1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

পানি পরিশোধনের সহজ যন্ত্র ‘জম্পি ওয়াটার-কুকার’

দূষিত পানির কারণে এমন অনেক রোগ-ব্যাধী দেখা যায়, যা সহজেই এড়িয়ে যাওয়া সম্ভব৷ কিন্তু পানি পরিশোধনের প্রক্রিয়া প্রায়ই জটিল, ব্যয়সাপেক্ষ৷ এক স্কটিশ উদ্ভাবক উগান্ডায় এমন একটি সহজ যন্ত্র কাজে লাগাচ্ছেন৷

Bildergalerie gefährliche Getränke

প্রতীকী ছবি

বিশ্বের অন্যান্য দরিদ্র অঞ্চলের মতো উগান্ডাতেও সুপেয় পানি দুষ্প্রাপ্য৷ যেখানে তা পাওয়া যায়, সেখানেও জল থেকে বিপদ: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংগঠনের বিবৃতি অনুযায়ী আফ্রিকায় রোগে মৃত্যুর জন্য আট শতাংশ ক্ষেত্রে জীবাণু দূষতি পানি দায়ী৷ উগান্ডার দক্ষিণে প্রত্যন্ত কাবালে জেলায় এখন একটি নতুন, সহজ যন্ত্র পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে: যন্ত্রটির নাম জম্পি ওয়াটার-কুকার, অর্থাৎ পানি গরম করার যন্ত্র৷ জম্পি পানিকে জীবাণু মুক্ত করার ক্ষমতা রাখে৷ কিগেসি এলাকার যাজক রিউবেন বিওমুকাঙ্গি বলেন: ‘‘এমনকি শহরের লোকেরাও জম্পি বয়লারের কথা শুনেছে এবং তা কিনতে চায়! আমি নিজেও একটা রাখতে চাই, এখানে এবং আমার গাঁয়ে৷''

ভিডিও দেখুন 04:40

ভিডিও: পানি সাশ্রয়ে মিটার

‘বাড়ির পিছনের গ্যারেজে'

জম্পি ওয়াটার-কুকারের উদ্ভাবক স্কটল্যান্ডের মানুষ ডেভিড অসবোর্ন, যিনি আফ্রিকাতেই মানুষ হয়েছেন এবং আজও এই মহাদেশের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে যুক্ত৷ নিজের বাড়ির পিছনের গ্যারেজে তিনি প্রথম জম্পিটি তৈরি করেন৷ অসবোর্নের ভাষ্যে: ‘‘রাত্রি ১১টায় বিছানায় শুয়ে শুয়ে আইডিয়াটা মাথায় আসে, সঙ্গে সঙ্গে এঁকে ফেলি৷ পরদিন ভোর ছ'টায় কেউ ওঠার আগে বাড়ির ড্রাইভওয়েতে আগুন জ্বেলে তার মধ্যে তামার নল ভরে সেই নল দিয়ে জল ঢালতেই বুনিয়াদি ধারণাটা প্রমাণ হয়ে যায়৷ তারপর এক মাসের মধ্যেই চূড়ান্ত ডিজাইন করে কেনিয়ার প্লেনে চড়ি, এখানকার স্থানীয় জনতার সঙ্গে জম্পি পরীক্ষা করার জন্য৷''

‘পাম্প কিংবা ফিল্টার লাগে না'

জম্পি যন্ত্রটি যেমন সহজ তেমনই চমৎকার৷ কোনো পাম্প কিংবা ফিল্টার লাগে না; পানি গরম করার তামার নলের চক্রটিকে সরাসরি আগুনের উপর রেখে দেওয়া যায়৷ কাজেই রান্না চলাকালীনই পানি গরম হয়, যার ফলে জ্বালানি বাঁচে৷ জীবাণু-মুক্ত পানি সরাসরি পানীয় জল হিসাবে কিংবা বাসন ধোয়ার কাজে ব্যবহার করা চলে৷ জম্পির আরেকটি সুবিধা: হাত-পা পোড়ার কোনো সম্ভাবনা নেই৷

অসবোর্ন বলেন: ‘‘জম্পি ব্যবহার করার সময়েও ঠান্ডাই থাকে, কেননা নলের ভিতরে পানি থাকে৷ কাজেই মাটিতে রাখলেও কেউ যদি তা মাড়িয়ে কিংবা ছুঁয়ে ফেলে, তাহলেও সেটা নিরাপদ৷''

জম্পি ৮৬ ডিগ্রি অবধি পানি গরম করে, যা কিনা অধিকাংশ বিপজ্জনক জীবাণু বিনষ্ট করার পক্ষে যথেষ্ট – যেমন কলেরা কিংবা পেটের রোগ৷ উগান্ডার স্বাস্থ্য দপ্তর জম্পি পরীক্ষা করে দেখেছে এবং যন্ত্রটির কার্যকরিতা সম্পর্কে সন্তুষ্ট৷ উগান্ডার পানি ও পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের স্টেসি নাতুকুন্ডা বলেন: ‘‘আমরা জম্পি দিয়ে গরম করার আগে ও পরে জল পরীক্ষা করেছি৷ ল্যাবে দেখা গেল নমুনা গরম করার আগে জীবাণু রয়েছে, পরে তা দূর হয়েছে৷''

একটি জম্পির বাজারদর আপাতত ২০ ডলার, তবে বেশি সংখ্যায় বিক্রি হলে দাম অবশ্যই কমবে৷ তখন স্কটল্যান্ডের এক পানির মিস্ত্রির এই চতুর সৃষ্টি আফ্রিকার মানুষদের পানীয় জলের প্রয়োজন মেটাতে সাহায্য করবে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও