1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

পানির নীচে মালদ্বীপ মন্ত্রিসভার বৈঠক

জলবায়ু পরিবর্তনের ব্যাপারে বিশ্ববাসীর নজর কাড়তে এক অভিনব কাজ করেছে মালদ্বীপের সরকার৷ শনিবার সাগরের তলে ডুবুরির পোশাক পরে মন্ত্রিসভার বৈঠক করেছে তারা৷

default

প্রস্তাবে স্বাক্ষর করছেন মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদ

গোটা বিশ্বের জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুদ্ধে আজ জনমত গড়ে উঠেছে৷ মালদ্বীপও এর ব্যতিক্রম নয়, বিশেষ করে দেশটি এই ইস্যুতে সবচেয়ে জোরালো কন্ঠস্বর বলে পরিচিত৷ কারণ জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে যে দেশগুলো সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হবে মালদ্বীপ তার মধ্যে সবার আগে৷ পরিবেশবিদদের আশংকা সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধির ফলে এই শতাব্দীর শেষ নাগাদ দ্বীপরাষ্ট্রটি সমুদ্র গর্ভে বিলীন হয়ে যেতে পারে৷ তাই নিজেদের অস্তিত্ব রক্ষার্থেই গোটা বিশ্ববাসীর নজর কাড়তে সচেষ্ট মালদ্বীপ৷

শনিবার মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদ ও তার ডেপুটি মোহাম্মদ ওয়াহিদ সহ মন্ত্রী পরিষদের ডজন খানেক সদস্য সমুদ্রের ২০ ফুট নীচে সভা করেন৷ এসময় সকলের পরনে ছিল স্কুবা ডাইভিংয়ের পোশাক৷ উল্লেখ্য, এই বৈঠকের জন্য সকলকেই ডাইভিংয়ের বিশেষ প্রশিক্ষণ নিতে হয়েছে৷ আর প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদ তো আগে থেকেই প্রশিক্ষিত ডুবুরি৷ টেলিভিশনের পর্দায় দেখা যায় তিনি ও তার মন্ত্রিসভার সদস্যরা পানির নীচে চেয়ার টেবিলে বসেই বৈঠক করছেন৷ এসময় তারা বিশ্বব্যাপী কার্বন নির্গমন কমানোর আহ্বান জানিয়ে একটি প্রস্তাবও পাশ করেন৷ প্রায় আধঘন্টা সময় সাগরের নীচে অবস্থান করেন মালদ্বীপের নীতি নির্ধারকরা৷

পরে প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদ আহ্বান জানান যাতে আগামী ডিসেম্বরে কোপেনহেগেনে অনুষ্ঠিতব্য জলবায়ু সম্মেলনে কার্বন নির্গমন কমাতে দেশগুলো রাজি হয়৷ তিনি বলেন, সাগরের নীচে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কথা কম হলেও কাজ হয়েছে বেশি৷ এখন দেখার বিষয়, মালদ্বীপের এই উদ্যোগ শিল্পোন্নত দেশগুলোর হুঁশ ফেরায় কিনা৷

প্রতিবেদক: রিয়াজুল ইসলাম, সম্পাদনা: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সংশ্লিষ্ট বিষয়