1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

পাকিস্তানের জন্য ৪৬০ মিলিয়ন ডলারের আবেদন জাতিসংঘের

পাকিস্তানে ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ৪৬০ মিলিয়ন ডলারের সাহায্যের আবেদন করেছে জাতিসংঘ৷ এদিকে বন্যাকে পুঁজি করে জঙ্গিরা ফায়দা লুটতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন সংস্থাটির একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা৷

default

জাতিসংঘের জরুরি সাহায্য সমন্বয়ক জন হোমস বুধবার এই আবেদন জানান৷ খাবার, বিশুদ্ধ পানি, ওষুধ আর আশ্রয়ের জন্য এই বিপুল পরিমাণ অর্থ প্রয়োজন বলে তিনি মন্তব্য করেন৷ হোমসের মতে, প্রতি ১০ জন পাকিস্তানির একজন বর্তমানে বন্যায় আক্রান্ত৷ এর মধ্যে ছয় মিলিয়ন লোকের জন্য এখনই ত্রাণ প্রয়োজন৷ এছাড়া আক্রান্তদের মধ্যে শিশুরা সবচেয়ে অসহায় অবস্থায় আছে বলে জানান তিনি৷ কারণ যে কোন মুহূর্তে তারা ডায়রিয়া বা হামে আক্রান্ত হতে পারে৷

ত্রাণ কার্যক্রম

বন্যা শুরুর পর থেকে সরকারের পাশাপাশি বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা ত্রাণ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে৷ কিন্তু সেটা পর্যাপ্ত নয় বলেই মনে হচ্ছে৷ কারণ বিভিন্ন স্থানে ত্রাণ কর্মীদের ওপর হামলার খবর

UN-Nothilfekoordinator John Holmes

জাতিসংঘের জরুরি সাহায্য সমন্বয়ক জন হোমস

পাওয়া গেছে৷ বিভিন্ন দেশের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ ৫৫ মিলিয়ন ডলার সাহায্যের অঙ্গীকার করেছে৷ এছাড়া বন্যায় আক্রান্তদের উদ্ধারে ছয়টি মার্কিন হেলিকপ্টার কাজ করে যাচ্ছে৷ তবে হেলিকপ্টারের সংখ্যা তিনগুণ বাড়ানো হচ্ছে বলে জানা গেছে৷ এছাড়া বিভিন্ন জঙ্গি গোষ্ঠী ও তাদের সঙ্গে জড়িত বিভিন্ন সংস্থাও বন্যার্তদের সাহায্যে এগিয়ে এসেছে৷ যেমন পাকিস্তানি তালেবান প্রায় ২০ মিলিয়ন ডলার সাহায্যের কথা বলেছে৷

জঙ্গিদের ত্রাণ তৎপরতা

খোদ জাতিসংঘের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জঙ্গিদের এই ত্রাণ তৎপরতা নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন৷ তিনি বলছেন, এর ফলে সাধারণ জনগণের মনে জঙ্গিদের সম্পর্কে একটা ভাল ধারণার জন্ম নিতে পারে৷ মার্কিন প্রেসিডেন্টের একজন উপদেষ্টাও ঠিক এমনটাই মনে করছেন৷ এদিকে পাকিস্তানের যে অঞ্চল বন্যায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সেটা জঙ্গিদের শক্তিশালী ঘাঁটি৷ গত দুই বছর ধরে পাকিস্তানি সামরিক বাহিনী ঐ এলাকায় জঙ্গি দমন অভিযান করে এসেছে৷ কিন্তু সেই সেনারা এখন ব্যস্ত ত্রাণ কাজে৷ ফলে জঙ্গিরা আবার একত্রিত হবার সুযোগ পাচ্ছে বলেও মনে করছেন অনেকে৷

বন্যার সর্বশেষ

বন্যা শুরু হয়েছিল দেশটির উত্তরাঞ্চলে৷ এখন সেটা ক্রমশ দক্ষিণের দিকে ছুটে চলেছে৷ এই দক্ষিণেরই একটি জেলা হায়দ্রাবাদে বন্যার পূর্বাভাস দিয়েছে দেশটির আবহাওয়া অফিস৷ এছাড়া পাঞ্জাব প্রদেশেরও দুটি এলাকায় বন্যার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে৷ আসলে বর্ষাকাল শেষ হতে এখনো প্রায় তিন সপ্তাহ বাকি৷ তাই শেষ পর্যন্ত বন্যা পরিস্থিতি কেমন দাঁড়ায় সেটাই এখন দেখার বিষয়৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

ইন্টারনেট লিংক