1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

নিখোঁজ বিমান তল্লাশিতে চীন

দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে বৃহস্পতিবার রাতে ভারত মহাসাগরে মালয়েশিয়ার বিমান তল্লাশি অভিযান স্থগিত করা হয়৷ শুক্রবারও অনুসন্ধানকারী বিমানের রাডারে কিছু ধরা পড়েনি৷ ফলে শনিবার আবার শুরু হবে তল্লাশি৷

প্রত্যন্ত জায়গায় তল্লাশি

শুক্রবার ভারত মহাসাগরের দক্ষিণাঞ্চলে যে এলাকাটায় বস্তু দুটির ছবি দেখা গেছে সেটি বেশ প্রত্যন্ত৷ সেখানে যেতে অনুসন্ধানকারী জাহাজের চার ঘণ্টা লাগে এবং ফিরতে লাগে চার ঘণ্টা, ফলে খোঁজার জন্য তারা সময় পাচ্ছেন মাত্র দুই থেকে তিন ঘণ্টা৷ এদিকে চীনেররাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, চীনা নৌ-বাহিনীর তিনটি জাহাজও ঐ এলাকার দিকে রওনা দিয়েছে৷ এদের মধ্যে একটি বরফ ভাঙার জাহাজ স্নো ড্রাগন৷

এএমএস-এর তৎপরতা

অস্ট্রেলিয়ার মেরিটাইম সেফটি অথরিটি বা এএমএসএ-এর কর্মকর্তা জন ইয়াং জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার সকালটা যে আশা নিয়ে শুরু হয়েছিল, শুক্রবারের বেশিরভাগ সময় ফলশূন্যই রয়ে গেছে৷ তবে এটি একটি বিশাল এলাকা এবং সেখানে তল্লাশি চালাতে আরো সময়ের প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন তিনি৷

আবহাওয়া অনুকূল

অস্ট্রেলীয় আবহাওয়া দপ্তরের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন ঐ এলাকার আবহাওয়া ক্রমে অনুকূলে চলে আসছে৷ এটি বিমানটি অনুসন্ধানে সহায়ক ভূমিকা রাখবে বলে আশা করা যাচ্ছে৷ সামান্য কিছু মেঘ রয়েছে আকাশে৷ বিমানগুলো তল্লাশির সময় তাদের রাডারে কিছুই ধরা পড়েনি বলে জানিয়েছেন ইয়াং৷ তিনি জানান শুক্রবার রাতে আবহাওয়া কেমন থাকে তার উপর নির্ভর করে শনিবারের অভিযানে তল্লাশির এলাকা পরিবর্তন করা হবে৷ এএমএস জানিয়েছে, অন্য একটি বাণিজ্যিক জাহাজ এবং একটি অস্ট্রেলিয়ান নৌযান এখনও তল্লাশি চালিয়ে যাচ্ছে৷

এএমএসএ কর্মকর্তারা অবশ্য উপগ্রহ থেকে আরো নতুন ছবি পাওয়া যায় কিনা তাও লক্ষ্য রাখছেন৷ কেননা নতুন ছবি পাওয়া গেলে তাদের তল্লাশিতে আরো সুবিধা হতে পারে৷

পাপুয়া নিউগিনিতে এক সংবাদ সম্মেলনে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী টোনি অ্যাবট বলেছেন, ভারত মহাসাগরে ভাসমান বস্তু দুটি আসলেই কি তা জানতে তারা সব ধরনের প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন৷ এমনও হতে পারে কোনো জাহাজ থেকে পড়ে যাওয়া একটা কন্টেইনারও হতে পারে এটি৷

ব্ল্যাক বক্সের সন্ধানে

বিজ্ঞানীরা বলছেন, নিখোঁজ বিমানটির কি হয়েছে তা জানতে হলে ব্ল্যাক বক্সটি উদ্ধার করা প্রয়োজন৷ তাই সেটার অনুসন্ধান করছেন তারা৷ এটা ভীষণ কঠিন কাজ, কেননা প্রচণ্ড স্রোতের কারণে বক্সটি কোথায় গিয়ে পড়বে তা ঠিক বলা যায় না বলে জানিয়েছেন ম্যাসাচুসেটস-এর উডস হোল ওশেনগ্রাফিক ইনস্টিটিউশন ইন ফলমাউথ-এর বিশেষ প্রকল্প পরিচালক ডেভিড গ্যালো৷

এদিকে বেইজিং এ শুক্রবার বিমানের আরোহীদের স্বজনরা মালয়েশীয় ও চীনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করেছেন৷ সেখানে তাঁরা বলেন, মালয়েশীয় কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে প্রতি দুই ঘণ্টায় অভিযানের আপডেট জানানোর কথা থাকলেও তারা এ বিষয়ে কিছুই জানাচ্ছে না৷ তারা অভিযোগ করেন কর্তৃপক্ষ বিমানটি তল্লাশিতে গালিফতির পরিচয় দিয়েছে৷ বিমানটিতে চীনের ১৫৩ জন নাগরিক ছিলেন৷ বৃহস্পতিবার রাতে মালয়েশীয় প্রতিনিধিদের একটি দল বেইজিং পৌঁছায়৷

বিমানটি নিখোঁজ হওয়ার ১৩ দিন পর শুক্রবার স্যাটেলাইটের চিত্রে সাগরে দুটি বস্তু ধরা পড়েছে, যা ফ্লাইট এমএইচ৩৭০-এর ধ্বংসাবশেষ হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে৷ অস্ট্রেলিয়ার মেরিটাইম সেফটি অথরিটি বা এএমএসএ-এর কর্মকর্তা জন ইয়াং জানান, ‘‘বড় বস্তুটির দৈর্ঘ্য অন্তত ২৪ মিটার৷ শুক্রবার অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড ও যুক্তরাষ্ট্রের চারটি বিমান পার্থের দুই হাজার ৫০০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে ভারত মহাসাগরে ২৩ হাজার বর্গকিলোমিটার এলাকাজুড়ে বিমানটির অনুসন্ধান চালিয়েছে৷

২৩৯ জন যাত্রী নিয়ে ৮ই মার্চ কুয়ালালামপুর থেকে বেইজিং যাওয়ার পথে বিমানটি রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়৷

এপিবি/ডিজি (এপি, এএফপি, রয়টার্স, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন