1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

পাকিস্তানে রাজনৈতিক অনিশ্চয়তা

অনেক সমস্যার দেশ পাকিস্তানে যোগ হলো রাজনৈতিক সমস্যা৷ জোট সরকার থেকে বেরিয়ে গেল মুত্তাহিদা কওমি মুভমেন্ট বা এমকিউএম৷ জোটে যাদের আসন সংখ্যা ছিল দ্বিতীয় সর্বোচ্চ৷ ফলে সংসদে সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারিয়ে ফেললো সরকার৷

default

ইউসুফ রাজা গিলানি

বেশ কিছুদিন ধরেই জোটের প্রধান শরিক পাকিস্তান পিপলস পার্টি বা পিপিপি'র সঙ্গে সম্পর্ক ভাল যাচ্ছিল না এমকিউএম-এর৷ কারণ আইএমএফ-এর পরামর্শে কর ব্যবস্থার পরিবর্তন, দুর্নীতি, মূল্যস্ফীতি এবং এমকিউএম-এর প্রধান ঘাঁটি করাচিতে রাজনৈতিক সন্ত্রাস৷ এসব কারণে জোট সরকারে থাকা এমকিউএম-এর দুই মন্ত্রী গত সপ্তাহে পদত্যাগ করেন৷ এরপর অবস্থা বুঝতে পেরে এমকিউএমকে জোটে ধরে রাখতে কয়েকদিন চলে আলোচনা৷ কিন্তু তাতে কোনো কাজ হয়নি৷ ফলে দলের ২৫ সাংসদ এখন থেকে বিরোধী দলে বসবে বলে জানিয়েছে৷ তাই জোট সরকারের আসন সংখ্যা কমে এখন ১৬০৷ কিন্তু সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য প্রয়োজন ১৭২৷ অর্থাৎ ১২টি আসন কম৷

পিপিপি'র প্রতিক্রিয়া

এমকিউএম-এর ঘোষণার পর প্রধানমন্ত্রী ইউসুফ রাজা গিলানিকে আশ্চর্যজনকভাবে শান্ত থাকতে দেখা গেছে৷ সাংবাদিকদের তিনি বলেছেন এর ফলে সরকারের পতন হবেনা৷ তাঁর এই বক্তব্য একটা বিষয়ের ইঙ্গিত দিচ্ছে৷ সেটা হলো, পিপিপি নতুন জোট গঠনের কাজ শুরু করে দিয়েছেন৷ তাদের প্রথম লক্ষ্য থাকবে ধর্মভিত্তিক দল জমিয়াত উলেমা-ই-ইসলাম (জেইউআইএফ) এর দিকে৷ কারণ এই দলটির আসন সংখ্যা সাত৷ কয়েকদিন আগেও তারা পিপিপি' র সঙ্গে জোটে ছিলেন৷ কিন্তু প্রধানমন্ত্রী ইউসুফ রাজা গিলানি গতমাসে জেইউআইএফ এর এক মন্ত্রীকে বহিষ্কার করলে সম্পর্ক খারাপ হয়ে যায় এবং তারা জোট থেকে বের হয়ে যায়৷

এখন কী হবে?

বল এখন নেওয়াজ শরীফের কোর্টে৷ তিনি চাইলে এখনি ‘নো-কনফিডেন্স' বা অনাস্থা ভোটের ব্যবস্থা করতে পারেন৷ তাতে সরকারের পতন হতে পারে৷ কিন্তু শরীফ এখনি সেটা করবেন না, বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষক হাসান আসকরি৷ তাঁর মতে, পাকিস্তানে এখন এত সমস্যা, যে সরকার পতন করে সে সবের দায়িত্ব নিতে চাইবেন না শরীফ৷ আর এমকিউএমও এখনই সরকার পতনের পক্ষে নয়৷ দলের নেতা মুহাম্মদ আনোয়ার বলছেন, ‘‘আমরা সরকারকে সংশোধনের আরেকটা সুযোগ দিচ্ছি৷ আমরা চাই সরকার জনগণকে নিরাপত্তা দিক৷ তাদের জীবন, ধন-সম্পত্তি বাঁচাক৷ যদি সরকার এই সুযোগ গ্রহণ করে তাহলে আমরা আবার সরকারে ফিরে যাওয়ার বিষয় বিবেচনা করে দেখতে পারি৷ তাই সরকার পতন হোক, এটা আমরা চাইনা৷''

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: রিয়াজুল ইসলাম