1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

পশ্চিমা সংস্কৃতির প্রতি উৎসাহী দুবাই-এর তরুণ সম্প্রদায়

দুবাই মানেই দারুন সাফল্যমন্ডিত সমৃদ্ধ একটি শহর৷ তাদের রয়েছে প্রচুর তেল সম্পদ, যথেষ্ট অর্থ৷ দুবাই সম্পর্কে কিছু বলতে গেলে আরব্য রজনীর কথাই মনে পরে য়ায়৷ কিন্তু তরুণ আরবরা কিভাবে তাদের দৈনন্দিন জীবন যাপন করছেন বলুন তো ?

default

দুবাই-এ বিশ্বের সর্বোচ্চ ভবন বুর্জ খালিফা বা দুবাই টাওয়ার

আরব বিশ্ব এবং পশ্চিমা বিশ্বের মধ্যে তেমন একটা সংঘাত কিন্তু আরব তরুণ-তরুণীরা দেখেন না৷ বরং তাঁরা মনে করেন পশ্চিমা বিশ্ব তাঁদের বিরুদ্ধে নয়৷ ২১ বছরের থুরিয়া আল-সালেহ বিষয়টি এভাবেই খোলসা করে বললেন,''পশ্চিম সম্পর্কে আমাদের ধারণার অধিকাংশই কিন্তু নেতিবাচক নয়৷''

থুরিয়া, রশিদ হাসপাতালে একজন চিকিৎসকের সহকারী হিসেবে কাজ করেন৷ পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পরেন থুরিয়া৷ ফজরের ওয়াক্তের নামাজ ভোর চারটার সময়৷ আর দিনের শেষবার অর্থাৎ এশার নামাজ পরেন রাত আটটা ৩৮ মিনিটে৷ নামাজের জন্যে অত ভোরে উঠতে তাঁর কোন সমস্যা হয় না ? এই প্রশ্নের জবাবে থুরিয়া বলেন, ''অবশ্যই না৷ এটা আমাদের সংস্কৃতির অঙ্গ৷ আমরা এভাবে চলতেই অভ্যস্ত৷ এটা আমাদের দৈনন্দিন কাজেরই একটা অংশ - সকালের নাস্তা, দুপুরের খাবার বা রাতের খাবার খাওয়ার মতোই৷''

থুরিয়ার ছুটির দিন শুক্রবার৷ সংযুক্ত আরব আমিরাতে শুক্রবার হচ্ছে পশ্চিমের রবিবারের মতো৷ অবসর সময়ে থুরিয়া তাঁর অন্য বন্ধুদের সঙ্গে শপিং মলে যান৷ রোভিদা, ফাতেমা, কালথাম এবং হেবা এঁরা সবাই থুরিয়ার বন্ধু৷ সবাই থুরিয়ার সমবয়সি৷ একসঙ্গে তাঁরা শপিং মলে গেলেও, থুরিয়া বা তাঁর বন্ধুরা ডিসকোতে যান না৷ সত্যি কথা বলতে কি তাঁরা কখনও ডিসকোতে যাননি৷ তবে তাঁরা লেটেস্ট মিউজিক শুনতে পছন্দ করেন৷ আর গান যদি তাঁদের পছন্দ হয়, তাহলে থুরিয়া আর তাঁর বন্ধুরা শুরু করেন নাচ৷ কিন্তু অবশ্যই তা বন্ধ দরজার ওপাশে৷

Burj Dubai Arbeiter

দুবাই

থুরিয়ার বন্ধু ফাতেমা মনে করেন, দুবাই হচ্ছে আরব বিশ্বের নিউ ইয়র্ক৷ পারস্য উপসাগরের বুকে সব পেয়েছির নগরীর মতোই ঝলকাচ্ছে যেন দুবাই৷ কোন অনুষ্ঠানের জন্যে গান গাইতে ডি জে-রা দুবাইয়ে উড়ে আসেন লন্ডন বা বার্লিন থেকে৷ তবে থুরিয়ার মতো অধিকাংশ আরব তরুণী এইসব অনুষ্ঠানে যান না৷ তাঁরা এমটিভি আরাবিয়া থেকে প্রচারিত সিরিজগুলো দেখতেই পছন্দ করেন৷ সব ধরণের আন্তর্জাতিক মিউজিক ক্লিপই প্রচারিত হয় এই স্টেশন থেকে৷

রোমান্স বা ভালোবাসা নিয়ে তৈরি টেলিভিশন সিরিজগুলো কেমন লাগে থুরিয়া আর তার বন্ধুদের ? এই প্রশ্নে থুরিয়া লজ্জা পান৷ রোভিদা, ফাতেমা, কালথাম এবং হেবা এবং থুরিয়া পশ্চিমা গান শুনতে পছন্দ করেন৷ কিন্তু এইসব গানগুলো যদি ভালোবাসা, অনুভব বা স্বপ্ন সম্পর্কিত হয় তখনই তারা আরব মিউজিক শোনা শুরু করেন৷ পারস্য উপসাগরের মেট্রোপলিটন অঞ্চলে পশ্চিমের প্রভাব ছড়িয়ে পড়েছে৷ তারই অর্থ উদ্ধারের চেষ্টা করেন থুরিয়া৷ থুরিয়া অনুভব করেন, ইউরোপবাসীরা আসলে আরব সংস্কৃতিকে ভালোভাবে চেনেই না৷

একজন আরব তরুণীর স্বপ্নটা কেমন ? তাঁরা কি বিয়ে করে সংসারী হবার স্বপ্ন দেখেন ? ফাতেমা বলেন, ''অবশ্যই আমরাও বিয়ে এবং সন্তান চাই৷'' তিনি আরো বললেন, ''হতে চাই কারো প্রথম এবং সেরা স্ত্রী'' অন্য বন্ধুরাও তার সঙ্গে একমত পোষণ করলেন৷

আরব বিশ্বে মেয়েদের জোর করে ইচ্ছের বিরুদ্ধে বিয়ে দেওয়ার নিয়ম নেই৷ আবার এক্ষেত্রে বিয়ের আগে ছেলে এবং মেয়ে একে অন্যকে জানা-শোনার প্রথাটিও সেভাবে প্রচলিত নয়৷ তাই বিয়ের আগে ছেলে বা মেয়ের জন্যে সঠিক মানুষটিকে বাছতে গিয়ে বাবা-মায়েরা হিমশিম খান৷

২৫ বছরের যুবক মোহাম্মেদ আলী৷ প্রকৌশল পড়ছেন৷ অত্যন্ত আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে তিনি বললেন, ''পশ্চিমাবাসীরা কখোনো ভাবতেই পারে না যে আমরা আরো খোলামেলা হতে পারি৷ এবং তাদের চেয়ে বেশি শিক্ষিত হতে পারি৷'' তিনি বলেন, ‘‘দুবাই অত্যন্ত সমৃদ্ধ জায়গা৷ তেলের দাম ক্রমাগত উর্দ্ধমুখী হওয়াটাই আমাদের দেশে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার আসার বিষয়টি নিশ্চিত করছে৷ দুবাই কসমোপলিটন, অত্যাধুনিক এবং একই সঙ্গে ঐতিহ্যবাহী শহরও বটে৷''

সব কিছুর পরেও কিন্তু দুবাইয়ের তরুণ-তরুণীরা খুব ভালোভাবেই পশ্চিমা বিশ্ব সম্পর্কে অবহিত৷ ঠিক যেভাবে আরব বিশ্বের মেয়েরা ইউরোপের মেয়েদের জীবনযাত্রার ব্যাপারে উৎসাহী হয়ে উঠছেন৷ তেমনই অন্য সংস্কৃতির প্রতিও উৎসাহী হয়ে উঠছেন দুবাই-এর তরুণ-তরুণীরা৷

প্রতিবেদক : ফাহমিদা সুলতানা

সম্পাদনা : দেবারতি গুহ

সংশ্লিষ্ট বিষয়