1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

প্রতিবাদী গান গেয়ে আটক চীনা গায়িকা

বেইজিং বিমানবন্দরে বোমা বিস্ফোরণের একটি ঘটনার বিষয়ে গান লিখে কর্তৃপক্ষের রোষের মুখে পড়েছেন চীনা অ্যাক্টিভিস্ট গায়িকা উ হংফেই৷ তবে জনমতের চাপে তিনি সম্ভবত মুক্তি পাবেন৷

সরকারি আমলাদের বিরুদ্ধে মনে প্রচুর ক্ষোভ জমা ছিল৷ কোনোরকমে নিজেই একটা বোমা বানিয়ে বিমানবন্দরে গিয়ে হুইলচেয়ারে বসে সেটির বিস্ফোরণ ঘটিয়েছিলেন জি জংশিং নামের এক প্রৌঢ়৷ তাতে তিনি একাই আহত হয়েছিলেন৷ তাঁর দাবি, সরকারি আমলাদের হাতে মার খেয়েই তিনি পঙ্গু হয়ে গেছেন৷ তাই অনেক দিন ধরে ক্ষতিপূরণ আদায়ের চেষ্টা করছিলেন৷ সুবিচার না পেয়ে এমন অভিনব প্রতিবাদের পথ বেছে নিয়েছিলেন৷ বেইজিং-এর এই ঘটনা গোটা বিশ্বের শিরোনামে উঠে এসেছিল৷ সেটা ছিল ২১শে জুলাই৷

তিনি একা নন, চীনের বহু মানুষের মনেই সরকার ও প্রশাসনের বিরুদ্ধে অনেক ক্ষোভ জমা আছে৷ তা বলে বোমা ফাটানোর মত দুঃসাহস দেখানোর পর্যায়ে হয়তো অনেকে পৌঁছান নি৷ কিন্তু বেইজিং-এর সেই ঘটনার জের ধরে গানের মাধ্যমে মানুষের ক্ষোভ প্রকাশের পথ নিয়েছেন জনপ্রিয় শিল্পী উ হংফেই৷ খামখেয়ালি অ্যাক্টিভিস্ট হিসেবে পরিচিত এই তরুণী৷ তাই গানের কথা শুনে তেমন অবাক হবার কারণ নেই৷ তিনি গাইছেন, শুধু বেইজিং বিমানবন্দর নয় – আরও অনেক জায়গায় বোমা ফাটানোর দরকার আছে৷ গানের মধ্যে রয়েছে সেই তালিকা৷ আরেকটা কথা ভুললে চলবে না৷ চীনা ভাষায় উ যে শব্দটি ব্যবহার করেছেন, তার অর্থ ‘বিস্ফোরণ' অথবা ‘ফ্রাই' বা ‘ভাজা' – দুটোই হতে পারে৷

কিন্তু বোমা মারার কথা বলাও চীনে নিরাপদ নয়৷ তাই গান বাঁধার পর দিনই উ হংফেই-কে আটক করা হয়েছে৷ তবে আজকের সোশাল মিডিয়া-সর্বস্ব তরুণ প্রজন্ম সোচ্চার হয়ে ওঠায় কর্তৃপক্ষ নতি স্বীকার করবে – এমন আভাস পাওয়া যাচ্ছে৷ শুক্রবারই হয়তো তাঁকে ছেড়ে দেয়া হবে৷

আসলে আজকের চীনে মত প্রকাশের অধিকারের সীমা নিয়ে চলছে প্রবল তর্ক-বিতর্ক৷ দেশে কমিউনিস্ট ব্যবস্থায় কোনো পরিবর্তন হয় নি বটে, কিন্তু পরিবেশ অবশ্যই বদলাচ্ছে৷ তাই নাগরিকদের আর আগের মতো নীরবে আটক করা সহজ হচ্ছে না৷ প্রতিবাদ-বিক্ষোভের ঝড় উঠছে৷ ফলে প্রশাসন ও জনগণ – দুই পক্ষের মধ্যে সহনশীলতার সীমাও বদলাচ্ছে৷ উ হংফেই-এর ঘটনাটি সারা দেশে ক্ষোভের ঝড় তুলেছে৷ চীনে কি তাহলে নতুন বাতাস বইতে শুরু করবে?

এসবি / ডিজি (এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন