1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

প্যারিসে ইতিহাস গড়লেন নাদাল, সামনে উইম্বলডন

রাফায়েল নাদাল আটবারের বার ফ্রেঞ্চ ওপেন জিতে বিশ্বরেকর্ড করলেন৷ নিঃসন্দেহে তিনি ‘কিং অফ ক্লে’৷ কিন্তু একে তো তাঁর বাঁ হাঁটুর সমস্যাটা থেকেই যাচ্ছে; দ্বিতীয়ত, উইম্বলডন হল গ্রাস কোর্ট৷ সেখানে থাকবেন ফেডারার-জোকোভিচ-মারে৷

আটবার একটা গ্র্যান্ড স্ল্যাম টুর্নামেন্ট জেতা একটা আশ্চর্য কৃতিত্ব, টেনিস জগত সেটা নির্দ্বিধায় স্বীকার করছে৷ আবার ফ্রেঞ্চ ওপেন শুধু ক্লে কোর্টে বলেই যে রাফা এই অসাধ্যসাধন করতে পেরেছেন, সেটা বলে তাঁর অর্জনকে খাটো করার চেষ্টাও হাস্যকর৷ ক্লে'তে রাফা যে টেনিস খেলেন, তা বিশ্বের সেরা টেনিসের মধ্যে পড়ে৷ রবিবার ডেভিড ফেরার-কে সরাসরি তিন সেটে হারিয়ে তিনি সেটাই আবার প্রমাণ করছেন৷

কিন্তু অষ্টমাশ্চর্যের মতো রাফার এই অষ্টম জয় তাঁর টেনিস দক্ষতার চেয়ে মানুষ হিসেবে তাঁর গুণাগুণকেই যেন আবার স্পষ্ট করে দিল৷ হাঁটুর কারণে টেনিস থেকে সাত মাস বিরতির পর মাত্র গত ফেব্রুয়ারি মাসে নাদাল আবার কোর্টে ফেরেন – এবং ফিরেই তাঁর প্রথম টুর্নামেন্টের ফাইনালে হারেন আর্জেন্টিনীয় খেলোয়াড়

French Open Finale 2013 Ferrer Nadal

স্বদেশি ডেভিড ফেরারকে হারিয়েছেন নাদাল

ওরাসিও সেবালোস'এর কাছে, যিনি বিশ্ব বাছাই তালিকায় ৭৩৷ সেবালোস আবার এর আগে আর কোনো খেতাব জেতেননি৷

হাঁটুর চোট সামলে টেনিসে ফেরা যাবৎ নাদাল ন'টি টুর্নামেন্ট খেলে তার মধ্যে সাতটিতে জিতেছেন৷ হেরেছেন মাত্র দু'বার: একবার চিলিতে সেবালোস ও একবার মন্টে কার্লো-তে বিশ্বের পয়লা নম্বর বাছাই নোভাক জোকোভিচের কাছে৷ আটবারের বার ফ্রেঞ্চ ওপেন জেতাটাও যে তাঁর কপালে – এবং হাতযশে – ঘটবে কিংবা ঘটতে চলেছে, সমঝদাররা যেন সেটা আগে থেকেই টের পাচ্ছিলেন৷

নিজের শরীরকে চেনা চাই

বড় বড় ক্রীড়াবিদরা যেমন নিজের শরীরকে অসম্ভব খাটিয়ে নেন, তেমন তাঁরা জানেন কখন থামতে হয়, কখন শরীরকে দম ফেলার ফুরসত দিতে হয়৷ রাফা বহুদিন ধরে টেনিস সার্কিটে রয়েছেন, সর্বোচ্চ পর্যায়ে টেনিস খেলছেন৷ কাজেই তাঁর কাছে হাঁটুর কুশল হল জাগতিক কুশল৷ হাঁটু যদি বাদ না সাধে, তো তিনি তাঁর টেনিস খেলতে সমর্থ৷

ফ্রেঞ্চ ওপেন জেতার পরেই তাঁকে প্রশ্ন করা হয়: হাঁটু কেমন আছে? রাফা হেসে বলেন, ‘‘বিগত হপ্তা দুয়েক ধরে হাঁটু কোনো গোলমাল করেনি, মনে হচ্ছিল যেন ভালো হচ্ছে৷ আমি এখনও হপ্তা থেকে হপ্তা, দিন থেকে দিন হাঁটুর উপর নজর রাখছি৷'' তার সবচেয়ে বড় প্রমাণ হল, নাদাল জার্মানির হালে শহরে অনুষ্ঠিতব্য টেনিস টুর্নামেন্টটিতে তাঁর অংশগ্রহণ বাতিল করেছেন৷ অথচ উইম্বলডনের প্রস্তুতি হিসেবেই তাঁর হালে'তে খেলার কথা ছিল৷

উইম্বলডন রোল্যাঁ গারো নয়

ফ্রেঞ্চ ওপেন জেতার পর বিশ্ব বাছাই তালিকায় নাদাল নামবেন চার নম্বর থেকে পাঁচ নম্বরে৷ অথচ তিনি যে ডেভিড ফেরার'কে হারিয়েছেন, তিনি উঠবেন পাঁচ থেকে চারে৷ বাছাইয়ের জন্য অর্জন ও পয়েন্টের হিসেব করতে গিয়ে মাঝেমধ্যেই এ ধরনের কিম্ভূত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়৷ তা নিয়ে খেলোয়াড়রা বিশেষ যে মুষড়ে পড়েন কিংবা উল্লসিত হন, এমন নয়৷ যেমন রাফায়েল নাদাল বছর শেষ হবার আগেই আবার বিশ্বের পয়লা বাছাই হয়ে উঠতে পারবেন কিনা, তা নিয়ে মিডিয়া যতোটা মাথা ঘামাচ্ছে, নাদাল স্বয়ং তার সিকির সিকিও নয়৷

French Open Finale 2013 Ferrer Nadal

ফ্রেঞ্চ ওপেন জেতার পর বিশ্ব বাছাই তালিকায় নাদাল নামবেন চার নম্বর থেকে পাঁচ নম্বরে!

উইম্বলডনে নাদাল নিঃসন্দেহে ফেবারিটদের মধ্যে পড়বেন৷ যেমন পড়বেন রজার ফেডারার ও অ্যান্ডি মারে৷ নাদালের কোচ টোনি নাদাল নিজে বলেছেন, ‘‘রাফা সম্ভাব্য বিজয়ীদের মধ্যে একজন৷ কিন্তু জেতার মতো ক'জন আছে? জোকোভিচ ফেডারার, মারে৷ উইম্বলডনে ব্যাপারটা আলাদা কেননা অনেক প্লেয়াররাই জিততে পারে৷ উইম্বলডনে সারফেসটা আলাদা, বল অনেক তাড়াতাড়ি যায়৷'' অর্থাৎ আবার সেই ক্লে কোর্ট বনাম গ্রাস কোর্ট৷

নাদাল চান শান্তি, নিরিবিলি

ফ্রেঞ্চ ওপেনের পর নাদাল বলেছেন, তিনি এবার শুধু হাঁটু নয়, সারা শরীর চেক করাবেন৷ উইম্বলডনের আগে তিনি যে আর কোনো টুর্নামেন্ট খেলবেন না, প্রস্তুতি হিসেবে সেটা খুব ভালো না হলেও তাঁর কিছু করার নেই৷ উইম্বলডনে ঘাসের উপর খেলতে হবে, পরিবেশ-পরিস্থিতি সম্পূর্ণ অন্য হবে, সেটা নাদালেরও অজানা নয়৷

আপাতত তিনি শুধু চান ভূমধ্যসাগরে স্পেনীয় দ্বীপ মায়োর্কায় গিয়ে তাঁর পরিবারের মানুষজন, বন্ধুবান্ধবদের সঙ্গে শান্তিতে কিছুটা সময় কাটাতে৷ মায়োর্কার মানুষজন তাঁকে ভলোবাসে বটে, কিন্তু তাদের কাছ থেকে রাফা শুধু একটাই উপহার কামনা করেন: একলা থাকতে পাওয়া, শান্তি, কিছুটা সাধারণ, সুস্থ জীবন৷

‘‘একা থাকতে পাওয়াটা অমূল্য,'' বলেছেন টেনিসের সুপারস্টার রাফায়েল নাদাল৷

এসি / এসবি (এপি, এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন