নেপালকে জ্বালানি সরবরাহ হবে রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত | বিশ্ব | DW | 08.10.2015
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

নেপালকে জ্বালানি সরবরাহ হবে রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত

ভারতীয় অবরোধের মুখে নেপাল এবার বাংলাদেশ থেকে আকাশ-পথে বিমানের জন্য ‘জেট ফুয়েল' নেয়ার চিন্তা করছে৷ এছাড়া বাংলাদেশ থেকে যেসব পণ্য সড়ক পথে নেপালে যায়, তা-ও আটকে আছে বাংলাবান্ধা সীমান্তে৷

আন্তর্জাতিক ও নেপাল ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, নেপালের নতুন সংবিধান নিয়ে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সেখানে এ পর্যন্ত ৪০ জন নিহত হয়েছে৷ বলা বাহুল্য, ভারত নেপালের নতুন সংবিধানের বিরুদ্ধে৷ তাই নেপালে পণ্য সরবরাহ বন্ধ করে দিয়েছে ভারত৷ আর নেপালের চারপাশে ভারতের ভূমি সীমানা হওয়ায় নেপাল এখন চরম বিপাকে পড়েছে৷ বিশেষ করে নেপালের বিমান চলচল ব্যবস্থা বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জেট ফুয়েলের অভাবে, যা এতদিন পর্যন্ত যেত ভারত থেকে৷ খবরটা এসেছে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমেও৷

নেপালের রাষ্ট্র পরিচালিত তেল কর্পোরেশনের মুখপাত্র দীপক বড়ুয়া জানান, ‘‘আমরা বাংলাদেশ থেকে জেট ফুয়েল আনার চিন্তা করছি৷ চীনও আমাদের বিবেচনায় আছে৷''

অন্যদিকে বাংলাদেশের সঙ্গে নেপালের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের পরিমাণ কম হলেও গুরুত্বহীন নয়৷ প্রতিবছর নেপাল বাংলাদেশ থেকে প্রায় ৩ বিলিয়ন টাকার পণ্য নেয়৷ আর বাংলাদেশ নেপাল থেকে প্রায় সোয়া এক বিলিয়ন টাকার পণ্য আমানি করে৷ এ সব পণ্যের বেশিরভাগই ভোগ্যপণ্য

অডিও শুনুন 01:52

ভারতকে চটিয়ে নেপালে পণ্য সরবরাহ অসম্ভব: মতলুব আহমেদ

এই পণ্য ট্রাকযোগে ভারতের ওপর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি হয়৷ ভারতের অবরোধের কারণে বাংলাদেশ-ভারতের বাংলাবন্ধা সীমান্তে নেপালের জন্য পাঠানো পণ্য বোঝাই প্রায় দু'শ ট্রাক আটকে আছে বলে জানা গেছে৷

এই পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ (এফবিসিসিআই)-এর সভাপতি মতলুব আহমেদ ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘ভারতকে বাদ দিয়ে নেপালে জ্বালানি তেলসহ পণ্য সরবরাহ বাংলাদেশের পক্ষে কতটুকু সম্ভব হবে, তা ভাববার বিষয়৷ কারণ নেপাল ভারতের ভূমিবেষ্টিত৷ এটা রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের ব্যাপার এবং এর জন্য রাজনৈতিক উদ্যোগ প্রয়োজন৷''

তিনি বলেন, ‘‘নেপালের পক্ষ থেকে এ ধরণের কোনো অনুরোধ এখনো পাইনি আমরা৷ সরকারও পায়নি বা আমাদের ব্যবসায়ীদের সঙ্গেও তারা কোনোরকম যোগাযোগ করেনি৷'' তবে তাঁর কথায়, ‘‘জীবনরক্ষাকারী এবং মানবিক পণ্যের ব্যাপারে বাংলাদেশ নেপালকে সব ধরণের সহযোগিতা করতে প্রস্তুত৷ আমরা মনে করি, সেক্ষেত্রে ভারতও বাধা হয়ে দাঁড়াবে না৷''

নেপালকে কি বাংলাদেশের পণ্য ও জ্বালানি দিয়ে সাহায্য করা উচিত? আপনার মন্তব্য দিন নীচের ঘরে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়