1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

নিজেদের ভুল ঢাকার চেষ্টা করেছে জার্মান পুলিশ?

জার্মানির বার্লিন রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আন্দ্রেয়াস গিজেল তাঁর রাজ্যের পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ এনেছেন৷ বার্লিনে বড়দিনের বাজারে হামলাকারীকে আগেই গ্রেপ্তার করা যেত বলে মনে করেন তিনি৷

Deutschland Andreas Geisel (picture alliance/dpa/P. Zinken)

জার্মানির বার্লিন রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আন্দ্রেয়াস গিজেল

বার্লিনের সেনেটকে বুধবার গিজেল জানান, মাদক পাচারের অভিযোগে আনিস আমরিকে গ্রেপ্তার করার মতো পর্যাপ্ত প্রমাণ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে ছিল৷ কিন্তু তারা তাকে আগে গ্রেপ্তার করতে ব্যর্থ হয়েছেন৷

গত বছরের নভেম্বরে প্রকাশ হওয়া এক নথিতে মাদক পাচারের সঙ্গে আমরির জড়িত থাকার কথা উল্লেখ করা থাকলেও তাঁকে তখন আটক করা হয়নি৷ পরের মাসে, অর্থাৎ ডিসেম্বরে তিনি একটি ট্রাক ছিনতাই করে সেটি নিয়ে বার্লিনের বড়দিনের বাজারে ঢুকে পড়েন৷ ঐ হামলায় ১২ জন নিহত হয়৷

বার্লিনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বার্লিনের ‘ক্রিমিনাল পুলিশ অফিস’ বা এলকেএ-র কর্মীরা বার্লিন হামলার পর তাঁদের ভুল ঢাকতে আমরির বিরুদ্ধে নথিতে আগে যে রকম কঠোর ভাষা ব্যবহার করা হয়েছিল, তাতে পরিবর্তন আনেন৷

গিজেল জানিয়েছেন, তিনি একটি অভিযোগ দাখিল করেছেন এবং তদন্ত শুরু হয়েছে৷

Anis Amri Videostill (picture-alliance/abaca/B. Press)

আনিস আমরি

বিশেষ তদন্ত

বার্লিন সেনেটকে গিজেল বলেন, বিশেষ তদন্ত কর্মকর্তা ব্রুনো ইয়স্ট মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এলকেএ-র দুটি নথি পেয়েছেন৷ এতে দেখা যায়, মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত আছে কিনা তা তদন্ত করতে গিয়ে ২০১৬ সালের জুন পর্যন্ত আনিস আমরির ফোন মনিটর করা হয়েছে৷ এভাবে যে প্রমাণ পাওয়া যায় তা আমরিকে গ্রেপ্তার করার জন্য যথেষ্ট ছিল৷ আমরির ফোন মনিটর করার জন্য আদালত পুলিশকে অক্টোবর পর্যন্ত সময় দিলেও জুন পর্যন্ত সেই কাজ করা হয়েছে৷ তারপর নভেম্বরে নথি প্রকাশ করা হয়৷

এলকেএ-র কর্মকর্তা জানুয়ারি মাসে (অর্থাৎ বার্লিন হামলার পর) আমরির অপরাধকে ‘গৌণ’ আখ্যায়িত করে একটি নথি লেখেন৷ তবে তাতে নভেম্বরের ১ তারিখ দেয়া হয়৷

এদিকে, জার্মান সংসদের এক তদন্ত প্রতিবেদন বলছে, রাজ্য ও কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা কর্মকর্তারা আমরি কতখানি হুমকি তা পরিমাপ করতে ব্যর্থ হয়েছেন৷ এছাড়া জার্মানির যৌথ সন্ত্রাসবাদ প্রতিরক্ষা কেন্দ্রের (সন্ত্রাসবাদ সম্পর্কে রাজ্য ও কেন্দ্রীয় পর্যায়ের গোয়েন্দাদের তথ্য সমন্বয়কারী সংস্থা) কাজ করার প্রক্রিয়ায় ত্রুটি পাওয়ার কথা জানিয়েছে৷

বার্লিনের সরকারি প্রচারমাধ্যম আরবিবি গোপন এই প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে৷

জেডএইচ/এসিবি (এএফপি, ডিপিএ, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়