1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

প্রথম রাষ্ট্রপতি বিতর্ক: বড় পরিকল্পনা আড়ালের কৌশল!

তারেক জিয়ার পর বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া দাবি করেছেন দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি ছিলেন৷ এ নিয়ে ব্লগ আর ফেসবুক এখন সরগরম৷

বৃহস্পতিবার জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের এক অনুষ্ঠানে খালেদা বলেন, ‘‘তারা যতই বলুক, কিন্তু প্রকৃত ইতিহাস হচ্ছে, স্বাধীনতার ঘোষক ও প্রথম রাষ্ট্রপতি শহীদ জিয়াউর রহমান৷'' এর আগে মঙ্গলবার লন্ডনে তারেক জিয়া তাঁর বাবাকে দেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি বলে মন্তব্য করেন৷ তিনি বলেন, ‘‘স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি ছিলেন আমাদের নেতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান৷''

তারেক রহমান ভেবেচিন্তেই এই মন্তব্য করেছেন বলে মনে করেন শওগাত আলী সাগর৷ ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, ‘‘অবশ্যই এটি সুদূরপ্রসারী একটার পরিকল্পনার অংশ৷ আর তারেক রহমান জানতেন, তার এই নতুন ‘তত্ত্ব' তাকে বা তার দলকে প্রচার করতে হবে না৷ তার মুখ থেকে কথাটা বের হবার পর আওয়ামী লীগই সেটি প্রচারের দায়িত্ব নেবে৷''

কৌশিক আহমেদ এটাকে ‘উত্ত্যক্ত করার রাজনীতি' বলছেন৷ ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, ‘‘তারেক জিয়া ও খালেদা জিয়া নতুন স্ট্র্যাটেজি নিয়েছে৷ এটা হচ্ছে উত্ত্যক্ত করার রাজনীতি৷ যুদ্ধকৌশলের এটা একটা অবধারিত অংশ৷ নিশ্চয়ই তাদের বৈদেশিক স্ট্র্যাটেজিক অ্যাডভাইজার এই পদ্ধতি অবলম্বন করার পরামর্শ দিয়েছে৷ সরাসরি বা মুখোমুখি সংঘর্ষের সুযোগ না থাকায় অ্যাটাকের এই কৌশলটা বেশ গুরুত্বপূর্ণ৷ এতে শক্তি ও ক্ষমতা দেখাতে হয় না, লোকবল দরকার নাই, কিন্তু বিপক্ষ দলকে অনেক বেশি ব্যস্ত রাখা সম্ভব, মনোযোগ সরানো সম্ভব৷ সাধারণত বড় কোনো পরিকল্পনাকে আড়াল করার জন্য বিপক্ষ দলের ডিফেন্সকে শিথিল ও নৈরাজ্য সৃষ্টিতে বিশাল ভূমিকা রাখতে পারে৷ আওয়ামী লীগের জন্য চ্যালেঞ্জ হচ্ছে এটাকে স্নায়ুযুদ্ধ হিসাবে নেবে কি নেবে না সেই সিদ্ধান্ত নেয়া৷''

এদিকে আমারব্লগে শরীফ শুভ্র লিখেছেন, ‘‘খালেদা জিয়ার গতকালের বক্তব্য থেকে পরিষ্কার হওয়া যায় যে, একটা দলের নেতৃত্ব স্থানীয়রা কীভাবে একটা দেশের ইতিহাস বিকৃতি করতে পারে, আর সেই দলটি ক্ষমতায় থাকলে দেশের ইতিহাস কোথায় গিয়ে ঠেকবে?''

Tarique Rahman BNP Bangladesh

‘‘বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি ছিলেন শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান৷'' বলেন তারেক রহমান

সামহয়্যার ইন ব্লগে মাঈনুদ্দিনের পোস্টের শিরোনাম ‘‘বাংলাদেশের প্রথম কাল্পনিক প্রেসিডেন্ট৷'' সেখানে তিনি খালেদা জিয়া তাঁর স্বামীকে প্রথম রাষ্ট্রপতি বলায় মন্তব্য করেছেন এভাবে, ‘‘হাসলে নাকি মন ভালো থাকে, তাই মাঝে মাঝে হাসির উপাদান দেওয়ার জন্য বিএনপিকে ধন্যবাদ৷'' তিনি বলেন, ‘‘৫২ থেকে ৭১ পর্যন্ত বাঙালি জাতিকে যারা ঐক্যবদ্ধ করেছে, যারা বাংলাদেশের মুক্তির জন্য লড়াই করে গেছে, যারা বারবার জেল-জুলুম সহ্য করে স্বাধীন বাংলার স্বপ্ন বুনেছে মানুষের মনে, তাদের তালিকায় ৭১ এর ২৬ মার্চের রেডিওতে বঙ্গবন্ধুর ঘোষণা পাঠ করা জিয়া নেই, এটাই ইতিহাস৷ বাংলার মানুষ বঙ্গবন্ধু থেকে তাদের করণীয় কী তার সংকেত পেয়ে গেছে ৭ই মার্চের ভাষণের মাধ্যমেই৷''

আদনান সাদেক ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন এভাবে –

‘‘টপিক: তারেক বলেছে জিয়া বাংলাদেশের প্রথম প্রেসিডেন্ট৷

হট টপিক: খালেদা জিয়ারও দাবি, জিয়াই প্রথম রাষ্ট্রপতি৷ এবং এই দাবি তোলার অনুষ্ঠানে তাকে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে সন্মাননা দেওয়া হয়েছে৷

অফটপিক: বিএনপির ওয়েবসাইটে জিয়াকে সপ্তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে আখ্যায়িত করা আছে৷

টপিক বিশ্লেষণ: শুধু ফেসবুকে ইতিহাস পড়লে এমনটা হতেই পারে৷''

সংকলন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়