1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

পরকীয়ার জন্য অধিনায়কত্ব খোয়ালেন টেরি

অবশেষে পরকীয়ার খেসারত দিলেন ইংলিশ ফুটবল দলের অধিনায়ক জন টেরি৷ দলের আর্মব্যান্ড পরার অধিকার কেড়ে নিলেন কোচ ফ্যাবিও ক্যাপেলো৷ তবে কোচের সিদ্ধান্ত মাথা পেতে নিয়েছেন টেরি৷

default

সতীর্থদের সঙ্গে জন টেরি (ফাইল ফটো)

গত কয়েকদিন ধরেই ব্রিটিশ গণমাধ্যমে বেশ রসের জোগাড় দিয়েছে জন টেরির পরকীয়ার কাহিনী৷ দুই সন্তানের পিতা টেরি এতদিন ধরে গোপনে গোপনে প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছিলেন অন্তর্বাসের মডেল কন্যা ভানেসা পেরোনসেলের সঙ্গে৷ একে তো পরকীয়া, তার ওপর ভানেসা হচ্ছেন ইংলিশ ফুটবল দলের খেলোয়াড় ওয়েইন ব্রিজ এর সাবেক বান্ধবী৷ দুজনের মধ্যে ছাড়াছাড়ি হয়ে যাওয়ার কারণ টেরি কিনা সেটি এখনও জানা যায়নি৷ কারণ টেরি-ভানেসা কাহিনী যাতে খবরওয়ালারা জানতে না পারে সেজন্য আগে থেকেই টেরি আদালতের নিষেধাজ্ঞা আদায় করে নিয়েছিলেন৷ কিন্তু গত সপ্তাহে হাইকোর্ট সেই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার পর আর সামলে রাখা যায়নি সাংবাদিকদের৷ একের পর এক সচিত্র টেরি-ভানেসা কাহিনীতে তোলপাড় হয়ে যায় গোটা ইংলিশ ফুটবল জগত৷ স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনার প্রভাব পড়েছে ফুটবল দলের ড্রেসিং রুমেও৷ তবে এখন পর্যন্ত কোন কিছু প্রকাশ পায়নি মূলত খেলোয়াড়দের কোড অব কন্ডাক্ট এর কারণেই৷

Fußballnationalmannschaft England Flash-Galerie

ইংলিশ ফুটবল দল

এদিকে আর মাত্র পাঁচ মাস পর বিশ্বকাপ ফুটবল৷ এই সময়ে খোদ দলের অধিনায়কের এই ধরণের অনৈতিক কর্মকান্ড মেনে নিতে পারেনি ভক্তরা, একইসঙ্গে ফুটবল কর্মকর্তারাও৷ টেরিকে অধিনায়কের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার জন্য ক্যাপেলোর ওপর গত কয়েকদিন ধরেই চাপ বাড়ছিলো বলে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের খবর থেকে জানা যায়৷

অবশেষে এই চাপের কারণেই টেরিকে সরিয়ে দিলেন ক্যাপেলো৷ গত ২০০৮ সালের আগস্টে টেরিকে অধিনায়ক হিসেবে নির্বাচিত করেছিলেন তিনি৷ তখন অনেকেই ফার্ডিনান্ড কিংবা জেরার্ডকে অধিনায়ক হিসেবে ধরে নিয়েছিলো৷ কিন্তু টেরির ওপর আস্থা রেখেছিলেন ক্যাপেলো৷ জানা গেছে, শুক্রবার ওয়েম্বলিতে ফুটবল এসোসিয়েশনে টেরির সঙ্গে একান্তে কথা বলেন ক্যাপেলো৷ মাত্র ১২ মিনিটের আলাপ শেষে ইংলিশ অধিনায়ক যখন বের হন তখন তাঁর চেহারা দেখেই বোঝা যাচ্ছিল কি ঘটতে চলেছে৷ এবং তাই হলো, ক্যাপেলো জানিয়ে দিলেন, দলের ভালোর কথা বিবেচনা করেই টেরিকে অধিনায়কের পদ থেকে সরিয়ে দিচ্ছেন তিনি৷ যদিও অধিনায়ক হিসেবে টেরির প্রশংসা করেছেন ইংল্যান্ড দলের প্রধান কোচ৷ এদিকে পরবর্তী অধিনায়ক হিসেবে ফার্ডিনান্ডের দিকে ইঙ্গিত করেছেন ক্যাপেলো৷

Fussball - Die Englische Nationalmannschaft beim Training in Berlin

ইংল্যান্ড জাতীয় দলের কোচ ফ্যাবিও ক্যাপেলো (ফাইল ফটো)

ভারতে যেমন ক্রিকেট, তেমনি ইংল্যান্ডে ফুটবল, যাতে নাক গলান সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত৷ ইংলিশ অধিনায়ককে সরিয়ে দেওয়ার পরে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী গর্ডন ব্রাউন সমর্থন করেছেন এই সিদ্ধান্তকে৷ তিনি বলেছেন, আমি আশা করি মানুষ এটা মেনে নেবে৷ তবে মানুষ মানুক আর না ই মানুক জন টেরি কিন্তু ঠিকই মেনে নিয়েছেন৷ তিনি বলেছেন, আমি ক্যাপেলোর সিদ্ধান্তকে পুরোপুরি সম্মান করি৷ ইংল্যান্ডের জন্য আমি সবই দিয়ে দেব৷ অন্যদিকে টেরির নতুন বান্ধবী ভানেসা মর্মাহত হয়েছেন টেরির অধিনায়কত্ব চলে যাওয়ায়৷ তবে তিনি জানিয়েছেন যে এই প্রেমের কাহিনী তিনি ব্রিটিশ মিডিয়ার কাছে বিক্রি করবেন না৷

প্রতিবেদক: রিয়াজুল ইসলাম, সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সংশ্লিষ্ট বিষয়