1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ব্লগ

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারীকে ধন্যবাদ, তবে...

এবার পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণ করা হয়েছে৷ শিশুটির নাম পূজা৷ দিনাজপুরের পার্বতীপুরের এই শিশুকে ধর্ষণ করা হয়েছে এই অভিযোগে মামলা করেছেন তার বাবা৷

উন্নত চিকিৎসার জন্য পূজাকে আজ মঙ্গলবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য  ভর্তি করা হয়েছে৷ এর আগে রংপুরে মেডিকেলে তার চিকিৎসা হচ্ছিল৷

ইতিমধ্যে মামলার আসামিদের একজন ৪২ বছর বয়সি সাইফুলকে (মূল অপরাধী) গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷ অপর আসামি ৪৮ বছরের কবিরাজ (সাহায্যকারী) এখনও মুক্ত৷

গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবর বলছে, গত বুধবার (১৯ অক্টোবর) পূজাকে একটি হলুদের ক্ষেত থেকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করা হয়৷ তার আগের দিন (১৮ অক্টোবর) থেকে সে নিখোঁজ ছিল৷ পূজার বাবা সুবল দাস মামলা করেন ২০ অক্টোবর৷

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী মাহবুবুল হক শাকিল পূজাকে নিয়ে ফেসবুকে কয়েকটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘পূজা মা, আমি তোর কাছেই আসবো যদি কোনো কন্যার পিতা হয়ে থাকি...৷'' এরপর আজ ঢাকা মেডিকেলে গিয়ে তাকে দেখেও এসেছেন তিনি৷ ঢাকা মেডিকেল কর্তৃপক্ষ পূজার চিকিৎসার সব দায়িত্ব নিয়েছে বলে জানান শাকিল৷ ‘‘...আশাবাদী, সুবল দাস সুস্থ মেয়েকে নিয়ে কয়েকদিন পর বাড়ি ফিরতে পারবে৷ বাকিটা সৃষ্টিকর্তার ইচ্ছা,'' ফেসবুকে লিখেছেন তিনি৷

কিন্তু জনাব শাকিল, বাকিটা সৃষ্টিকর্তার ইচ্ছা বলে ছেড়ে দিলে তো চলবে না৷ ধর্ষকের যেন উপযুক্ত শাস্তি হয়, তার ব্যবস্থা করতে হবে৷ পূজার মতো আর কাউকে যেন এমন নৃশংসতার শিকার হতে না হয় সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে৷ প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারি হিসেবে আপনার ক্ষমতা আছে আপনি এমন ব্যবস্থা চালু করুন যা দেশের সব শিশু ও নারীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে৷ আপনার ফেসবুক স্ট্যাটাস থেকে মনে হচ্ছে, আপনি নিজে কন্যা সন্তানের পিতা হওয়ায় পূজার বিষয়টি আপনার মনে হয়ত বেশি দাগ কেটেছে৷ আমরা চাই, আপনার এই মনের পরিস্থিতি শুধু পূজার মধ্যে সীমাবদ্ধ না থেকে আরও বড় পরিসরে ছড়িয়ে পড়ুক৷ আমরা চাই আপনি যথাযথ কর্তৃপক্ষের (প্রধানমন্ত্রী, আইনমন্ত্রী সহ অন্যান্যরা) সঙ্গে আজই আলোচনা করে আপনার মেয়ে তথা বাংলাদেশের সব শিশু ও নারীর নিরাপদ জীবন নিশ্চিতের উদ্যোগ নিন৷

 

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়