1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

নিজামীর রায় স্থগিত হওয়ায় তীব্র প্রতিক্রিয়া

জামায়াতে ইসলামীর আমীর মতিউর রহমান নিজামীর বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধে করা মামলার রায় আবারো পিছিয়ে যাওয়ায় তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে৷ বিএনপি নেতা হান্নান শাহ-র দাবি, প্রতিবেশী দেশের পরামর্শেই রায় স্থগিত করা হয়৷

মতিউর রহমান নিজামীর বিরুদ্ধে রায় ঘোষণা এ নিয়ে দু'বার স্থগিত করা হলো৷ প্রথমবার, গত মার্চ মাসে বিচারকের পরিবর্তনের কারণে আর মঙ্গলবার তা স্থগিত করা হলো নিজামীর অসুস্থতার কথা বলে৷ শুধু তাই নয়, রায় আবার কবে ঘোষণা করা হবে – তার পরিবর্তিত তারিখও জানানো হয়নি৷

এ ঘটনায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আ স ম হান্নান শাহ ঢাকায় এক অনুষ্ঠানে দাবি করেন, ‘‘ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের ঢাকা সফরকালে হরতাল হতে পারে – এই আশঙ্কা থেকেই প্রতিবেশী দেশের পরামর্শে যুদ্ধাপরাধের মামলার রায় স্থগিত করা হয়েছে৷''

Indien Sushma Swaraj

বিএনপির দাবি, ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের ঢাকা সফরকালে হরতাল হতে পারে – এই আশঙ্কা থেকেই প্রতিবেশী দেশের পরামর্শে রায় স্থগিত করা হয়েছে

তিনি বলেন, ‘‘বাংলাদেশের সব কিছু এখন বাইরের, অর্থাৎ প্রতিবেশী দেশ দ্বারা নিয়ন্ত্রণ হচ্ছে৷'' উল্লেখ্য বুধবার তিনদিনের সফরে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ৷

অন্যদিকে গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার মতিউর রহমান নিজামীর বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধে জন্য করা মামলার রায় স্থগিত হওয়াকে ‘ষড়যন্ত্র' বলে অভিহিত করেছেন৷

তিনি বলেন, ‘‘আমরা অন্য রায়ের আগে দেখেছি যে, জামায়াত প্রতিক্রিয়া দেখায়৷ কিন্তু নিজামী তাদের আমির হওয়া সত্ত্বেও রায়ের আগে তারা নীরব থেকেছে৷ এ জন্য তখনই আমাদের সন্দেহ হয়েছিল যে, রায় ঘোষণা নিয়ে কোনো একটা ষড়যন্ত্র হচ্ছে৷''

গণজাগরণ মঞ্চের এই নেতা বলেন, ‘‘দীর্ঘ ছয় মাস ধরে আমরা কোনো রায় পাচ্ছি না৷

বিচার প্রক্রিয়া দীর্ঘসূত্রিতা ও অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছে৷ আমরা প্রত্যাশা করেছিলাম, এই রায়ের মাধ্যমে বাংলাদেশের জনগণ সঠিক বিচার পাবে এবং দেশে ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠিত হবে৷ কিন্তু তা হয়নি৷''

স্বাভাবিকভাবেই, গণজাগরণ মঞ্চ রায় স্থগিতের প্রতিবাদে শাহবাগে মিছিল করেছে৷ ঢাকায় রায় স্থগিতের প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছেন মুক্তিযোদ্ধারাও৷

এদিকে মতিউর রহমান নিজামীর রায় স্থগিতে সরকারের কোনো ভূমিকা নেই বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং সাবেক মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ৷ তিনি দলীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘রায় ঘোষণা করায় সরকারের কোনো দুর্বলতা নেই৷ এমনকি তাদের আন্তরিকতাতেও কোনো ধরনের ঘাটতি ছিল না৷ কিন্তু আসামি অসুস্থ হয়ে যাওয়ায় আদালত রায় স্থগিত করেছে৷ কারণ রায় ঘোষণার সময় আসামি উপস্থিত থাকার বাধ্যবাধকতা রয়েছে৷ নিজামীর নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে, সুস্থ হলে যে কোনো সময় রায় ঘোষণা করা হবে৷''

ওদিকে ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ বলেছেন, ‘‘এটাই ন্যায় বিচার৷ রায় স্থগিত হয়েছে ন্যায় বিচারের স্বার্থেই৷'' এই একই কথা বলেছেন নিজামীর আইনজীবী অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলামও৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়