1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

পশ্চিমবঙ্গে নতুন সরকার গঠনের প্রস্তুতি

একদিকে প্রস্তুতি চলছে নতুন সরকারের শপথগ্রহণের৷ অন্যদিকে বিক্ষিপ্ত রাজনৈতিক সংঘর্ষ শুরু হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের নানা জায়গায়৷

indische Eisenbahnministerin und Vorsitzende des Trinamool Congress Mamta (manchmal auch Mamata) Banerjee, Foto: DW-Hindi Korrespondenten Prabhakar Mani tewari in Kolkata, eingepflegt: Januar 2011, Zulieferer: Priya Esselborn

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

রাজ্যে রাজনৈতিক পালা বদল শুরু হতেই চাকাটা উল্টো ঘুরতে শুরু করেছে৷ এতদিন শাসকজোটের রাজনৈতিক দলগুলির হাতে আক্রান্ত হতেন বিরোধী রাজনৈতিক দলের কর্মীরা, তাঁরা নালিশ জানাতেন রাজ্যপালের কাছে৷ সোমবার বামপন্থীদের এক প্রতিনিধি দল কলকাতার রাজভবনে রাজ্যপাল এম কে নারায়ণনের সঙ্গে দেখা করে জেলায় জেলায় তৃণমূল কর্মীদের সন্ত্রাস নিয়ে স্মারকলিপি দেন৷ আবেদন জানান, যেন বাম কর্মীদের উপর এই আক্রমণ বন্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়৷ স্মারকলিপি দিয়ে রাজভবনের বাইরে এসে বাম প্রতিনিধিদলের অন্যতম সদস্য সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিম সাংবাদিকদের জানান, রাজ্যপাল এ ব্যাপারে অবিলম্বে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন৷

উল্লেখ্য, প্রথমে মেদিনীপুরের গড়বেতায় এবং তার পর বাঁকুড়ার তালড্যাংরায় রাজনৈতিক হিংস্রতার শিকার হয়েছেন বাম কর্মীরা৷ অন্য দিকে দক্ষিণ ২৪ পরগণার ভাঙড়ে তৃণমূল কর্মীরা আক্রান্ত হয়েছেন৷ সব মিলিয়ে এ পর্যন্ত প্রাণহানি হয়েছে চার জনের৷ কলকাতা এবং শহরতলি অঞ্চলেও বিক্ষিপ্ত হামলার খবর পাওয়া গিয়েছে৷ রাজ্যপাল এদিনই রাজ্য প্রশাসন এবং পুলিশ কর্তাদের ডেকে পরিস্থিতির খতিয়ান নিয়েছেন৷

এদিকে এদিনই রাজ্যপাল এক ফ্যাক্সবার্তায় তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সরকার গড়ার আনুষ্ঠানিক আমন্ত্রণ জানিয়েছেন৷ প্রধানমন্ত্রী এবং সনিয়া গান্ধীর সঙ্গে দেখা করতে মমতা এদিন ছিলেন দিল্লিতে৷ ২০ মে কলকাতায় নতুন মন্ত্রীসভার শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে দুজনকেই হাজির থাকার অনুরোধ জানান মমতা৷ তবে প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং সেসময় বিদেশ সফরে থাকবেন বলে আসতে পারবেন না৷ সনিয়া সম্ভবত হাজির থাকবেন৷

পশ্চিমবঙ্গে প্রশাসনিক ক্ষমতার কেন্দ্র মহাকরণেও গত দুদিন ধরে সাজো সাজো রব৷ নতুন মুখ্যমন্ত্রীর জন্য নতুন সাজে সেজে উঠছে তাঁর দপ্তর৷ বেশ কিছু অদলবদল করা হচ্ছে সচিবালয়ে, অতিথিদের অপেক্ষার জায়গায়৷

প্রতিবেদন: শীর্ষ বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়