1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

প্রাণ বাঁচাতে সমতলের দিকে ছুটছে মানুষ

নেপালে ৭.৯ মাত্রার ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা তিন হাজার পেরিয়েছে৷ এদিকে, শনিবারের ভূমিকম্পের পর বেশ কয়েকটি শক্তিশালী কম্পন অনুভূত হওয়ায় প্রাণ বাঁচাতে কাঠমান্ডু ছেড়ে সমতলের দিকে ছুটছে মানুষ৷

বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, প্রায় দশ লক্ষ অধিবাসীর শহর কাঠমান্ডু ছেড়ে যাচ্ছে হাজার হাজার মানুষ৷ এদের অনেককে বাচ্চা কোলে নিয়ে শহর ছাড়ার বাসে উঠতে দেখা গেছে৷ ট্রাক ও বেসরকারি গাড়িতে করেও মানুষ কাঠমান্ডু ছাড়ছে৷

শনিবারের ভূমিকম্পের পর রবিবার আরও দুটি শক্তিশালী কম্পন অনুভূত হওয়ায় নেপালের মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে৷ তাই তাঁরা শহর ছেড়ে সমতলের দিকে ছুটছেন৷ ভূমিকম্পে এখন পর্যন্ত সাড়ে তিন হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে বলে নেপালের সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম৷ এই সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে৷ ইউনিসেফ জানিয়েছে, ভূমিকম্পে প্রায় ১০ লক্ষ শিশু ‘মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত' হয়েছে৷

এদিকে, সায়েন্স জার্নাল নেচার-এ প্রকাশিত এক প্রবন্ধে আগামী এক মাসের মধ্যে নেপালে আরও ৩০টি শক্তিশালী কম্পন (তীব্রতা ৫ মাত্রার বেশি) অনুভূত হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে৷

পানি ও খাবারের অভাব

উদ্ধার তৎপরতার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট নেপালের কর্মকর্তারা বলছেন এই মুহূর্তে সেখানে বিশুদ্ধ পানি ও খাবারের সংকট দেখা দিয়েছে৷ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা লক্ষ্মীপ্রসাদ ধাকাল বলছেন, ‘‘কোথাও বিদ্যুৎ নেই, পানি নেই৷ আমাদের এখনকার বড় চ্যালেঞ্জ হলো বিদ্যুৎ ও পানি সরবরাহ ফিরিয়ে আনা৷''

আন্তর্জাতিক সহায়তা নিয়ে বেশ কয়েকটি বিমান রবিবার কাঠমান্ডু বিমানবন্দরে নামতে চেয়েও কম্পনের কারণে পারেনি বলে জানা গেছে৷

উদ্ধারকাজ

ভূমিকম্পের পর থেকেই উদ্ধার তৎপরতা শুরু হয়েছে৷ কিন্তু কিছুক্ষণ পরপর ঘটে যাওয়া ছোট-বড় কম্পনের কারণে উদ্ধারকাজ ব্যাহত হচ্ছে৷ পাহাড় ধসে রাস্তাঘাট বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অনেক এলাকায় পৌঁছাতে পারছেন না উদ্ধারকারীরা৷

উদ্ধারকাজে সহায়তা করতে ভারত ও চীন থেকে একটি করে প্রতিনিধিদল ইতিমধ্যে নেপাল পৌঁছেছে৷ বাংলাদেশ থেকেও নেপালে উদ্ধারকারী দল পাঠানো হবে বলে জানিয়েছে সরকার৷ এদিকে, ভূমিকম্পের পর উদ্ধার তৎপরতায় বিশেষজ্ঞ জার্মানির সংস্থা আইএসএআর এর ৫২ সদস্যের একটি দল নেপালের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছে৷ জার্মান রেড ক্রস জানিয়েছে ত্রাণ নিয়ে একটি বিমান সোমবার বিকেলে নেপাল যাত্রা শুরু করবে৷

এছাড়া পাকিস্তান, যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, ব্রিটেন ও নিউজিল্যান্ডও উদ্ধারকারী দল পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছে৷

পানি বিশুদ্ধকরণ, চিকিৎসা, জরুরি আশ্রয় ও টেলিযোগাযোগ সংযোগ পুনরুদ্ধার খাতে সহায়তা হিসেবে ইউরোপীয় কমিশন ইতিমধ্যে তিন মিলিয়ন ইউরো সহায়তা দিয়েছে৷ এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকও (এডিবি) তাঁবু স্থাপন, জরুরি চিকিৎসা সহায়তা, খাদ্য ও বিশুদ্ধ পানি খাতে খরচ করতে তিন মিলিয়ন ডলার ছাড় করেছে৷ এছাড়া পুনর্বাসন কাজে সহায়তা হিসেবে প্রথন পর্যায়ে ২০০ মিলিয়ন পর্যন্ত সহায়তা দেয়ার অঙ্গীকার করেছে এডিবি৷

চিকিৎসা তৎপরতা

আহতের সংখ্যা অনেক বেশি হওয়ায় হাসপাতালগুলোতে সবাইকে স্থান দেয়া যাচ্ছে না৷ তাই আহতদের অনেককে খোলা আকাশের নীচে অবস্থান করতে হচ্ছে৷ কাঠমান্ডু মেডিকেল কলেজের বাইরে স্থাপিত একটি তাঁবুতে অপারেশন থিয়েটার স্থাপন করা হয়েছে৷

আহতদের চিকিৎসা সেবা দিতে বিভিন্ন দেশ নেপালে চিকিৎসকদের দলও পাঠাচ্ছে৷ বাংলাদেশ থেকে ছয়টি চিকিৎসা দল রবিবার রাজধানী কাঠমান্ডুতে পৌঁছেছে বলে জানা গেছে৷ এছাড়া প্রয়োজনীয় ত্রাণসামগ্রীও পাঠিয়েছে বাংলাদেশ৷

এভারেস্ট বেসক্যাম্পে মৃত্যু

ভূমিকম্পের কারণে তুষারধস হয়ে এভারেস্টের বেসক্যাম্পে থাকা ১৭ জন নিহত হয়েছেন৷ সোমবার আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় বেসক্যাম্পে থাকা বাকিদের হেলিকপ্টারে করে নীচে নামিয়ে আনা হচ্ছে৷

১৯৩৪ সালের পর

ইতিহাস বলছে নেপালে সবশেষ ১৯৩৪ সালে ভয়াবহ ভূমিকম্প হয়েছিল৷ সেই সময় প্রায় সাড়ে আট হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছিল৷

জেডএইচ/ডিজি (রয়টার্স, এএফপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন