1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

পরিবেশ সংরক্ষণে অবদান রাখছে ক্যাটালিস্ট

বার্লিনের রসায়নবিদ মাটিয়াস ড্রিসের নেতৃত্বে বিজ্ঞানীরা ভবিষ্যতে রসায়নকে আরও পরিবেশ-বান্ধব করে তোলার চেষ্টা করছেন৷ তার জন্য তাঁরা সঠিক ক্যাটালিস্ট-এর খোঁজ করছেন৷

টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটি বার্লিনের মাটিয়াস ড্রিস তাঁদের উদ্যোগ সম্পর্কে বললেন, ‘‘কোনো রাসায়নিক প্রতিক্রিয়ার গতি বাড়ানোই ক্যাটালিস্টের দায়িত্ব৷ এটাই তার কাজ৷ যেমন প্রতিটি পরমাণুকে পথ দেখিয়ে দেয় সেটি৷ ক্যাটালিস্ট আবর্জনা সৃষ্টি হতে দেয় না৷ ফলে সেটি পরিবেশের ক্ষতি হতে দেয় না৷''

ড্রিস আসলে এক ক্যাটালিস্ট গবেষণা প্রকল্পের মুখপাত্র৷ প্রকল্পের নিজস্ব ম্যাসকট এই ভালুক৷ বার্লিন ও আশেপাশের অঞ্চলের বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান এই নেটওয়ার্কে যুক্ত৷ ২৪০ জন বিজ্ঞানী এই প্রকল্পের জন্য কাজ করছেন৷

তাঁরা এমন সব ক্যাটালিস্টের খোঁজ করছেন, যেগুলির সাহায্যে ক্ষতিকারক মিথেনকে এথিলিনে রূপান্তরিত করা যাবে৷ শিল্পক্ষেত্রে অনেক পণ্যের মৌলিক উপাদানই এথিলিন৷ মাটিয়াস ড্রিস বললেন, ‘‘যে দিকেই তাকান, দেখবেন এথিলিনের চাহিদা রয়েছে৷ এতকাল পেট্রোলিয়াম থেকেই তা পাওয়া যেত৷ কিন্তু পেট্রোলের ভাণ্ডার কমেই চলেছে৷ ফলে আমাদের বিকল্প উৎসের খোঁজ করতেই হচ্ছে৷ মিথেনও এমন এক উৎস৷''

পরীক্ষার জন্য যে সব ক্যাটালিস্টের প্রয়োজন, তা গবেষকদের নিজেদেরই তৈরি করে নিতে হয়৷ বেশিরভাগের মধ্যেই নিকেল জাতীয় ধাতু থাকে৷

২০০৭ সালে রসায়নে নোবেল বিজয়ী বিজ্ঞানী ও ক্যাটালিস্ট গবেষণার জনক গেয়ারহার্ড অ্যার্টল এই প্রকল্পের উপর নজর রাখছেন৷ বহু দশক ধরে তিনি গভীর আগ্রহের সঙ্গে ক্যাটালিস্ট প্রকল্পের উপর নজর রাখছেন৷ মিথেন থেকে এথিলিন বের করা কতটা গুরুত্বপূর্ণ, তিনি সেটা বুঝিয়ে বললেন৷ তিনি বললেন, ‘‘এই রূপান্তর প্রক্রিয়া অপরিহার্য৷ অনেক দিন ধরেই চেষ্টা চলছে, সাফল্যও পাওয়া গেছে৷ কিন্তু সমস্যা হলো, এর খরচ এখনো খুব বেশি৷ আগামী কয়েক বছরে এ নিয়ে আরও কাজ করতে হবে৷''

একশো বছর আগেও বার্লিনের পশ্চিম এলাকা বিজ্ঞান চর্চার কেন্দ্র ছিল৷ আজ গবেষকরা এক ধরনের মিনি-কারখানায় বড় আকারে মিথেনকে এথিলিনে রূপান্তরিত করছেন৷ অ্যার্টল ঠিক এটাই চাইছিলেন৷ মাটিয়াস ড্রিস বললেন, ‘‘গেয়ারহার্ড অ্যার্টল আমাদের একটি পথ দেখিয়েছেন৷ দীর্ঘ সময় ধরে ধৈর্য ধরে গবেষণা চালিয়ে নতুন নতুন পদ্ধতির মাধ্যমে সমস্যার সমাধানের চেষ্টা করেছেন৷''

আজ তরুণ প্রজন্মের গবেষকরা এখানে কাজ করছেন৷ ক্যাটালিস্ট গবেষণা সফল হবে কি না, সেটা তাদের কাজের উপরও নির্ভর করছে৷ পরিবেশবান্ধব রসায়নের সাফল্যও এর সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে৷

ইন্টারনেট লিংক

সংশ্লিষ্ট বিষয়