1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

পাকিস্তান সফরে নিরাপত্তার নিশ্চয়তা চায় শ্রীলঙ্কা

পাকিস্তান সফরে যেতে রাজি নয় শ্রীলঙ্কা৷ শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের এসএলসি-র সেক্রেটারি নিশানথা রানাতুঙ্গা জানিয়েছেন, নিরাপত্তার নিশ্চয়তা না দিলে শ্রীলঙ্কা পাকিস্তান সফরে যাবে না৷

default

তেসরা মার্চ, ২০০৯: আক্রমণের পর হেলিকপ্টারে করে শ্রীলঙ্কা দলের খেলোয়াড়-কর্মকর্তাদের গাদ্দাফি স্টেডিয়াম থেকে স্থানান্তরিত করা হচ্ছে৷

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড জানায়, চলতি বছরের শেষে একটি সিরিজ খেলতে যাওয়ার জন্য এসএলসিকে পাকিস্তানে দল পাঠানোর অনুরোধ করেছে পিসিবি৷ কয়েক মাস আগের ঐ অনুরোধের কথা উল্লেখ করে রানাতুঙ্গা বলেন, ‘‘আমরা তাদের জানিয়ে দিয়েছি যে দল পাঠানোর আগে আমাদের নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দিতে হবে৷'' তিনি জানান, শ্রীলঙ্কার খেলোয়াড় এবং তাদের পরিবারের কল্যাণের কথা বিবেচনা করেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷

এর আগে পাকিস্তান সফরকালে লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়াম যাওয়ার পথে শ্রীলঙ্কা দলের বাসে বন্দুকধারীরা গুলিবর্ষণ করে৷ এতে ৬ জন পুলিশ এবং একজন ভ্যান চালক নিহত ও বাস চালকসহ শ্রীলঙ্কা দলের বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় ও কর্মকর্তা আহত হন৷ পরে ওই সফর সংক্ষিপ্ত করে দেশে ফিরে যায় শ্রীলঙ্কা দল৷

এরপর পাকিস্তানে আর কোনো দেশ দল পাঠায়নি৷ অর্থাৎ, পাকিস্তানের মাটিতে আর কোন আন্তর্জাতিক খেলা অনুষ্ঠিত হয়নি৷ আগামী সপ্তাহে পাকিস্তানে খেলতে যাওয়ার কথা আফগানিস্তান ক্রিকেট দলের৷ পাকিস্তানের 'এ' দলের সঙ্গে তাদের তিনটি একদিনের ম্যাচ খেলার কথা৷

পিসিবি'র মুখপাত্র নাদিম সারওয়ার বলেছেন, ‘‘আমরা অক্টোবর-নভেম্বরে শ্রীলঙ্কাকে তিনটি টেস্ট, পাঁচটি একদিনের ও একটি টোয়েন্টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার আমন্ত্রণ জানিয়েছি৷ একই সঙ্গে পূর্ণ নিরাপত্তার নিশ্চয়তাও দিয়েছি৷''

নাদিমের এই বক্তব্যের পর রোববার রাতে করাচির একটি সামরিক স্থাপনার কাছে সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়৷ ঘটনাস্থলের কাছেই করাচি স্টেডিয়াম৷ তাই নিরাপত্তা নিয়ে নতুন করে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে৷

প্রতিবেদন: ফাহমিদা সুলতানা

সম্পাদনা: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

নির্বাচিত প্রতিবেদন