1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

নিজেকেই বিয়ে করছে তাইওয়ানের মেয়েরা

পাত্র নেই৷ তাই বলে কি বিয়ে হবে না? এবার বর ছাড়াই বিয়ে করছেন তাইওয়ানের মেয়েরা৷ এমনই একজন চেন ওয়াই-য়ি৷

default

পাত্র পেলে তো কথাই নেই

সাদা পোশাক পরে ছবি তোলার জন্য পোজ দিচ্ছিলেন চেন৷ ত্রিশজন বন্ধুকে তিনি এই হলে আমন্ত্রণ করেছেন৷ এখানেই চলছে তাঁর বিয়ের ভূরিভোজ৷ বিয়ের অনুষ্ঠান হলে কি হবে? বর নেই৷ বর আসবেনও না৷ কারণ কনে চেন নিজেই নিজেকে বিয়ে করছেন৷ সামাজিক চাপের মুখেই তাঁকে এ বিয়ে করতে হচ্ছে৷ শুধু বিয়ে নয়, ত্রিশ বছর বয়সি এই অফিস কর্মীকে আগামী মাস পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে তাঁর বিয়ের রিসেপশনের জন্য৷

চেন বলেন, ‘‘ত্রিশ বছর বয়স আমার জীবনের গুরুত্বপূর্ণ একটা সময়৷ কাজে এবং অভিজ্ঞতায় এখন আমি ভালো একটা অবস্থানে আছি৷ কিন্তু আমি এখনও আমার জীবনসঙ্গীকে খুঁজে পাইনি৷ সুতরাং আমি কী করতে পারি?''

চেন আরও বলেন, ‘‘এর মানে এই নয় যে, আমি বিয়ের বিপক্ষে৷ তবে আমি শুধু এতটুকু আশা করি যে, ঐতিহ্যগত এই বাধার বাইরে আমি আমার মতামত প্রকাশ করতে পারবো৷''

তাইওয়ানের নারীরা দেরিতে বিয়ে করছেন৷ স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে, এ বছরের প্রথম দিকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, কেবল চল্লিশ শতাংশ নারী মনে করে অবিবাহিতা হয়ে থাকার চেয়ে বিয়ে করা ভালো৷

অস্ট্রেলিয়ায় একাই মধুচন্দ্রিমায় যাচ্ছেন চেন৷ বললেন, ‘‘আমি শুধু আশা করেছিলাম যে, আরও বেশি লোকজন নিজেদেরকে ভালোবাসবেন৷'' তিনি আরও বলেন, তাঁর মায়ের বিয়ের সময়ও প্রথমে পাত্র ছিলোনা৷ কিন্তু পরবর্তীতে তাঁর মায়ের মাথায় নিজেকে নিজে বিয়ে করার পরিকল্পনা আসে৷ নিজেকে বিয়ে করার ক্ষেত্রে কাগজে কলমে নিবন্ধন করতে পারেননি চেন৷ পরবর্তীতে তিনি যদি তাঁর জীবনসঙ্গীকে খুঁজে পান, তাহলে তিনি আবার বিয়ে করবেন৷ চেন বলছেন, ‘‘আমার যদি কোনো ছেলে বন্ধু থাকতো, তাহলে আমি এমনভাবে বিয়ে করতাম না৷ সে যাই হোক, বিয়ে তো করতেই হবে, তাই না? ''

প্রতিবেদন: জান্নাতুল ফেরদৌস

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন