1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

পরমাণু আলাপ-আলোচনায় সাফল্যের শেষ চেষ্টা

সোমবার গ্রিনউইচ মান সময় রাত এগারোটায় মেয়াদ শেষ হচ্ছে ২০১৩ সালে কৃত মধ্যকালীন সমঝোতার৷ বিশ্ব নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ স্থায়ি সদস্যদেশ সহ জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা কি ইরানকে রাজি করাতে পারবেন?

লক্ষণ দেখে তা মনে হচ্ছে না৷ যদিও পরমাণু শক্তির প্রশ্নে ইরানের সঙ্গে পশ্চিমের গত ১২ বছরের বিরোধের অন্ত ঘটানোর সম্ভবত এটাই ছিল সেরা সুযোগ – যদিও শেষ সুযোগ নয়, কেননা খেলার পরে যেমন থাকে ‘এক্সট্রা টাইম', ম্যাচের পরে ফিরতি ম্যাচ, ঠিক সেভাবেই এই মওকা হাতছাড়া হলেও, এই আলাপ-আলোচনা কয়েক সপ্তাহের জন্য বন্ধ রেখে আবার চালু করা যেতে পারে৷ নয়ত মধ্যকালীন সমঝোতায় কিছু নতুন শর্ত যোগ করে তার মেয়াদ আগামী বছর অবধি বাড়িয়ে দেওয়া যেতে পারে৷

গত শুক্রবার থেকে ভিয়েনায় যে কূটনৈতিক ‘ব্লিৎস' শুরু হয়েছে, তা যে মূল সমস্যাগুলি সমাধানে সফল হয়েছে, এমনটা ঠিক বলা চলে না – সংশ্লিষ্ট পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা যেন আশা-নিরাশার দোলায় ভাসছেন: ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফিলিপ হ্যামন্ড যেখানে আশাবাদী, জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফ্রাংক-ভাল্টার স্টাইনমায়ার সেখানে ইরান এবং ছয় শক্তির মধ্যে গভীর ব্যবধানের কথা বলেছেন৷ এই আলাপ-আলোচনা যদি সফল হয়, তবে তা-তে সবচেয়ে বেশি উপকৃত হবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা এবং ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রোহানি৷ এ পক্ষ চায় ইরানের আণবিক বোমা তৈরির সম্ভাবনা চিরকালের মতো দূরীভূত করতে; ও পক্ষ চায় যথাশীঘ্র এবং যাবতীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থার পূর্ণাঙ্গ প্রত্যাহার৷ এবং দু'পক্ষকেই শেষমেষ আপোশের কোনো একটা ফর্মুলা মেনে নিতে হবে৷

সে আপোশের ফর্মুলা যে কী হবে, তা কারো জানা নেই৷ দৃশ্যত ইরান কোনোমতেই ইউরোনিয়াম সমৃদ্ধিকরণ বন্ধ করতে, এমনকি কমাতে পর্যন্ত রাজি নয়৷ অপরদিকে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা কমিয়ে পশ্চিমের যে কী লাভ হবে, তা নিয়ে পশ্চিমেও সন্দেহের কমতি নেই৷ উত্তরোত্তর আলাপ-আলোচনার জন্য ‘ঘড়িতে আরো সময় ভরো', চলতি সমঝোতার মেয়াদ বাড়িয়ে দাও – এ সব করে হাতে আরো কিছু সময় পাওয়া যাবে বটে; কিন্তু সময়ই তো এই বিরোধে একটা মূল সমস্যা৷ সময় যত যাবে, ততই ইরান আণবিক বোমা তৈরির জন্য আরো বেশি সময় পাবে৷ ওদিকে ইসরায়েল আগে থেকেই হুমকি দিয়ে বসে আছে যে, তারা ইরানের পরমাণু বোমার অধিকারী হওয়াটা কোনো পরিস্থিতিতেই বরদাস্ত করবে না৷ সৌদি আরবও ইরানের পারমাণবিক উচ্চাশায় আদৌ সুখি নয়৷ ইরান আণবিক বোমা তৈরি করলে গোটা অঞ্চলটায় একটা বড় আকারের সংকট দেখা দেবে৷

কাজেই মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভাদ জারিফ-এর সঙ্গে ষষ্ঠবারের জন্য মিলিত হয়েছেন৷ রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ অবশ্যই একজন ‘কি প্লেয়ার'; আরো বড় কথা, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিন নাকি আজ স্বয়ং কথা বলবেন ইরানের প্রেসিডেন্ট রোহানির সঙ্গে, জানাচ্ছে রুশ ইটার-টাস সংবাদ-সংস্থা৷ চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই আজ ভিয়েনা পৌঁছেছেন৷ ফরাসি পররাষ্ট্রমন্ত্রী লরঁ ফাবিয়ুস তো গোড়া থেকেই উপস্থিত৷

ওদিকে মার্কিন কংগ্রেসের উভয় কক্ষে ‘হার্ডলাইন' রিপাবলিকানদের আধিপত্য শুরু হতে চলেছে৷ এবার যদি রিপাবলিকানরা ইরানের বিরুদ্ধে আরো শাস্তিমূলক ব্যবস্থা দাবি করেন, তাহলে ইরানের সঙ্গে আলাপ-আলোচনার ভরাডুবি: এ কথা বলেছেন প্রেসিডেন্ট ওবামা স্বয়ং৷

এসি/ডিজি (এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন