পথ দুর্ঘটনা প্রতিরোধে আইন সংশোধন করতে চায় হাসিনা সরকার | বিশ্ব | DW | 02.04.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

পথ দুর্ঘটনা প্রতিরোধে আইন সংশোধন করতে চায় হাসিনা সরকার

সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে প্রচলিত আইন সংশোধনের চিন্তা করছে সরকার৷ সড়ক দুর্ঘটনায় কেউ নিহত হলে প্রচলিত আইনে দায়ী ব্যক্তি বা চালকের সর্বোচ্চ শাস্তি সাড়ে ৩ বছরের কারাদণ্ড৷ এই আইন দিয়ে সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধ করা সম্ভব নয়৷

default

যানবাহনের সংখ্যা বাড়ার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে দুর্ঘটনাও

সাধারণ মানুষ মনে করেন দেশে সড়ক দুর্ঘটনার অন্যতম কারণ চালকদের বেপরোয়া আচরণ৷ আর অধিকাংশ চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্সই ভুয়া৷ তাঁদের মতে, যার লাইসেন্স নেই তার কারণে কোন যাত্রী বা পথচারীর মৃত্যু হলে সেটাতো দুর্ঘটনা হতে পারে না৷ সেটা হত্যাকাণ্ড৷ প্রচলিত আইন সংশোধন না করলে দুর্ঘটনার নামে এই হত্যাকাণ্ড কমানো যাবে না৷

সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইসরাফিল আলম এমপি সাধারণ মানুষের এই কথার সঙ্গে একমত৷ তিনি ডয়চে ভেলেকে বলেন, নিরাপদ সড়কের জন্য সরকার নানা উদ্যোগ নিচ্ছে৷ তবে এর জন্য আইনগত সংস্কারেরও প্রয়োজন রয়েছে৷ কারণ চালকদের অদক্ষতার জন্যই ঘটছে দুর্ঘটনা বেশি পরিমাণে৷ তিনি জানান, সরকার প্রচলিত আইনটি তাই সংশোধনের চিন্তা করছে৷ আর এই আইন সংশোধনে সরকারের উপর চাপও রয়েছে৷

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্ঘটনা গবেষণা কেন্দ্রের হিসাব অনুযায়ী, বাংলাদেশে প্রতিবছর সড়ক দুর্ঘটনায় গড়ে পাঁচ হাজার মানুষ নিহত হন৷ আর সড়ক দুর্ঘটনায় বছরে আর্থিক ক্ষতির পরিমাণ সাড়ে পাঁচ হাজার কোটি টাকা৷ গত ১০ বছরে সড়ক দুর্ঘটনা দ্বিগুণ বেড়েছে৷

প্রতিবেদন : হারুন উর রশীদ স্বপন, ঢাকা

সম্পাদনা : সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সংশ্লিষ্ট বিষয়