1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

প্রকৃতির সঙ্গে মানিয়ে অভিনব বাড়ি

নিজের হাতে নিজেরই বসতবাড়ি বানানোর কাজ সহজ নয়৷ সুইডেনের এক মিস্ত্রী প্রকৃতির কোলেই এমন অসাধ্য সাধন করেছেন৷ তবে এত পরিশ্রমের ফলে তাঁর ওজন কমে গেছে৷ নির্মাণের সময় ঘটেছে আরও অনেক কিছু৷

ভিডিও দেখুন 03:55

প্রকৃতির কোলে অভিনব বাড়ি

স্টকহোম শহরের উপকণ্ঠে প্রায় ২০ কিলোমিটার উত্তরে বসতি এলাকায় আলান স্পিগেল-এর বাড়ি৷ স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে তিনি সেখানে থাকেন৷ তুষার যুগের এক টিলার উপর কাঠের বাড়িটি শোভা পাচ্ছে৷ অন্যান্য অনেক প্রতিবেশীর মতো তিনি কিন্তু টিলায় কোনো পরিবর্তন করেন নি৷ আলান বলেন, ‘‘বাড়িকে প্রকৃতির সঙ্গে মানিয়ে তৈরি করা প্রকৃতিকে বাড়ির সঙ্গে খাপ খাওয়ানোর প্রচেষ্টার তুলনায় অনেক বেশি স্বাভাবিক৷ ডিনামাইট দিয়ে টিলা ভাঙলে আবার তা ভরাট করে প্রকৃতিকে নতুন করে তৈরি করার চেষ্টা করতে হতো৷ প্রথমত সেটি অত্যন্ত ব্যয়বহুল, দ্বিতীয়ত অত্যন্ত কুশ্রী হতো৷''

পেশায় ছুতোর মিস্ত্রী তাঁর এক স্থপতি বন্ধুর সঙ্গে তিনি বাড়ির নক্সা তৈরি করেন৷ অনেকগুলি কন্টেনার পরস্পরের সঙ্গে জুড়লে যেমন দেখায়, বাড়িটি অনেকটা সে রকম দেখতে৷ আলান স্পিগেল বলেন, ‘‘আমি নতুন জিনিস তৈরি করতে ভালোবাসি৷ যেমন দৈনন্দিন কাজের অংশ হিসেবে আসবাবপত্র তৈরি করি৷ সবসময়ে কিছু উন্নতির চেষ্টা করি, আরও পাতলা বা শক্তিশালী করে গড়ি৷ আপনি সুইডেনে সাধারণ কাঠের বাড়ি চাইলে আমি চোখ বুজে তা গড়ে দিতে পারি৷ হাতুড়ি আর করাতের ব্যবহার জানলে অনেকের কাছেই কাজটি বেশ সহজ হয়ে উঠবে৷''

এই দুই তলা বাড়িটিও তিনি নিজে তৈরি করেছেন৷ নীচের তলায় একটাই বড় ঘর৷ আলান ঠিক এমনটাই চেয়েছিলেন৷ তিনি ও তাঁর পরিবার চান, বাড়িটি যেন এক এক মিলনক্ষেত্র হয়ে উঠুক৷ সেইজন্যে ঘরের মাঝেই রয়েছে রান্নাঘর৷ আলান বলেন, ‘‘সুইডেনে বছরের ৬ মাসই শীত থাকে৷ তাই বাসায়ই বন্ধু-বান্ধবদের সঙ্গে দেখা করতে হয়৷ স্পেনের সঙ্গে তুলনা করলে দেখবেন, সবাই বন্ধুবান্ধবদের সঙ্গে বাইরে গিয়ে ডিনার সারে৷ কিন্তু সুইডেনে সেটা হয় না৷ লোকে রেস্তোরাঁয় যায় ঠিকই, কিন্তু সপ্তাহে ৩-৪ দিন নয়৷ তাই সুইডেনে এমন বাড়ি থাকা জরুরি, যেখানে বন্ধু-বান্ধবদের ডাকা যায়৷''

নিজের হাতে বাড়িটি তৈরি করেছেন আলান স্পিগেল৷ কঠোর পরিশ্রমের ফলে ১০ কিলো ওজন কমে গেছে৷ কারণ মিস্ত্রী হিসেবেও তিনি প্রথমবার অনেক কিছু করেছেন৷ কিছু বিঘ্নও ঘটেছে৷ আলান স্পিগেল বলেন, ‘‘আমি আবার রং চিনতে পারি না৷ সঙ্গে সবসময় একজন সহকারী ছিল৷ বাড়ি তৈরির সময় দু'জন মিলে কাজ করতাম, কারণ একা সব কাজ করা যায় না৷ এবং বাড়িটির চারটি রং রয়েছে৷ একটা গোটা দিন ধরে আমরা রং করছিলাম৷ একটি দেয়ালে রং করার পর দুপুরে আমার স্ত্রী এসে বললেন, ভুল রং করা হয়েছে৷ বন্ধুর উপর রাগ হয়ে গেল, কারণ আমি তো তাকে বলেইছিলাম যে আমি রং চিনি না৷ তখন সে বললো, সেও রং চেনে না!''

তবে তা সত্ত্বেও সুইডেনের ভিলা আলটোনা তৈরির কাজ শেষ হয়েছে৷

আক্সেল প্রিমাভেসি/এসবি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়