1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

নোবেল শান্তি পুরস্কার পেলেন কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট

স্বদেশে গৃহযুদ্ধের অবসান ঘটানোর প্রচেষ্টা ও ফার্ক বিদ্রোহীদের সঙ্গে শান্তিচুক্তি স্বাক্ষরের জন্য নোবেল শান্তি পুরস্কারে ভূষিত হলেন হুয়ান মানুয়েল সান্তোস৷ স্বদেশবাসী কিন্তু সেই চুক্তি প্রত্যাখ্যান করেছে৷

এ-বছরের নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য প্রার্থী বাছতে নরওয়ের নোবেল কমিটিকে ৩৭৬টি মনোনয়ন বিবেচনা করতে হয়েছে, যা কিনা একটি রেকর্ড৷ তালিকায় ছিলেন ২২৮ জন ব্যক্তি ও ১৪৮টি সংগঠন৷ কলম্বিয়ার মানুষ রবিবারের গণভোটে ফার্কের সঙ্গে শান্তিচুক্তি প্রত্যাখ্যান করা সত্ত্বেও সান্তোস আশা ত্যাগ করেননি৷ নোবেল কমিটি জানিয়েছে, ‘‘কলম্বিয়ায় শান্তি, সম্প্রীতি ও ন্যায় আনয়নের জন্য যারা সচেষ্ট'' তাঁদের উৎসাহিত করতেই সান্তোসকে পুরস্কার দেয়ার এ সিদ্ধান্ত৷

সন্তোসের সঙ্গে ফার্ক অধিনায়ক তিমোলিয়ান ‘‘তিমোচেঙ্কো'' খিমেনেস কেন নোবেল শান্তি পুরস্কার পেলেন না, কমিটির সভাপতি কাসি কুলমান ফাইভ সে-বিষয়ে কিছু বলতে রাজি হননি৷ নোবেল কমিটি অন্যান্য সম্ভাব্য প্রার্থীদের সম্পর্কে কোনো মন্তব্য করে না, বলে তিনি জানান৷ তবে তিনি বলেন যে, কলম্বিয়ায় শান্তি প্রক্রিয়া থেমে যাওয়া ও গৃহযুদ্ধ আবার শুরু হওয়ার ‘বাস্তব বিপদ' আছে৷ কাজেই প্রেসিডেন্ট সান্তোস ও ফার্ক গেরিলা নেতা রদ্রিগো লন্দনোর নেতৃত্বাধীন দুই পক্ষের যুদ্ধবিরতি মেনে চলাটা বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ৷

সান্তোস ও তিমেচেঙ্কো নোবেল শান্তি পুরস্কার পাবেন বলে ধরেই নেওয়া হচ্ছিল, কিন্তু গত দোসরা অক্টোবরের গণভোটে শান্তি চুক্তি প্রত্যাখ্যাত হওয়ার পর হাওয়া বদলে যায়৷ শান্তি পুরস্কার পাবার খবর শুনে কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট হুয়ান মানুয়েল সান্তোস জানিয়েছেন, তিনি অভিভূত এবং এই পুরস্কার কলম্বিয়ায় শান্তি প্রক্রিয়ার ভবিষ্যতের জন্য ‘অবিশ্বাস্যরকমের গুরুত্বপূর্ণ'৷

এসি/এসিবি (এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়