1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

পণবন্দি ভারতীয় নাবিকদের ভাগ্য অনিশ্চয়তায়

সোমালি জলদস্যুদের হাতে পণবন্দি ভারতীয় নাবিকদের উদ্ধারে সরকারের নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগে সংসদের ভিতরে ও বাইরে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়ে সম্ভাব্য সবকিছু করার আশ্বাস দিয়ে আজ সরকার ব্যাক-ডোর চেষ্টা চালাবার কথা বলেন৷

default

সোমালিয়ার জলদস্যুদের এই ছবিটি(ফাইল ফটো) তুলেছে মার্কিন নৌবাহিনী

সোমালি জলদস্যুদের হাতে দীর্ঘদিন পণবন্দি ভারতীয় নাবিকদের ছাড়িয়ে আনতে সরকার সম্ভাব্য সবকিছু করার আশ্বাস দিয়েছে৷ তবে আবেগতাড়িত হয়ে এই কাজে তাড়াহুড়ো করতে গেলে হিতে বিপরীত হতে পারে৷ আজ সংসদের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় বিরোধী সাংসদের সমালোচনার উত্তরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস.এম কৃষ্ণা বলেন, বিষয়টি গুরুতর এবং গভীর দুশ্চিন্তার কারণ৷ সরকারের কাছে নাবিকদের নিরাপত্তাই সবার উপরে৷ ব্যবস্থা নিতে হবে পরিস্থিতির বাস্তবতা খতিয়ে দেখে৷ এজন্য কোন সময়সীমা বেঁধে দেয়া যায়না৷ ব্যাক-ডোর বা নেপথ্যে তৎপরতা চলেছে৷ কায়রো ও দুবাই-এ বিভিন্ন স্তরে আলোচনা হচ্ছে৷ ভারতীয় কূটনীতিকরা বেসরকারি জাহাজ মালিকদের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলেছে৷ জাহাজ মালিকরা জলদস্যুদের সঙ্গে কথা বলছে৷ পাশাপাশি ভারতের জাহাজ চলাচল কর্তৃপক্ষ যুক্ত রয়েছে এই কাজে৷ পররাষ্ট্রমন্ত্রী স্মরণ করিয়ে দেন,ছিনতাই করা জাহাজ থেকে পণবন্দি নাবিকদের উদ্ধার করতে জলদস্যুদের বিরুদ্ধে আমেরিকা সশস্ত্র অভিযান চালাতে গেলে ৪ জন নাবিক প্রাণ হারায়৷

সরকারের কথিত নিষ্ক্রিয়তায় সরব হয়ে বিজেপি সাংসদ এস.এস আলুওয়ালিয়া আজ বিষয়টি সংসদে উত্থাপন করলে অন্যান্য বিরোধী দলের সাংসদরা তাঁকে সমর্থন করেন৷ আলুওয়ালিয়া জানতে চান, জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের গঠিত সোমালি উপকূলে জলদস্যুতা প্রতিরোধক গোষ্ঠীর সঙ্গে সরকার যোগাযোগ করেছে কিনা৷ কৃষ্ণা খবরাখবর নেবার কথা বলায় আলুওয়ালিয়া কটাক্ষ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে তাঁর জানা উচিত ছিল৷ সরকারি নিষ্ক্রিয়তার প্রসঙ্গে তিনি জানান, ১১জন ভারতীয় নাবিককে সোমালি জলদস্যুরা মুক্তি দিয়েছে স্পেন সরকারের হস্তক্ষেপে৷ স্পেন সেটা করতে পারলে ভারতীয় উপকূল রক্ষী বা নৌবাহিনী তা করতে পারছেনা কেন? সিপিআই-এম সাংসদ সীতারাম ইয়েচুরির এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী কৃষ্ণা জানান, জলদস্যুদের শিকার হচ্ছে এমন সব দেশের সঙ্গে সোমালি উপকূলে যৌথ টহলদারি চালাবার কথা ভাবা হচ্ছে৷

এমভি সুয়েজ জাহাজের ৬ জন ভারতীয় নাবিকের ভাগ্য এখন অনিশ্চয়তার মধ্যে৷ জলদস্যুদের দেয়া মুক্তিপণের সময়সীমা শেষ হচ্ছে আগামীকাল৷ ঐসব নাবিকদের আত্মীয়পরিজন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছ থেকে আশানুরূপ সাড়া না পেয়ে দ্বারস্থ হয় বিজেপি নেত্রী সুষমা স্বরাজের৷ আজ তিনি তাঁদের নিয়ে যাবেন প্রধানমন্ত্রীর কাছে৷ এর আগে এমভি আফ্রিকানা জাহাজের ১১ জন ভারতীয় নাবিককে ছেড়ে দেয় জলদস্যুরা৷ মোট ৭টি জাহাজ ছিনতাই করে সোমালি জলদস্যুরা গত বছরে৷

প্রতিবেদন: অনিল চট্টোপাধ্যায়, নতুনদিল্লি

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন