1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘প্রমাণ হলো, রাষ্ট্র চাইলে দ্রুত বিচার সম্ভব'

‘রাষ্ট্র চাইলে যে বিচার দ্রুত করা সম্ভব, সেটা আবারও প্রমাণ হলো৷' সিলেট ও খুলনায় দুই শিশু হত্যার রায়ের পর ডয়চে ভেলের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে আইন ও সালিশ কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল এ মন্তব্য করেন৷

অডিও শুনুন 03:02

শিশু হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি চাই: সুলতানা কামাল

১০ কার্যদিবসে একটি এবং ১৭ কার্যদিবসে অপর মামলাটির রায় ঘোষণা হয়েছে৷ দুই মামলায় পৃথকভাবে ছ'জনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছে আদালত৷ পাশাপাশি অভিযুক্ত এমপির গলায় ফুলের মালা দেয়ার সংস্কৃতিরও তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন এই মানবাধিকার কর্মী৷ সুলতানা কামাল বলেন, ‘‘গাইবান্ধায় একজন এমপি সবার সামনে একটি শিশুকে গুলি করলো৷ তাঁকে আদালত জামিন দিয়েছে৷ কিন্তু ফুলের মালা দিয়ে তাঁকে নিয়ে আসতে হবে, এ সংস্কৃতি বদলাতে হবে৷ আমরা এই খারাপ সংস্কৃতিতে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছি৷''

এদিকে সোমবার ময়মনসিংহে অপর একটি শিশু হত্যার রায়ে ছ'জনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছে আদালত৷ ২০১০ সালের ৪ঠা মে মুক্তাগাছার উপজেলার খেরুয়াজানি গ্রামে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে প্রথমে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে ফরহাদ নামে একটি শিশুকে আহত করা হয়৷ এরপর তাকে হত্যা করে হাত-পা কেটে পুকুরে ফেলে দেয় খুনিরা৷ ফরহাদের বাবা আইয়ুব আলীর সঙ্গে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরেই এ ঘটনা ঘটায় আসামিরা৷

Screenshot YouTube Child beaten to death EINSCHRÄNKUNG

সামিউল আলম রাজন হত্যায় চারজনের ফাঁসির আদেশ দেয়া হয়েছে

এর আগে রবিবার সিলেট ও খুলনায় আলোচিত দু'টি শিশু হত্যার রায় ঘোষণা করে আদালত৷ সবজি বিক্রেতা শিশু শেখ সামিউল আলম রাজন (১৪) হত্যায় চারজনের ফাঁসির আদেশ দেয়া হয়৷ এদের মধ্যে একজন কামরুল ইসলাম, যাকে সৌদি আরব থেকে নিয়ে আসা হয়েছিল৷ অভিযুক্তরা শিশু রাজনকে একটি খুঁটির সঙ্গে বেধে পিটিয়ে নির্মমভাবে আহত করে৷ পরে তার মৃত্যু হয়৷ ১৭ কার্যদিবসে এই রায় দেন বিচারক৷

অন্যদিকে খুলনায় গ্যারেজ-কর্মী শিশু রাকিব (১২) হত্যার ঘটনায় দুই জনের ফাঁসির আদেশ দেয় আদালত৷ গত ৮ই জুলাই চুরির অপবাদ দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয় শিশু রাজনকে৷ ঘটনার দৃশ্য ধারণ করে নির্যাতনকারীরা ভিডিও চিত্রটি ফেসবুকে প্রকাশ করে৷ বিষয়টি দেশব্যাপী ব্যাপক আলোচিত হয়৷ এই রায়টি হয়েছে ১০ কার্যদিবসে৷

Mushfiqur Rahim Aufruf Facebook (Screenshot)

শিশু নির্যাতন বন্ধ হবে কবে?

রাষ্ট্রে প্রধান আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমও স্বীকার করেন, বিচারক, আইনজীবী, পুলিশ এবং সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা চাইলে মামলার যে দ্রুত নিষ্পত্তি করা যায়, এটি তার একটি উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত৷ দুই শিশু রাজন ও রাকিব হত্যা মামলা দ্রুততম সময়ের মধ্যে নিষ্পত্তি হওয়ায় এই রায় বিচার বিভাগের ইতিহাসে মাইলফলক হয়ে থাকবে৷ রাজন ও রাকিব হত্যা মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে দায়রা জজ আদালতে৷ অথচ কোনো খুনের মামলার বিচার এই দায়রা আদালতে নিষ্পত্তি হতে সাধারণত তিন বছর থেকে এক যুগ পর্যন্ত সময় লেগে যায়৷

অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল বলেন, ‘‘দুই শিশু হত্যাকারীর সর্বোচ্চ শাস্তি আমরা চাই৷ কিন্তু মানবাধিকার কর্মী হিসেবে সেই শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের বিরোধিতা করি আমরা৷ রাষ্ট্র যদি সব হত্যার ব্যাপারে আন্তরিক হতো, তাহলে দেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি অনেক ভালো থাকত৷ অপরাধীরাও সতর্ক হয়ে যেত৷ পাশাপাশি একজন এমপি যখন অপরাধ করে তখন রাষ্ট্রের দায়িত্ব সেই বিচারটিও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করা৷ সংসদ চলাকালে তিনি জামিন পেতেই পারেন৷ কিন্তু সংসদ শেষ হলে যেন তাঁকে বিচারের মুখোমুখি করা হয়৷ একই সঙ্গে শিশুটির পরিবার যেন সব ধরনের আইনি সুবিধা পায়, সেটা দেখার দায়িত্ব রাষ্ট্রের৷ তারা যেন নিরাপত্তাহীনতায় না ভোগে৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়