প্রবীণদের কথা | আলাপ | DW | 17.10.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

প্রবীণদের কথা

দেশের অনেক প্রবীণ যেমন অবসরকালীন ভাতা এবং অনেক দরিদ্র প্রবীণ বয়স্কভাতা পেলেও প্রবীণদের জন্য এখনো অনেক কিছু করার আছে৷ এখনো তো কয়েক লাখ প্রবীণকে জীবন ধারণ করতে হয় ভিক্ষা করে!

বাংলাদেশে প্রবীণের সংখ্যা তরুণদের ছাড়িয়ে যাবে৷ ২০৫০ সালে প্রবীণের সংখ্যা হবে সাড়ে ৪ কোটি৷ আর তখন তাঁরাই হবেন মোট জনগোষ্ঠীর গরিষ্ঠ অংশ৷ অথচ দেশে প্রবীণরাই সবচেয়ে অবহেলিত৷ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পপুলেশন সায়েন্স বিভাগ এবং হেল্পএজ ইন্টারন্যাশনাল যৌথভাবে ‘অ্যাবিউজ এগেইনস্ট ওল্ডার পিপল উইদিন দ্য ফ্যামিলি অ্যামাং আরবান পুওর ইন ঢাকা সিটি' শিরোনামে একটি গবেষণা করে ২০১২ সালে৷ ওই গবেষণায় বলা হয়, দেশের ৫৪ দশমিক ৫ ভাগ বয়স্ক মানুষ পরিবারের সদস্যদের হাতে শারীরিক নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন৷ নিজ সন্তান, পুত্রবধূ, জামাতা, নাতি-নাতনি এমনকি জীবনসঙ্গীর কাছেও তাঁদের প্রতিনিয়ত বঞ্চনার শিকার হতে হচ্ছে৷ গবেষণায় আরো বলা হয়,‘‘দেশের ৮৮ দশমিক ৪ ভাগ বয়স্ক ব্যক্তি মানসিক নির্যাতন, ৮৩ দশমিক ৩ ভাগ অবহেলা, ৫৪ দশমিক ৫ ভাগ শারীরিক নির্যাতন এবং ৫৪ দশমিক ৪ ভাগ অর্থনৈতিক বঞ্চনার শিকার হচ্ছেন৷ বয়স্ক নারী-পুরুষ উভয়ই পারিবারিক নির্যাতনের শিকার হলেও পুরুষের তুলনায় নারীরা বেশি অপদস্ত হচ্ছেন৷'' ওই গবেষণা মতে, ‘‘২০১২ সালে বাংলাদেশে ৬০ বছরের বেশি বয়স্ক লোকের সংখ্যা ছিল প্রায় ১ কোটি, যা মোট জনসংখ্যার ৬ দশমিক ৫ ভাগ৷''