1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

প্রকাশ্যে প্রেম নিবেদন করায় কলেজ থেকে বহিষ্কার

মানুষ মানুষকে ভালোবাসবে - এটাই কাম্য৷ তাই ভালোবাসার কথা জানানোও যে দোষের হতে পারে স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে তা ভাবা এবং মেনে নেয়া কঠিন৷ কিন্তু ঢাকার এক কলেজে এমনই হয়েছে৷ ভিডিওতে দেখুন, কী ‘অপরাধ' করেছিলেন তারা৷

ঢাকার কমার্স কলেজ থেকে সম্প্রতি এক ছাত্র এবং এক ছাত্রীকে বহিষ্কার করা হয়৷ বহিষ্কারের কারণ হিসেবে শৃঙ্খলাভঙ্গের কথা উল্লেখ করেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ৷ প্রথমে মোট ১১ জনের বিরুদ্ধে এই অভিযোগে শাস্তি ঘোষণা করা হয়েছিল৷ সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে তোলপাড় শুরু হলে কর্তৃপক্ষ ৯ জনের শাস্তি প্রত্যাহার করে নেয় এবং দু'জনের বিরুদ্ধে আরো কঠোর শাস্তি ঘোষণা করে৷ সেই দু'জন শুধু একে-অন্যকে ভালোবাসার কথা জানিয়েছিলেন৷ বাকিরা তাদের অভিনন্দন জানিয়েছিলেন৷ ব্যস, এইটুকুই ‘অপরাধ'৷

ওপরের ভিডিওতেই রয়েছে, সদ্য যৌবনে পা দেয়া এক শিক্ষার্থীর প্রকাশ্যে প্রেম নিবেদন এবং তার সহপাঠীর এক পর্যায়ে তাতে সাড়া দেয়ার দৃশ্য৷ অন্য সহপাঠীরা হাত ধরাধরি করে এই যুগলকে ঘিরে নেচে নেচে অভিনন্দন জানিয়েছেন৷ প্রকাশ্যে প্রেম নিবেদন, প্রেমের প্রস্তাবে সম্মতি এবং পুরো বিষয়টিতে উৎসাহ জোগানোর কারণেই মূলত ১১ শিক্ষার্থীকে প্রথমে বদলির আদেশ (টিসি) দেয়া হয়েছিল৷

কিন্তু বিষয়টি জানাজানি হলে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে প্রতিবাদ, সমালোচনার ঝড় ওঠে৷ অবশেষে কিছুটা নমনীয় হয়ে কর্তৃপক্ষ ৯ জনকে কলেজে লেখাপড়া চালিয়ে যাওয়ার অনুমতি দিলেও প্রেম নিবেদনকারী এবং তার পছন্দের মেয়েটিকে বহিষ্কার করে

এসিবি/এআই

সংশ্লিষ্ট বিষয়