1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন চান ড. ইউনূস

নির্বাচন নিয়ে মন্তব্য করলেন নোবেল জয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূস৷ তিনি বলেছেন, নির্দলীয় সরকারের অধীনে ছাড়া নির্বাচন শান্তিপূর্ণ হবে না৷ বিশ্লেষকরা মনে করেন, তাঁর এই বক্তব্য কেউ যেন রাজনৈতিকভাবে না দেখেন৷

‘‘গ্রামীণ ব্যাংক যারা ধ্বংস করতে চায় সেই ধরণের নেতাদের হাতে দেশের দায়িত্ব দেয়া যায় না৷'' – বুধবারের এই মন্তব্যের রেশ শেষ না হতেই ড. মুহাম্মদ ইউনূস বৃহস্পতিবার নির্বাচনকালীন সরকার নিয়েও খোলাখুলি মন্তব্য করলেন৷ তিনি গ্রামীণ ব্যাংক ভবনের ইউনূস সেন্টারে আব্দুল কাদের সিদ্দিকীর নেতৃত্বে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের নেতাদের সঙ্গে মত বিনিময়কালে তাঁর অবস্থান স্পষ্ট করেন৷ তিনি বলেন, ‘‘দেশে অশান্তি দূর করতে নির্দলীয় সরকারের অধীন ছাড়া শান্তিপূর্ণভাবে আগামী সংসদ নির্বাচন হওয়ার সুযোগ নেই৷'' তিনি আরো বলেন, ‘‘কোনো দল বা কারও ইচ্ছার কারণে যদি অশান্তি সৃষ্টি হয়, তাহলে দেশের মানুষ তাদের ক্ষমা করবে না৷'' ড. ইউনূস রাজনৈতিক দলগুলোকে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সমঝোতার আসার আহ্বান জানান৷ আহ্বান জানান সমস্যা সমাধানের৷ নির্বাচন সব দলের অংশগ্রহণেই হতে হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি৷

ড. মুহাম্মদ ইউনূসের এই অবস্থানকে জন প্রত্যাশার কাছে তাঁর নৈতিক অবস্থান বলে মনে করেন জাতীয় নির্বাচন পর্যবেক্ষক পরিষদ বা জানিপপের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমুল্লাহ৷ তিনি ডয়চে ভেলেকে বলেন, নোবেল লরিয়েট ড. মুহাম্মদ ইউনূস দেশের মানুষের উদ্বেগ-আকাঙ্খাকে গুরুত্ব দেবেন, এটাই স্বাভাবিক৷ আর দেশের একজন নাগরিক হিসেবেও তাঁর নিজস্ব মত প্রকাশের স্বাধীনতা আছে৷ এই অবস্থান হয়ত কোনো রাজনৈতিক দলের অবস্থানের বিপরীত৷ কিন্তু সেটাকে রাজনৈতিক দৃষ্টিকোণ থেকে বিবেচনা করলে চলবে না৷ ড. কলিমুল্লাহ মনে করেন, ড. ইউনূস তাঁর নৈতিক জায়গা থেকে নির্বাচনকালীন সময়ে তত্ত্বাবধায়ক সরকারে পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন৷ মুক্ত চিন্তার মানুষের অবস্থান যে কারুর পক্ষে বা বিপক্ষে যেতেই পারে৷ তাই বলে তাঁরা স্বাধীন মত প্রকাশে বিরত থাকেন না৷ ড. মুহাম্মদ ইউনূস নির্বাচনকালীন সরকার ব্যবস্থা নিয়ে তাঁর অবস্থান স্পষ্ট করে সঠিক কাজই করেছেন বলে মনে করেন তিনি৷

ড. ইউনূসের এই অবস্থান রাজনৈতিক না হলেও সাধারণ মানুষের ওপর তো এর প্রতিক্রিয়া আছে? এমন প্রশ্নের জবাবে ড. কলিমুল্লাহ বলেন, প্রতিক্রিয়া থাকাই স্বাভাবিক৷ তিনি দেশের শান্তি বজায় রাখার স্বার্থে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন করার কথা বলেছেন৷ সাধারণ মানুষ নিশ্চয়ই এটা নিয়ে ভাববেন৷ তাঁরা তাঁর অবস্থানকে যৌক্তিক মনে করলে, সেটাই চাইবেন৷ মনে রাখতে হবে দেশটা সবার৷ আর দেশের কল্যাণে চিন্তা করা এবং মতামত দেয়া অধিকার সবারই আছে৷ এটা নিয়ে কোনো রাজনৈতিক দল কি ভাবল – তা বিবেচনার তেমন প্রয়োজন নেই৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন