1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

পথশিশুদের সহায়তায় ‘সেল্ফি’ ইভেন্ট

বাংলাদেশের পথশিশুদের সহায়তা শুরু হয়েছে ভিন্ন আঙ্গিকের এক ফেসবুক ইভেন্ট৷ এতে পথশিশুদের সঙ্গে নিজেদের ছবি নিজেরা তোলা বা সেল্ফি তোলার আহ্বান জানানো হচ্ছে৷ তবে তার আগে শিশুটিকে নতুন জামা দিতে হবে৷

ফেসবুক ইভেন্টের শিরোনাম, ‘‘ব্রিং স্মাইল টু ওয়ান স্ট্রিট চাইল্ড ইন দিস ঈদ৷'' ৪ জুলাই থেকে ৩১ জুলাই অবধি বিস্তৃত এই ইভেন্টে ইতোমধ্যে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করেছেন ৩৯৭ জন৷ এই সংখ্যা ক্রমশই বাড়ছে৷

ইভেন্টের পাতায় লেখা হয়েছে, ‘‘নাহ, আমরা বিকাশ একাউন্টে টাকা চাচ্ছি না৷ একটা সেল্ফি, হ্যাঁ ঠিকই শুনেছেন একটা সেল্ফি৷ আপনার দেয়া নতুন জামা পরা একটি পথশিশুর সেল্ফি পোস্ট করুন এই ইভেন্টে৷

‘‘হয়ত আপনার মতো আরেকজন এগিয়ে আসবে, আমরা দেখবো অনেক গুলো হাসি, কি পারবেন? নাহলে আসুন মুড়ি খাই৷''

ইভেন্ট পাতায় প্রথম সেল্ফিটি সম্ভবত পোস্ট করেছেন নিরব খান৷ এক পথশিশুর সঙ্গে তোলা সেলফির ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, ‘‘ছিন্নমূল শিশুদের নিয়ে আমিও চেষ্টা করছি৷ আর এসএ টিভিতে প্রতিদিন বিকেল পাঁচটা বিশ মিনিটে উদ্যোগটা দেখানো হয়৷''

সেল্ফি তোলার ব্যতিক্রমী এই ইভেন্ট ফেসবুকে শেয়ার করছেন অনেকে৷ এদেরই একজন জিনাত জোয়ার্দার রিপা৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘একটা ইভেন্টের মূল ভাষা পড়ে শেয়ার না দিয়ে পারা গেল না৷''

এদিকে, পথশিশুদের সহায়তায় আমার ব্লগে আরেক উদ্যোগের কথা জানিয়েছেন শিমুল জিতু৷ তাঁর লেখার শিরোনাম, ‘‘সাহায্য চাই এক চিলতে হাসির জন্যে৷''

জিতু লিখেছেন, ‘‘কাজটা আমরা করতে চাই আমার এলাকায়, অর্থাৎ নোয়াখালীর প্রধান শহর মাইজদীতে৷ প্রায় ১০০ শিশুর হাতে আমরা নতুন জামা তুলে দেওয়ার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি৷''

তিনি লিখেছেন, ‘‘আসুন আমরা শুরু করি৷ একটি সামাজিক আন্দোলন তৈরি করি দরিদ্রতার বিরুদ্ধে, অনিয়মের বিরুদ্ধে৷ আমাদের কাউকে তো শুরু করতে হবে৷ এই ধরুন আমার দিক থেকে আমি করলাম৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন