৷ এই গবেষণাটির উদ্দেশ্য হলো নারীদের জানানো, যাতে তাঁরা বিপিএ সম্পর্কে সচেতন হন৷

বিপিএ-র মাত্রা কমাতে কয়েকটি পদক্ষেপ নেয়া যেতে পারে৷ প্লাস্টিকের বাসনে খাবার গরম না করা৷ কেননা তাপের কারণে প্লাস্টিক থেকে বিপিএ নিঃসৃত হয়৷ পানির বোতল সূর্যের আলোতে না রাখা, টিনের খাবার কম খাওয়া৷ এমনকি দোকান থেকে যে রশিদ দেয়া হয়, তা গ্রহণ না করা, কেননা রশিদগুলি এমন একটি জিনিস দিয়ে তৈরি, যাতে বিপিএ থাকে৷ লাথি এও জানান যে, বিপিএ থেকে পুরোপুরি দূরে থাকা আজকের বিশ্বে আর সম্ভব নয়৷

এপিবি/ডিজি (এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন