1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

পপুলিজমের উত্থানে দুর্নীতি বৃদ্ধির আশঙ্কা

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল দুর্নীতির ধারণা সূচক প্রকাশ করেছে৷ সূচক পর্যবেক্ষণ করে দুর্নীতিবিরোধী আন্তর্জাতিক সংস্থাটি বলেছে, বিভিন্ন দেশে তথাকথিত জনপ্রিয় ধারার উত্থান যাতে দুর্নীতি না বাড়ায় সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে৷

প্রতিবছরের মতো এবারও করাপশন পার্সেপশন ইনডেক্স, অর্থাৎ দুর্নীতির ধারণা সূচক প্রকাশ করেছে টিআই৷ সূচকটি তৈরি হয়েছে মূলত বিশ্বব্যাংক, আফ্রিকান উন্নয়ন ব্যাংক, দ্য ইকনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট এবং আরো কয়েকটি সংস্থার প্রতিবেদনের ভিত্তিতে৷ বিশ্বের মোট ১৭৬টি দেশকে নিয়ে প্রকাশিত এ সূচকে এবার বাংলাদেশের কিছুটা উন্নতি হয়েছে৷ গত বছর বিশ্বের সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় বাংলাদেশ ছিল ১৩তম অবস্থানে, এ বছর হয়েছে ১৫তম৷

অবশ্য ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) মনে করে এই পরিবর্তন খুব গুরুত্বপূর্ণ নয়৷ তারা মনে করে, এ বছর নতুন নতুন দেশ যোগ হয়েছে বলে বাংলাদেশের অবস্থানে এই পরিবর্তন এসেছে৷

স্মরণ করা যেতে পারে যে, ২০০১ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত টানা পাঁচ বছর বিশ্বের সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত দেশ হয়েছিল বাংলাদেশ৷ তারপর থেকে সূচকে ধীরে ধীরে উন্নতি লক্ষ্য করা গেলেও বিশেষজ্ঞদের অনেকেই মনে করেন, বাংলাদেশে প্রকৃতপক্ষে দুর্নীতি খুব বেশি কমেনি৷

এ বছর বিশ্বের সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত দেশ হয়েছে সোমালিয়া৷ অন্যদিকে সবচেয়ে কম দুর্নীতির দেশ হয়েছে ডেনমার্ক ও নিউজিল্যান্ড৷ দু'টি দেশই ১০০-র মধ্যে ৯০ পয়েন্ট পেয়েছে৷ সবচেয়ে কম দুর্নীতির দেশগুলোর মাঝে শীর্ষ পাঁচের বাকি চারটি দেশ হলো ফিনল্যান্ড, সুইডেন, সুইজারল্যান্ড ও নরওয়ে৷

বুধবার দুর্নীতির ধারণা সূচক প্রকাশের দিনে টিআই-এর চেয়ারম্যান হোসে উগাজ এক সংবাদ সম্মেলনে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পপুলিস্টদের রমরমা অবস্থা ননিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন৷ টিআই মনে করে, স্রেফ জনপ্রিয় ধারারই অনুসারী রাজনিতিবিদরা ক্ষমতায় আসায় দুর্নীতি বাড়বে৷

সংবাদ সম্মেলনে হোসে উগাজ বলেন, যেসব দেশে পপুলিস্ট বা একনায়কতান্ত্রিক শাসন চলছে, সেসব দেশে পুঁজিবাদকে সামলানোর নামে আরো খারাপ এবং দুর্নীতিগ্রস্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে৷

টিআই-র গবেষণা পরিচালক ফিন হাইনরিশ ডয়চে ভেলেকে বলেন, ২০১৫ সালের তুলনায় এ বছর অনেক বেশি দেশের দুর্নীতি পরিস্থিতির উন্নতির চেয়ে বেশি অবনতি হয়েছে৷ দুর্নিতি বৃদ্ধির আশঙ্কা সম্পর্কে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিতে গিয়ে ইটালি এবং বাংলাদেশের দৃষ্টান্ত তুলে ধরেছেন তিনি৷ ভবন নির্মানে দুর্নীতির জন্য ইটালিতে ভূমিকম্পের সময় অনেক ভবন ধসে পড়া এবং বাংলাদেশে রানা প্লাজা ধসে পড়ার কথা উল্লেখ করে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনালের গবেষণা পরিচালক বলেন, ‘‘দুর্নীতি কিন্তু ভয়ংকর হয়ে উঠতে পারে৷ আমরা মনে করি, বর্তমান বিশ্বে দুর্নীতি সবচেয়ে ক্ষতিকর একটি সমস্যা৷''

এসিবি/ডিজি (এএফপি, ডিপিএ, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়