নিজের অর্ধেক সম্পদ দানে শীর্ষ ধনকুবের স্লিমের অসম্মতি | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 08.08.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

নিজের অর্ধেক সম্পদ দানে শীর্ষ ধনকুবের স্লিমের অসম্মতি

বিশ্বের দ্বিতীয় এবং তৃতীয় শীর্ষ ধনকুবের তাঁদের অর্ধেক সম্পদ মানবসেবায় দান করতে চাইলেও তাতে রাজি নন শীর্ষ ধনকুবের কার্লোস স্লিম৷ এত বিশাল অঙ্কের সম্পদ দান করার পর সেগুলোর যথার্থ ব্যবহার হবে কি না এমন প্রশ্ন তোলেন স্লিম৷

Carlos Slim, Mexican telecommunications, billionaire, শীর্ষ ধনকুবের, কার্লোস, স্লিম, মাইক্রোসফট প্রতিষ্ঠাতা, বিল গেইটস, পুঁজিপতি, ওয়ারেন বাফেট

শীর্ষ ধনকুবের কার্লোস স্লিম

ফোর্বস ম্যাগাজিনের বিবেচনায়, বর্তমানে বিশ্বের শীর্ষ ধনি ব্যক্তিটি হলেন কার্লোস স্লিম৷ তিনি পেশায় একজন প্রকৌশলী৷ মেক্সিকোর টেলি যোগাযোগ খাতের অগ্রনায়ক হিসেবে পরিচিত স্লিম৷ মেক্সিকোর সমাজে স্বাস্থ্য এবং প্রযুক্তি খাতে কল্যাণকর কাজে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার জন্য বেশ সুনাম রয়েছে ৭০ বছর বয়সি স্লিমের৷ আর ধনসম্পদের বিবেচনায় তাঁর পরেই স্থান রয়েছে মাইক্রোসফট প্রতিষ্ঠাতা বিল গেইটস এবং পুঁজিপতি ওয়ারেন বাফেটের৷

সম্প্রতি গেইটস এবং বাফেটসহ চল্লিশজন ধনকুবের ঘোষণা দেন তাঁদের সম্পদের অর্ধেক দান করবেন বিশ্বের গরিব-দুঃখী মানুষের সেবায়৷ এসব উদার এবং জনহিতৈষী ধনকুবেরদের মধ্যে রয়েছেন ওরাকল'এর প্রতিষ্ঠাতা ল্যারি এলিসন, নিউইয়র্কের মেয়র মাইকেল ব্লুমবার্গ, চলচ্চিত্র পরিচালক জর্জ লুকাস এবং সিএনএন-এর প্রতিষ্ঠাতা টেড টার্নার৷ কিন্তু বেঁকে বসেছেন শীর্ষ ধনকুবের স্লিম৷

পুয়ের্টো রিকোতে প্রকৌশলীদের একটি সম্মেলনে যোগ দিতে গিয়ে স্লিম বললেন, এভাবে অর্ধেক সম্পদ দান করাটা ‘নিরর্থক এবং হাস্যকর'৷ মেক্সিকান পত্রিকা ‘লা জর্নাডা' প্রকাশ করেছে এই খবর৷ স্লিমের যুক্তি, ‘‘কেউ নিশ্চিত করে বলতে পারবে না যে, এসব দানের অর্থ যাদের কাছে যাবে তারা তা সঠিক কাজে লাগাবে৷'' তিনি বলেন, ‘‘এই অর্থ বরং সামাজিক কল্যাণকর প্রকল্পসমূহের জন্য ঋণ হিসেবে দিতে হবে এবং নির্দিষ্ট দক্ষ ব্যক্তিবর্গকে সেসব প্রকল্প বাস্তবায়নের দায়িত্ব নিতে হবে৷''

প্রতিবেদন: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা: ফাহমিদা সুলতানা

নির্বাচিত প্রতিবেদন