1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

পাকিস্তানে জঙ্গি হামলা, মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে

পাকিস্তানের সীমান্তবর্তী উপজাতীয় এলাকা মোহমান্দে জঙ্গিদের সঙ্গে সংঘর্ষে এগার জন সেনা নিহত হয়েছে৷ হত ২৪ জন জঙ্গিও৷ পাকিস্তান-আফগানিস্তান সীমান্তে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে৷

default

জঙ্গিরা চালিয়ে যাচ্ছে একের পর এক হামলা

মোহমান্দ অঞ্চলের বাইজাই এলাকায় এই রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের সর্বশেষ খবর হল গুরুতর আহত হয়েছে বেশ কিছু সেনা৷ জঙ্গিরা পাঁচটি নিরাপত্তা চেকপয়েন্টে হামলা চালায়৷ তখনই দুই পক্ষে সংঘর্ষ চলে৷ এদের মধ্যে চারজনের অবস্থা আশংকাজনক৷ সেনারা পাল্টা আক্রমণ চালালে জঙ্গিরা পালিয়ে যায়৷ পেছনে ফেলে যায় শুধু মৃতদেহ৷ বলা প্রয়োজন, মোহমান্দ অঞ্চলে এর আগেও তালেবান জঙ্গিরা বেশ কয়েকবার হামলা চালিয়েছিল কিন্তু কখনোই খুব বেশি সুবিধা করতে পারেনি৷

Selbstmordanschlag in Pakistan

মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে

কর্তৃপক্ষের বক্তব্য

কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে বেশ কিছু বক্তব্য৷ মোহমান্দের শীর্ষ সরকারি কর্মকর্তা আমজাদ আলি খান সাংবাদিকদের কাছে বক্তব্য রাখেন৷ জানান কতজন মারা গেছে এবং কতজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক৷ মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে এমন আশঙ্কাও করা হচ্ছে৷ এছাড়া আধা-সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র ফজল-উর-রহমান ঘটনার উল্লেখ করতে গিয়ে বলেন, প্রায় ১৫০ জন জঙ্গি অতর্কিতে হামলা চালায় পাঁচটি নিরাপত্তা চেকপয়েন্টে৷ সঙ্গে সঙ্গেই শুরু হয় সংঘর্ষ৷ প্রায় ঘন্টাখানেক ধরে চলে গোলাগুলি পরে জঙ্গি দল পিছু হটতে বাধ্য হয়৷ গতকাল রাত বারোটার পরেই আক্রমণ করা হয়৷ পাল্টা জবাবও দেওয়া হয় সঙ্গে সঙ্গে৷

Abdullah Gul mit Asif Ali Zardari und Hamid Karzai

আলোচনায় বসেছেন দুই নেতা - মধ্যস্থতা করছে তুরস্ক

মোহমান্দে এর আগেও এ ধরণের ঘটনা ঘটেছে৷ প্রশ্ন উঠতে পারে আফগানিস্তান থেকে এত সহজে কীভাবে এসব জঙ্গিরা আসছে ? মোহমান্দের স্থানীয় মানুষজন সেনাবাহিনীর সঙ্গে কাজ করছে তালেবান জঙ্গিদের প্রতিহত করতে৷ এসব জঙ্গি সীমান্ত পার হয়ে পাকিস্তানে প্রবেশ করেছে৷ তারা পাহাড় অতিক্রম করে পায়ে হেঁটে আর সমতলভূমিগুলো পার হয় ট্রেনে৷ এরা সবসময়ই লুকিয়ে থাকে বলে এদের কেউ সহজে দেখেও না চিনতেও পরে না৷ গোপন আস্তানা থেকেই এরা হামলার পরিকল্পনা করে৷ এদের হামলার মূল লক্ষ্য হল নিরপরাধ বেসামরিক মানুষ আর আফগানিস্তানে অবস্থানরত বিদেশি সেনা৷

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত জানা গেছে আফগান প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই এবং পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট আসিফ আলী জারদারি সীমান্ত এলাকার উত্তেজনা প্রশমিত করতে আলোচনায় বসেছেন৷ এই আলোচনায় মধ্যস্থতা করছে তুরস্ক৷

প্রতিবেদন: মারিনা জোয়ারদার

সম্পাদনা: আবদুল্লাহ আল-ফারূক