1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

নেইমার যেন অটো-পাইলট!

নেইমার কেমন করে এত সহজে, এত ঠান্ডা মাথায় প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়দের কাটিয়ে বল নিয়ে ছুটতে পারেন? জাপানের এক নিউরোলজিস্ট রীতিমতো গবেষণা করে উত্তরটা জেনেছেন৷ তাঁর গবেষণা বলছে, মস্তিষ্ক অন্যরকম বলেই নেইমার ড্রিবলিংয়ে এত দক্ষ৷

Fußball WM 2014 Brasilien Kamerun Neymar

নেইমার

প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়দের ভিড় থেকেও ব্রাজিলের সুপারস্টার নেইমার কীভাবে বল নিয়ে নেচে নেচে বেরিয়ে যান এই রহস্য উদঘাটনের জন্য অনেকটা সময় ব্যয় করেছেন জাপানের নিউরোলজিস্ট এলিচি নাইতো৷ গত ফেব্রুয়ারিতে নেইমারসহ স্পেনের বার্সেলোনা শহরের বেশ কয়েকজন ক্রীড়াবিদের মস্তিষ্ক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখার উদ্যোগ নেন তিনি৷ প্রত্যেকের মস্তিষ্কের এমআরআই করে একটা সিদ্ধান্তেই পৌঁছেছেন তিনি, আর তা হলো, নেইমার গড়পড়তা খেলোয়াড়তো বটেই, এমনকি অনেক তারকা খেলোয়াড়ের চেয়েও আলাদা৷ আলাদা হবার কারণ তাঁর অপেক্ষাকৃত কম সক্রিয় মস্তিস্ক!

হ্যাঁ, নেইমারের মস্তিষ্ক দশজনের চেয়ে শতকরা অন্তত ১০ ভাগ কম সক্রিয়৷ সে কারণেই নাকি খুব দ্রুত ছুটতে ছুটতেও অনায়াসে প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়দের বোকা বানাতে পারেন ২৩ বছর বয়সি ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড৷ জাপানের মাইনিচি শিমবুন পত্রিকাকে এলিচি নাইতো বলেন, ‘‘এমআরআই-এর সব ছবি দেখে আমরা নিশ্চিত হয়েছি, নেইমারের মস্তিষ্ক একজন শৌখিন খেলোয়াড়ের মস্তিষ্কের তুলনায় ১০ ভাগ কম সক্রিয়৷ কম সক্রিয় হলে মস্তিষ্কে চাপও কম পড়ে আর তখন (কোনো খেলোয়াড়) এক সময়েই অনেক জটিল মুভমেন্ট দেখাতে পারে৷''

বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন তারকা মেসি এবং রেয়াল মাদ্রিদের পর্তুগিজ তারকা রোনাল্ডোর মস্তিষ্কও কি নেইমারের মতো? এ প্রশ্নের জবাবে জাপানের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশনের গবেষক এলিচি নাইতো বলেন, ‘‘তাঁদের ফুটওয়ার্ক এবং টেকনিক দেখে তো তা-ই মনে হয়!''

নেইমারকে নিয়ে এলিচি নাইতোর এ গবেষণা বিষয়ক সমস্ত তথ্য ছাপা হয়েছে বিজ্ঞানবিষয়ক সুইস জার্নাল ফ্রন্টিয়ার-এ৷

এসিবি/জেডএইচ (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়