1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট এর্দোয়ানের বিপর্যয়

তুরস্কের ক্ষমতাসীন আক পার্টি একেপি ২০০২ সালের পর এই প্রথম তাদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারালো৷ বলা বাহুল্য, এ ফলাফল এর্দোয়ানের জন্য অত্যন্ত লজ্জাজনক৷ ডিডাব্লিউ-র বাহা গ্যুনগর মনে করেন, সে দেশে রাজনৈতিক অস্থিরতা বাড়তে চলেছে৷

তুরস্কের ভোটাররা তাঁদের গণতান্ত্রিক ক্ষমতা দেখিয়েছেন৷ দু'জন স্পষ্ট পরাজয় ও একজন স্পষ্ট জয়ের মুখ দেখেছে৷ পরাজয় ঘটেছে প্রেসিডেন্ট রেচেপ তাইয়িপ এর্দোয়ান এবং তাঁর ধর্মীয় রক্ষণশীল সরকারি আক পার্টির৷ অন্যদিকে কুর্দি দল এইচডিপি এই প্রথম ১০ শতাংশের সীমা পেরিয়ে আঙ্কারার জাতীয় সংসদে প্রবেশ করেছে৷

নির্বাচনের এই ফলাফল এর্দোয়ানের জন্য লজ্জাজনক বিপর্যয়৷ তুরস্ককে প্রেসিডেন্সিয়াল গণতন্ত্রে রূপান্তরিত করতে এর্দোয়ান নিজের সর্বশক্তি প্রয়োগ করেছিলেন৷ এমনকি প্রেসিডেন্ট হিসেবে রাজনৈতিক আঙিনায় নিরপেক্ষ থাকার দায়িত্ব উপেক্ষা করে তিনি কয়েক সপ্তাহ ধরে সারা দেশে আক পার্টির হয়ে প্রচার করেছেন৷ প্রতিপক্ষ রাজনৈতিক দল ও তাদের নেতাদের বিরুদ্ধে কড়া ভাষায় তোপ দেগেছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে অপমানজনক কথাও বলেছেন৷ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ধর্মের অপব্যবহারের কারণে এর্দোয়ান এবং দল ও সরকার-প্রধান হিসেবে তাঁর উত্তরসূরি আহমেত দাভোতলু শাস্তি পেলেন৷

২০০২ সালে এর্দোয়ানের নেতৃত্বে আক পার্টি ৩৪ শতাংশ ভোট পেয়ে প্রথম বার বিপুল জয়ের মুখ দেখেছিল৷ তারপর চার বছর আগে ৫০ শতাংশ এবং এক বছর আগে প্রথম সরাসরি প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ৫২ শতাংশ ভোট পেয়ে ক্ষমতার শিখরে পৌঁছে গিয়েছিল এই দল৷ এবার সমর্থনের সেই মাত্রা ৪০ শতাংশে কমে গেছে৷ ফলে দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতার বলে দেশের শাসনব্যবস্থা রাষ্ট্রপতি-কেন্দ্রিক করে তোলার স্বপ্ন এর্দোয়ানের জন্য অবাস্তব রয়ে গেল৷ প্রথম বার নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারিয়ে আক পার্টি কোয়ালিশন গড়তে বাধ্য হবে৷ তা না করে বিরোধী আসনে বসলে দলের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত হয়ে পড়বে৷ বার বার দেখা গেছে, যে তুরস্কে ক্ষমতাসীন নেতারা প্রেসিডেন্ট পদে আসীন হবার পর তাঁদের দলগুলি রাজনৈতিক আঙিনায় গুরুত্বহীন হয়ে পড়েছে৷

প্রতিবাদী ভোটের ফায়দা পেল এইচডিপি

এবারের নির্বাচনের আসল বিজয়ী কুর্দি এইচডিপি দলের পক্ষে এক দিনের জন্যও আত্মতুষ্টি ও নিজেদের ক্ষমতা সম্পর্কে ভুল ধারণা পোষণ করা উচিত হবে না৷ কারণ চলতি বছরে আগাম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলে তারা বিরোধী দল হিসেবে আবার সংসদের বাইরে ফিরে যেতে পারে৷ দলের দুই সহ সভাপতি সেলাহাটিন ডেমিরটাস ও ফিগেন ইয়ুসকেডাগ-কে সচেতন থাকতে হবে যে, আক পার্টি সহ অন্য অনেক দলের সমর্থকদের প্রতিবাদী ভোটের জন্যই তাঁরা এমন সাফল্য পেয়েছেন৷ নিজের ক্ষমতা পাকাপোক্ত করতে বহুমত-ভিত্তিক গণতন্ত্র থেকে তুরস্ককে দূরে সরিয়ে নিয়ে যেতে এর্দোয়ান যা করতে চেয়েছিলেন, তার বিরুদ্ধে দলমতনির্বিশেষে জোরালো বিরোধিতা সৃষ্টি হয়েছিল৷

Guengoer Bahaeddin Kommentarbild App

বাহা গ্যুনগর, ডয়চে ভেলে

এইচডিপি দলকে এখন প্রমাণ করতে হবে যে, তারা গোটা দেশের সব মানুষের গণতান্ত্রিক দল৷ তারা যে কুর্দি সংগঠন পিকেকে-র রাজনৈতিক সংগঠন নয়, মানুষের কাছে সেই বার্তা পৌঁছে দিতে হবে৷ ১৯৮৪ সাল থেকে পিকেকে ও তুর্কি রাষ্ট্রের মধ্যে সংঘাতের ফলে প্রায় ৪০,০০০ মানুষের মৃত্যু ঘটেছে৷ এই প্রেক্ষাপটে বাম ও দক্ষিণপন্থি জাতীয়তাবাদী দলগুলি সংসদে এইচডিপি দলকে কোণঠাসা করার চেষ্টা করবে৷ এইচডিপি দল যে জাতীয়তাবাদী এমএইচপি-র প্রায় সমান ভোট পেয়েছে, উগ্র দক্ষিণপন্থিদের পক্ষে এই বাস্তব হজম করা কঠিন৷ এইচডিপি যদি রাজনৈতিক কূটকৌশল কাজে লাগিয়ে ১৬ বছরেরও বেশি সময় ধরে বন্দি পিকেকে নেতা আব্দুল্লাহ ও্যচালান-কে মুক্ত করার চেষ্টা করে, সেটাও হবে এক মারাত্মক ভুল৷ এর্দোয়ান ও আক পার্টিকে আজ মর্মান্তিক পরাজয় মেনে নিতে হচ্ছে বটে৷ কিন্তু অন্যদিকে যে বিরোধী দলগুলি সাফল্যের মুখ দেখেছে, তাদের মনে রাখতে হবে যে তারা যে ভোট পেয়েছে, তার একটা বড় অংশের কারণ এর্দোয়ান ও আক পার্টির ঔদ্ধত্য সম্পর্কে ভোটারদের মনোভাব৷ এতে তাদের নিজস্ব কৃতিত্ব কম৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়