1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

নেফারতিতিকে ফিরে পেতে চাইছে মিশর

জার্মানিকে নেফারতিতির আবক্ষ মূর্তিটি ফিরিয়ে দিতে বলেছে মিশর৷ মিশরের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় সোমবার এইকথা বলেছে৷ প্রায় ৩,৩০০ বছরের পুরানো রানি নেফারতিতির আবক্ষ মূর্তিটি নিয়ে এই দুই দেশের মধ্যে চলে আসছে বিতর্ক৷

Bust, Nofretete, Museum, Berlin, Aegypten, Aegyptischen, Museum, Germany, নেফারতিতি, আবক্ষ, মূর্তি, মিশর,

নেফারতিতির এই আবক্ষ মূর্তি ফেরত চাইছে মিশর

‘দ্য সুপ্রিম কাউন্সিল অফ এন্টিকুইটিস' নামে আইনজীবী এবং মিশরবিদদের সমন্বয়ে গঠিত একটি কমিটির চার বছরের গবেষণার পরিপ্রেক্ষিতে জার্মানিকে এই অনুরোধ করেছে মিশর৷ এই কাউন্সিলের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘‘মিশর বিশ্বাস করে, নেফারতিতির আবক্ষ মূর্তিটি মিশরকে ফিরিয়ে দিতে জার্মান কর্তৃপক্ষ সহযোগিতা করবে৷ ''

মিশরের রাজা আখেনাতেনের স্ত্রী ছিলেন নেফারতিতি৷ নেফারতিতির চুনা পাথরের সেই আবক্ষ মূর্তিটি বর্তমানে রয়েছে বার্লিনের নয়েস বা নতুন মিউজিয়ামে৷ যা দেখতে প্রতিবছর হাজার হাজার দর্শক এই জাদুঘরটিতে আসেন৷ জার্মান মিশরবিদ লুডভিগ বোরশার্ড এবং তাঁর দল ১৯১২ সালে মিশরের নীল নদের তীরবর্তী টেল আল আমার্না খননের সময় এই মূর্তিটি আবিষ্কার করেছিলেন৷ সেইসময় এই খনন কাজে অংশ নেওয়ার কারণে ভাগ বাঁটোয়ারায় মিশর কর্তৃপক্ষের কাছ থেকেই জার্মানি পেয়েছিলো এই মূর্তিটি৷

জার্মান কর্তৃপক্ষ বলছে, ১৯১৩ সালে আইনসঙ্গতভাবেই জার্মানি এটি কিনে নিয়েছিলো৷ তারা এটাও বলছে, মূর্তিটি এতটাই নাজুক যে, একে এদিক সেদিক করলে এখন সেটি ভেঙে যেতে পারে৷

এন্টিকুইটিস কাউন্সিল বলছে, প্রত্নতাত্ত্বিক শিল্পকর্ম অবৈধভাবে মিশরের বাইরে চলে যাওয়ায় তা ফিরে পাওয়ার নীতির মধ্য দিয়েই জার্মানিকে এই অনুরোধ করেছে মিশর৷

এন্টিকুইটিস এর প্রধান জাহি হাওয়াস বলছেন, নেফারতিতির মূতির্টি ফিরে পাওয়ার পর তা প্রদর্শন করা হবে মিশরের মিনিয়া জাদুঘরে৷ ২০১২ সালের শুরুতেই মিশরের মিনিয়াতে এই জাদুঘরটি খোলা হচ্ছে৷

প্রতিবেদন: জান্নাতুল ফেরদৌস

সম্পাদনা: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী