1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

পর্তুগালে নতুন ডাইনোসরের চিহ্ন

উত্তর অ্যামেরিকার পর এবার ইউরোপের ভূখণ্ডে খুঁজে পাওয়া গেল বিশালাকার মাংসাশী ডাইনোসরের জীবাশ্ম৷ টিরানোসরাস এক্স-এর থেকেও বড় ও হিংস্র এই প্রাণী অনেক রহস্য সমাধানের চাবিকাঠি হতে পারে৷

‘জুরাসিক পার্ক' ছবির কল্যাণে ডাইনোসর আজ আরও পরিচিত হয়ে উঠেছে৷ কিন্তু তাদের সম্পর্কে আমাদের সব কিছু এখনো জানা হয়নি৷ এই যেমন সম্প্রতি পর্তুগালে একেবারে নতুন প্রজাতির ডাইনোসরের জীবাশ্ম আবিষ্কৃত হয়েছে৷ নাম – টোরভোসরাস গুরনেয়ি৷ টিরানোসরাস এক্স-এর মতো চরিত্রের এই ডাইনোসর প্রায় ১৫ কোটি বছর আগে পৃথিবীর বুকে দাপিয়ে বেড়াতো৷ ইউরোপে এর আগে এত বড় আকারের ডাইনোসরের খুঁজে পাওয়া যায় নি৷ জুরাসিক যুগের অন্যান্য প্রাণীদের মধ্যেও এত বড় ডাইনোসর পাওয়া কঠিন৷

টোরভোসরাস টিরানোসরাস এক্স-এরও ৮ কোটি বছর আগে পৃথিবীতে বসবাস করতো৷ ভয়ংকর হিংস্র এই প্রাণীর সামনে বাকিরা অসহায় বোধ করতো৷ মাংসাশী এই প্রাণী দু'পায়ের উপর দাঁড়িয়ে থাকতো৷ দাঁত ছিল ব্লেডের মতো ও প্রায় ১০ সেন্টিমিটার লম্বা৷ বিজ্ঞানীদের ধারণা, এদের উচ্চতা ১০ মিটার পর্যন্ত হতে পারতো৷ ওজন ৪ থেকে ৫ টন৷

Filmszene Jurassic Park 1993

অ্যামেরিকায় টোরভোসরাস টানেরির যে জীবাশ্ম পাওয়া গেছে, তাদের সঙ্গে পর্তুগালের টোরভোসরাস গুরনেয়ির মিল রয়েছে

এর আগে উত্তর অ্যামেরিকায় টোরভোসরাস টানেরি নামের যে ডাইনোসরের জীবাশ্ম পাওয়া গেছে, তাদের সঙ্গে পর্তুগালের টোরভোসরাস গুরনেয়ির মিল রয়েছে, হয়ত আত্মীয়তাও ছিল বলে মনে করা হচ্ছে৷ তবে দুই মহাদেশে এদের বিবর্তন আলাদাভাবে হয়েছে৷

বিচ্ছিন্নভাবে নতুন এই ডাইনোসর প্রজাতির জীবাশ্মের আবিষ্কার বেশ সাড়া ফেলেছে৷ কিন্তু এর একটা অন্য মাত্রাও রয়েছে৷ জুরাসিক যুগের ‘ফুড চেন' বা খাদ্য-খাদকের শৃঙ্খলা সম্পর্কেও এবার নতুন করে ভাবনা-চিন্তা করতে হবে৷ মাংসাশী এই দৈত্য সমসাময়িক নিরামিশাষী সরোপড জাতীয় ডাইনোসরকে অনায়াসে খেয়ে ফেলতো৷ এছাড়া দুই মহাদেশে ডাইনোসারদের বিবর্তনের তুলনামূলক বিশ্লেষণের কাজও কয়েক ধাপ এগিয়ে গেলো বলে বিজ্ঞানীরা মনে করছেন৷

এসবি/ডিজি (ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন