1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

পরমাণু জ্বালানি উৎপাদনের ঘোষণা দিল ইরান

পশ্চিমা দেশগুলোর মতামতকে এক প্রকার তোয়াক্কা না করেই উচ্চ মাত্রার পরমাণু জ্বালানি উৎপাদন শুরুর ঘোষণা দিয়েছে ইরান৷ রোববার ইরানের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আহমাদিনেজাদ এই ঘোষণা দেওয়ার পর পশ্চিমা দেশগুলো তীব্র প্রতিক্রিয়া জানায়৷

default

পশ্চিমা বিশ্বকে থোড়াই কেয়ার করেন আহমাদিনেজাদ

ইরানের পরমাণু জ্বালানি উৎপাদন নিয়ে গত বেশ কয়েকদিন ধরে আন্তর্জাতিক মহল ও ইরানি সরকারের মধ্যে টানা হেঁচড়া চলছে৷ স্বল্প মাত্রার ইউরেনিয়াম অন্য দেশে পাঠানোর প্রস্তাব প্রথমদিকে না মানলেও চলতি সপ্তাহে তাতে ইতিবাচক সাড়া দেয় ইরান৷ তবে এরপরও আন্তর্জাতিক মহলের পুরোপুরি আস্থা অর্জন করতে পারেনি দেশটি৷ এই অবস্থাতেই রোববার ইরানের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আহমাদিনেজাদ উচ্চ মাত্রার পরমাণু চুল্লি জ্বালানি উৎপাদনের ঘোষণা দিয়েছেন বলে জানিয়েছে ইরানের টেলিভিশন৷ এসময় তিনি বলেন, ‘আমরা তাদের চুক্তির জন্য দুই থেকে তিন মাস সময় দিয়েছিলাম৷ এখন তারা নতুন করে খেলা শুরু করেছে এবং আমি ড. সালেহিকে বলেছি সেন্ট্রিফিউজ ব্যবহার করে ২০ শতাংশ প্রবৃদ্ধিতে জ্বালানি নির্মান করার জন্য৷ তবে আলোচনার দ্বার এখনও উন্মুক্ত৷'

Techniker in iranischer Uran-Aufbereitungsanlage

পরমাণু শক্তি কেন্দ্রে কর্মরত ইরানি বিজ্ঞানী

এদিকে ইরানের পরমাণু জ্বালানি সংগঠনের প্রধান ড. আলি আকবর সালেহি আল আলাম টেলিভিশনকে রোববার বলেছেন, আমরা আন্তর্জাতিক আনবিক শক্তি সংস্থাকে আগামীকাল চিঠি দেবো৷ তাতে আমরা বলবো যে আমরা মঙ্গলবার থেকে ২০ শতাংশ হারে সমৃদ্ধ জ্বালানি উৎপাদন শুরু করতে যাচ্ছি৷

এদিকে ইরানের নতুন এই ঘোষণায় তীব্র নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে পশ্চিমা দেশগুলো৷ মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রবার্ট গেটস এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন যদি আন্তর্জাতিক মহল এক হয়ে দাঁড়ায় এবং ইরানি সরকারকে চাপ দেয়, তাহলে আমি মনে করি নিষেধাজ্ঞা আরোপের আরও সময় এখনও রয়েছে৷ অন্যদিক মার্কিন ডেমোক্রেট সিনেটর জন কেরি বলেছেন, ‘আমি মনে করি পরিস্থিতি কিভাবে শান্ত করা যায় সে ব্যাপারে আন্তর্জাতিক মহলের বার্তাটি এখনও ইরান বুঝে উঠতে পারছে না৷ মনে হচ্ছে তারা বিরোধই চাচ্ছে এবং এভাবেই এগোতে চাচ্ছে৷'

এদিকে জার্মান প্রতিরক্ষামন্ত্রী কার্ল থিওডর সু গুটেনবেয়ার্গ বলেছেন, ইরানকে বুঝিয়ে দেওয়া উচিত যে ধৈর্য এখন শেষ পর্যায়ে৷ তবে নিরাপত্তা পরিষদের অন্যতম স্থায়ী সদস্য চীন এখনও আলাপ আলোচনার পক্ষে৷ তারা এখনই ইরানের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিরোধী৷

প্রতিবেদক: রিয়াজুল ইসলাম, সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সংশ্লিষ্ট বিষয়